শিরোনাম :

  • ড. কালাম স্মৃতি পদক গ্রহণ করলেন প্রধানমন্ত্রী বিকেলে রাজহংস উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী অবশেষে মাঠে নামতে যাচ্ছেন মেসি! ভিকারুননিসার নতুন অধ্যক্ষের বৈধতা নিয়ে রিটের আদেশ আজ বছিলায় জঙ্গি আস্তানায় অভিযান : তদন্ত প্রতিবেদন দাখিল ১৭ অক্টোবর
সিরিজ বাঁচাতে লড়াই ইংল্যান্ডের, অস্ট্রেলিয়ার চোখ জয়ে
স্পোর্টস ডেস্ক :
১২ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ১৪:৪৭:৩৪
প্রিন্টঅ-অ+


ইতিমধ্যে শেষ হয়েছে ৪টি টেস্ট। এর মধ্যে দুটি জিতেছে অস্ট্রেলিয়া, একটি ইংল্যান্ড। বাকিটি ড্র। ওল্ড ট্র্যাফোর্ডে চতুর্থ টেস্টে ইংল্যান্ডকে হারিয়ে অ্যাশেজ ট্রফিটা নিজেদের কাছেই রেখে দিয়েছে অস্ট্রেলিয়া। কারণ, দ্য ওভালে অস্ট্রেলিয়া যদি হেরেও যায়, তবুও সিরিজ ড্র এবং অ্যাশেজ ট্রফি নিয়মানুযায়ী থেকে যাবে অস্ট্রেলিয়ার কাছেই।

তবে শেষ ম্যাচে হেরে যেতে চায় না অস্ট্রেলিয়া। তাদের চোখ এখন সিরিজ জয়ে। অর্থ্যাৎ, সিরিজ জিতেই অ্যাশেজ ট্রফি জয়ের পূর্ণতা দিতে চায় তারা। অন্যদিকে, স্বাগতিক ইংল্যান্ডের প্রত্যাশা, ওভালে অন্তত এই ম্যাচটা জিতে সিরিজটা বাঁচিয়ে রাখতে। যাতে সিরিজ হবে ২-২ ড্র। আর যদি শেষ ম্যাচটা ড্র হয়ে যায়, তাহলে সিরিজ জিতে নেবে অস্ট্রেলিয়াই।

এমন সমীকরণ নিয়েই লন্ডনের দ্য ওভালে বাংলাদেশ সময় আজ বিকাল সাড়ে ৩টায় টস করতে নামবেন দুই দলের অধিনায়ক। ৪টা শুরু হবে এবারের অ্যাশেজের শেষ টেস্টের লড়াই।

ম্যানচেস্টারে হেরে গেলেও ইংল্যান্ডের মাথায় রয়েছে ওয়ার্ল্ড টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের বিষয়টি। এছাড়া ২০০১ সালের পর ঘরের মাঠে অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে সিরিজ হারেনি ইংল্যান্ড। তাই ওভালে প্রায় সিরিজ নির্ধারক টেস্ট জিতে সিরিজে সমতা ফেরাতে মরিয়া বর্তমান বিশ্বচ্যাম্পিয়নরা। সে লক্ষ্যে শেষ টেস্টে চূড়ান্ত একাদশে জোড়া পরিবর্তন আনল ইংলিশ থিঙ্ক-ট্যাঙ্ক।

জেসন রয় এবং ক্রেইগ ওভার্টনের পরিবর্তে ওভাল টেস্টের জন্য ইংলিশ স্কোয়াডে নিয়ে আসা হলো স্যাম কুরান এবং ক্রিস ওকসকে। পাশাপাশি অ্যাশেজ নিজেদের করে নেয়ার পর শেষ টেস্ট জিতে সিরিজ নিজেদের করে নিতে মরিয়া অস্ট্রেলিয়া শিবিরেও আনা হল একটি পরিবর্তন। ট্রাভিস হেডের পরিবর্তে ১২ সদস্যের দলে আনা হলো অল-রাউন্ডার মিচেল মার্শকে।

সিরিজের শেষ টেস্টে মিচেল মার্শের অন্তর্ভুক্তি প্রসঙ্গে অসি অধিনায়ক টিম পেইন বলেন, ‘শেষ টেস্টে একজন অতিরিক্ত বোলারকে খেলাতে চাই আমরা। সে কারণেই ট্রাভিসকে ওভাল টেস্টে বাইরে রাখছি আমরা।’ অসি অধিনায়ক আরও বলেন, ‘শেষ টেস্টের কম্বিনেশন গড়তে গিয়ে দুর্ভাগ্যবশত ট্রাভিসকে বাইরে রাখতে হয়েছে। স্বাভাবিকভাবেই হতাশ সে। নিঃসন্দেহে এই মুহূর্তে দেশের প্রথম সারির ছয়-সাতজন ব্যাটসম্যানের মধ্যে অন্যতম ট্রাভিস।’ যদিও ডেভিড ওয়ার্নারের ওপরই আস্থা রাখছেন অসি নির্বাচকরা।

তবে ইংল্যান্ড স্কোয়াড থেকে জেসন রয়ের বাদ পড়া খানিকটা প্রত্যাশিতই ছিল। চলতি অ্যাশেজে ৮ ইনিংসে এই ইংলিশ ওপেনিং ব্যাটসম্যানের সংগ্রহ মাত্র ১১০ রান। সর্বোচ্চ ৩১। শেষদিকে ব্যাটিং অর্ডারে তাকে নামিয়ে আনা হলেও রয়ের পারফরম্যান্সে বিশেষ কিছু বদল ঘটেনি।

তাই দলের এই ওপেনারকে নিয়ে দলনায়ক রুট জানিয়েছেন, ‘টেস্ট ক্রিকেটে নিজের যোগ্যতা প্রমাণের জন্য জেসনের কাছে দুর্দান্ত একটা সুযোগ ছিল; কিন্তু ওর থেকে আমাদের যে প্রত্যাশা ছিল তা পূরণ করতে ব্যর্থ হয়েছে। তবে আমি নিশ্চিত কঠোর পরিশ্রম করে আগামী দিনে ও নিজেকে আবারও প্রমাণ করবে।’

পাশাপাশি ওল্ড ট্র্যাফোর্ডে কাঁধে হালকা চোট পাওয়ায় শেষ টেস্টে বল হাতে নিয়মিত বোলিং করতে পারবেন না অল-রাউন্ডার বেন স্টোকস। তাই কেবলমাত্র ব্যাটসম্যান হিসেবে শেষ টেস্টে বিশ্বজয়ের নায়ককে দলে রাখতে চায় ইংলিশ টিম ম্যানেজমেন্ট। এ প্রসঙ্গে রুট সাংবাদিকদের জানান, ‘কয়েক ওভার অনিয়মিতভাবে বল করতে পারলেও ওর ব্যাটিং চলতি সিরিজে আলাদা মাত্রা যোগ করেছে। তাই শুধুমাত্র ব্যাটসম্যান হিসেবেই ওকে দলে রাখা হয়েছে।’

ওভাল টেস্টে অস্ট্রেলিয়া স্কোয়াড : ডেভিড ওয়ার্নার, মার্কাস হ্যারিস, মার্নাস ল্যাবুসাগনে, স্টিভেন স্মিথ, মিচেল মার্শ, ম্যাথু ওয়েড, টিম পেইন (অধিনায়ক/উইকেটরক্ষক), প্যাট কামিন্স, পিটার সিডল, মিচেল স্টার্ক, নাথান লায়ন ও জশ হ্যাজলউড।

ইংল্যান্ড স্কোয়াড : জো রুট (অধিনায়ক), জনি বেয়ারেস্ট (উইকেটরক্ষক), জোফরা আর্চার, স্টুয়ার্ট ব্রড, রোরি বার্নস, জস বাটলার, স্যাম কুরান, জো ড্যানলি, জ্যাক লিচ, বেন স্টোকস ও ক্রিস ওকস।



আমার বার্তা/১২ সেপ্টেম্বর ২০১৯/জহির


আরো পড়ুন