শিরোনাম :

  • বিশ্বকাপ বাছাইয়ের প্রথম ম্যাচেই সিঙ্গাপুরের চমক চট্টগ্রামের জহুর হকার্স মার্কেটে অগ্নিকাণ্ড হবিগঞ্জে কৃমিনাশক ওষুধ সেবনে বোনের মৃত্যু, দুই ভাই হাসপাতালে বৌদ্ধ ধর্মাবলম্বীদের ‘কঠিন চীবর দান’ উৎসব আজ ডি মারিয়ার জোড়া গোলে পিএসজির বড় জয়
ভারতের ব্যাটিং নিয়ে হার্শা-সুনিলের রসিকতা
স্পোর্টস ডেস্ক :
২৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ১৩:১৯:৪১
প্রিন্টঅ-অ+


রোববার তিন ম্যাচ সিরিজের শেষ টি-টোয়েন্টি ম্যাচে দক্ষিণ আফ্রিকার কাছে পাত্তাই পায়নি ভারতীয় ক্রিকেট দল। প্রথমে বিউরান হেন্ডরিকস, জর্ন ফরচুইনদের পেস বোলিং তোপ আর পরে কুইন্টন ডি ককের দায়িত্বশীলন ব্যাটে ৯ উইকেটের বিশাল জয় পেয়েছে সফরকারীরা। ফলে সিরিজ শেষ হয়েছে ১-১ সমতায়।

তবে ম্যাচের ফল ছাপিয়ে আলোচনার কেন্দ্রে এখন একটি ঘটনা। ভারতের ইনিংসের অষ্টম ওভারে দ্বিতীয় ব্যাটসম্যান হিসেবে যখন আউট হন শিখর ধাওয়ান, তখন দেখা যায় প্যাভিলিয়ন থেকে একসঙ্গে বেরিয়ে আসেন রিশাভ পান্ত এবং শ্রেয়াস আইয়ার। কে নামবেন চার নম্বরে?- এ নিয়ে দেখা দেয় সংশয়। শেষতক উইকেটে থাকা অধিনায়ক বিরাট কোহলিকে সঙ্গ দিতে উইকেটে যান উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান পান্ত।

তখন ধারাভাষ্য কক্ষে ছিলেন সুনিল গাভাস্কার এবং হার্শা ভোগলে। দুজন মিলে উদ্ভূত পরিস্থিতিকে সামাল দেন দারুণ রসিকতার সঙ্গে। আইয়ার-পান্তের মধ্যে কার হওয়া উচিৎ নিয়মিত চার নম্বর ব্যাটসম্যান?- এ প্রশ্নে আলোচনা শুরুর ফাঁকে টিভির পর্দায় ভেসে ওঠে একই ধরনের একটি প্রশ্ন।

যেখানে লেখা ছিল, ‘টি-টোয়েন্টিতে ভারতের হয়ে ৪ নম্বরে কার নামা উচিৎ?’ এ প্রশ্নের বিপরীতে দেয়া হয় চারটি নাম। শ্রেয়াস আইয়ার, রিশাভ পান্তসহ মনিশ পান্ডে এবং লোকেশ রাহুলের নাম দেয়া হয় সম্ভাব্য এ তালিকায়। এ প্রশ্নটিকে ভারতের জনপ্রিয় টিভি অনুষ্ঠান ‘কৌন বানেগা ক্রোড়পতি’র আদলে ব্যাখ্যা করতে থাকেন হার্শা এবং সুনিল।

কোটি টাকা জেতার অনুষ্ঠানে অমিতাভ বচ্চন যেভাবে বলে থাকেন প্রশ্ন, ঠিক সেভাবেই উচ্চারণ করেন সুনিল। সঙ্গে পড়ে শোনান চারটি নামও। বাড়তি আবহ তৈরির জন্য পাশে বসা হার্শাও নকল করতে শুরু করেন সেই অনুষ্ঠানকে। অবস্থা এমন দাঁড়ায় যেনো, ভারতের ৪ নম্বর ব্যাটসম্যান কে?- এটিই হয়ে যায় কোটি টাকার প্রশ্ন।

তবে ম্যাচ শেষে এ প্রশ্নের জবাব দেয়ার চেষ্টা করেছেন ভারতের অধিনায়ক বিরাট কোহলি। বিশেষ করে আইয়ার ও পান্তের একসঙ্গে বেরিয়ে আসার ব্যাখ্যা দিয়েছেন তিনি। যেখানে কোহলি জানান যে ভুল বোঝাবুঝির কারণেই মূলত একসঙ্গে বেরিয়ে এসেছিলেন পান্ত ও আইয়ার।

কোহলি বলেন, ‘আমাদের ব্যাটিং কোচ (বিক্রম রাঠোর) দুজনকেই তৈরি থাকতে বলেছিল। পরিকল্পনা ছিলো যদি ১০ ওভারের মধ্যে দুই উইকেট পড়ে, তাহলে আইয়ার আসবে। আর ১০ ওভার পার হয়ে গেলে চারে আসবে পান্ত। ধাওয়ান অষ্টম ওভারে আউট হওয়ার পর এ নিয়ে ভুল বোঝাবুঝি সৃষ্টি হয় ওদের মধ্যে। তাই দুজনই বেরিয়ে গিয়েছিল। যদি দুজনই উইকেট পর্যন্ত চলে আসতো, তাহলে দারুণ মজা হতো। একসঙ্গে তিন ব্যাটসম্যান উইকেটে (হাসি)।’



আমার বার্তা/২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৯/জহির


আরো পড়ুন