শিরোনাম :

  • মধ্যরাত পর্যন্ত রুদ্ধদ্বার বৈঠক, শর্ত জুড়ে দিয়ে ধর্মঘট প্রত্যাহার আজ সশস্ত্রবাহিনী দিবস ওয়াটারফ্রন্ট স্মার্টসিটি হবে কেরানীগঞ্জে ছোট ভাই প্রেসিডেন্ট, বড় ভাই এবার প্রধানমন্ত্রী ৭ তলার জানালা দিয়ে উড়ে আসছে লাখ লাখ টাকা, কুড়োতে হুড়োহুড়ি
বিক্রিই হলেন না সাকিব-গেইল-মালিঙ্গারা
স্পোর্টস ডেস্ক :
২১ অক্টোবর, ২০১৯ ১০:৪২:৩৭
প্রিন্টঅ-অ+


বাংলাদেশ থেকে বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসানই বিক্রি হওয়ার সম্ভাবনা ছিল বেশি। কিন্তু ইংল্যান্ড অ্যান্ড ওয়েলস ক্রিকেট বোর্ডের (ইসিবি) নতুন ফর্ম্যাটের টুর্নামেন্ট দ্য হান্ড্রেডে (১০০ বলের ক্রিকেট) সাকিবকে কিনেলোই না কোনো দল। আট দলের একটিও সাকিবের নামে ফ্ল্যাগ তুললো না।

শুধু সাকিব আল হাসানই নন, বিশ্বজুড়ে সংক্ষিপ্ত ফরম্যাটের ক্রিকেট মাতানো বড় বড় কয়েকজন ক্রিকেটারও থেকে গেলেন অবিক্রিত। তাদের মধ্যে রয়েছেন ক্যারিবীয় ব্যাটিং দানব ক্রিস গেইল, শ্রীলঙ্কার বিধ্বংসী বোলার লাসিথ মালিঙ্গা কিংবা দক্ষিণ আফ্রিকান পেসার কাগিসো রাবাদারাও। এদের জন্য কোনো ফ্রাঞ্চাইজিই আগ্রহ দেখায়নি।

দ্য হান্ড্রেডে দল হচ্ছে আটটি। তাদের জন্য শর্ত হচ্ছে, সর্বোচ্চ ৩ জন করে বিদেশী ক্রিকেটার নিতে পারবে। মোট খেলোয়াড় সংখ্যা হবে ১৫ জনের। এর মধ্যে আট দলের জন্য আটটি জায়গা আগেই ঠিক করে রাখা। ড্রাফটের আগেই ইংল্যান্ডের কেন্দ্রীয় চুক্তিভুক্ত খেলোয়াড়দের থেকে একজন করে দলভুক্ত করে নেয়ার সুযোগ পেয়েছে দলগুলো। বাকি স্থান পূরণ করা হয়েছে ড্রাফট থেকে।

এর মধ্যে দেশি এবং বিদেশি ক্রিকেটারদেরকে পারিশ্রমিকের ভিত্তিতে ভাগ করা হয়েছে ৭ ভাগে। সর্বোচ্চ ক্যাটাগরির পারিশ্রমিক ছিল ১ লাখ ২৫ হাজার পাউন্ড। ১ লাখ, ৭৫ হাজার, ৬০ হাজার, ৫০ হাজার, ৪০ হাজার এবং ৩০ হাজার পাউন্ডের ক্যাটাগরি নির্ধারণ করা হয়।

ড্রাফট অনুষ্ঠিত হয় ৭ রাউন্ডে। প্রতি রাউন্ড থেকে প্রতি দল দু’জন করে ক্রিকেটার নেয়ার সুযোগ পায়। অর্থ্যা, ৭ রাউন্ড থেকে ২জন করে মোট ১৪ জন, কেন্দ্রীয় চুক্তি থেকে ১ জন। মোট ১৫জন ক্রিকেটারকে দলে অন্তর্ভূক্ত করার সুযোগ পেয়েছে দ্য হান্ড্রেডসে অংশ নেয়া দলগুলো।

ক্রিস গেইল এবং লাসিথ মালিঙ্গা ছিলেন ১ লাখ ২৫ হাজার পাউন্ড পারিশ্রমিক ক্যাটাগরির। কিন্তু বয়স বেড়ে যাওয়া এই দুই ক্রিকেটারের পেছনে সত্যিকারার্থে এত বিপুল পরিমাণ অর্থ বিনিয়োগ করতে রাজি হয়নি দ্য হান্ড্রেডের কোনও ফ্র্যাঞ্চাইজি।

ড্রাফট শুরুর পরপরই নাম তোলার সুযোগ পায় ট্রেন্ট রকেটস। সবাইকে অবাক করে দিয়ে সবার আগে ১ লাখ ২৫ হাজার পাউন্ড মূল্যের ক্রিকেটার হিসেবে তারা বেছে নেয় আফগানিস্তানের রশিদ খানকে।

সর্বোচ্চ দামে (১ লাখ ২৫ হাজার) বিক্রি হওয়া বিদেশি ক্রিকেটার হচ্ছেন আন্দ্রে রাসেল (সাউদার্ন ব্রেভ), অ্যারোন ফিঞ্চ (নর্দান সুপারচার্জার্স), মিচেল স্টার্ক (ওয়েলস ফায়ার), সুনিল নারিন (ওভাল ইনভিন্সিবলস), গ্লেন ম্যাক্সওয়েল (লন্ডন স্পিরিট), ডি আর্কি শর্ট (ট্রেন্ট রকেটস), ডেভিড ওয়ার্নার (সাউদার্ন ব্রেভ), স্টিভেন স্মিথ (ওয়েলস ফায়ার), মুজিব-উর রহমান (নর্দান সুপার চার্জার্স) এবং ইমরান তাহির (ম্যানচেস্টার অর্জিনালস)।

১ লাখ পাউন্ডের কোটায় সাকিব আল হাসানের সঙ্গে অবিক্রিত থেকেছেন ট্রেন্ট বোল্ট, কায়রন পোলার্ড ও ডোয়াইন ব্র্যাভো। এই কোটায় ইংল্যান্ডের বাইরের ক্রিকেটার হিসাবে দল পেয়েছেন কেন উইলিয়ামসন, ক্রিস লিন, মোহাম্মদ নবি, সন্দীপ লামিছানে, এবং মোহাম্মদ আমির।

সাকিব আল হাসানের মূলত আগামী বছর জুলাই-আগস্টে শ্রীলঙ্কা এবং নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে টেস্ট সিরিজ রয়েছে। এ কারণেই মূলতঃ তার দিকে এতটা আগ্রহী হয়নি কোনো ফ্রাঞ্চাইজি। একই কারণে পাকিস্তানের বাবর আজমের দিকেও আগ্রহী হয়নি কেউ। কারণ, তারও টেস্ট সিরিজে খেলার কথা রয়েছে।

বাকি ক্যাটাগরি থেকে দ্য হান্ড্রেডের অন্দরমহলে ঢুকে পড়েছেন ন্যাথান কাউল্টার-নেইল, শাদব খান, শাহিন আফ্রিদি, ফ্যাবিয়ান অ্যালেন, ওয়েন পার্নেল, রায়ান টেন ডেসকাট, মিচেল স্যান্টনার, ডেভিড মালান, অ্যাডাম জাম্পা, কায়েস আহমেদ, ড্যান ক্রিশ্চিয়ানরা।

ইসিবি’র সেন্ট্রাল কন্ট্রাক্ট তালিকা থেকে দ্য হান্ড্রেডের ঘরে ঢুকেছেন জো রুট, জোফরা আর্চার, বেন স্টোকস, জনি বোয়ারেস্ট, স্যাম কুরান, জস বাটলার, ররি বার্নস ও ক্রিস ওকস। সর্বোচ্চ ১ লক্ষ ২৫ হাজার পাউন্ডে ব্রিক্রি হয়েছেন জেসন রয়, ইয়ন মর্গ্যানরা।

বিদেশী ক্রিকেটারদের মধ্যে আফগানিস্তান থেকেই দ্য হান্ড্রেডে সুযোগ পেয়ে গেলেন চারজন। একজন নেপালের, একজন নেদারল্যান্ডসের।



আমার বার্তা/২১ অক্টোবর ২০১৯/জহির


আরো পড়ুন