শিরোনাম :

  • চুক্তি মানছে না মিয়ানমার : প্রধানমন্ত্রী পর্যটন বিকাশে মালদ্বীপের অভিজ্ঞতা কাজে লাগাতে হবে : রাষ্ট্রপতি বীরশ্রেষ্ঠ নূর মোহাম্মদের জন্মবার্ষিকী আজ ৯ দিনের তাপপ্রবাহে অ্যান্টার্কটিকার ২০ শতাংশ বরফ গলেছে!
মুশফিকের কথা ভেবে বসে থাকলে তো চলবে না : মাহমুদউল্লাহ
স্পোর্টস ডেস্ক :
২৫ জানুয়ারি, ২০২০ ১১:৪৫:০৩
প্রিন্টঅ-অ+


বাংলাদেশের পাকিস্তান সফরটা শুরুই হলো হতাশায়। আরও পরিষ্কার করে বললে-আফসোসে। লাহোরে সিরিজের প্রথম টি-টোয়েন্টিতে হারলেও টাইগাররা যে লড়াই করেছে শেষ ওভার পর্যন্ত।

প্রথমে ব্যাট করে ৫ উইকেটে মাত্র ১৪১ রান তুলতে পারে বাংলাদেশ। জবাবে পাকিস্তানও খুব স্বস্তিতে ছিল না। ১৪২ রান তাড়া করতে ইনিংসের শেষ ওভার পর্যন্ত খেলতে হয় তাদের, ৩ বল বাকি থাকতে পায় জয়।

ম্যাচ শেষে তাই বাংলাদেশের সমর্থকদের কিছুটা আফসোসই হচ্ছে। মনে হচ্ছে- আর কয়েকটা রান বেশি করতে পারলেই ফলটা অন্যরকম হতো। বোলাররা তো চেষ্টা করেছেন, ব্যাটসম্যানরা আরেকটু বুদ্ধিমত্তার পরিচয় দিলে পুঁজিটা আরও একটু বাড়তো।

১৫ ওভার শেষে বাংলাদেশের বোর্ডে ছিল ৩ উইকেটে ১০০ রান। কিন্তু শেষ ৫ ওভারে ৭ উইকেট হাতে রেখেও ৪১ রানের বেশি নিতে পারেনি টাইগাররা। স্বভাবতই মিডল অর্ডারে একজনের শূন্যতা বেশি অনুভূত হয়েছে, তিনি মুশফিকুর রহীম।

অনেকেই মনে করছেন, মুশফিক থাকলে এই পুঁজিটা হয়তো ১০-১৫ রান বেশি হতো। কারণ দায়িত্বশীল ব্যাটিংয়ের সঙ্গে দলের প্রয়োজনে হাত খুলে খেলতেও সিদ্ধহস্ত তারকা এই ক্রিকেটার।

ম্যাচ শেষে অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ রিয়াদকেও তাই শুনতে হলো সেই প্রশ্ন-এমন এক ম্যাচে মুশফিকের অনুপস্থিতি ভুগিয়েছে কি? দলে মুশফিকের অভাববোধটা অস্বীকার করলেন না মাহমুদউল্লাহ।

বাংলাদেশ অধিনায়ক বলেন, ‘আমরা মুশফিকুর রহীমের সার্ভিস সবসময়ই মিস করি। সে আমাদের দলের অন্যতম অভিজ্ঞ ক্রিকেটার। বাংলাদেশের জন্য তিন ফরমেটেই সে সেরা পারফরমার।’

তাই বলে মুশফিকের কথা ভেবে সব ছেড়ে বসে থাকতে হবে, এমন ভাবনারও পক্ষপাতী নন মাহমুদউল্লাহ। বাংলাদেশ দলপতি পরক্ষণেই যোগ করেন, ‘মুশফিকুর রহীম এখানে আমাদের সঙ্গে নেই। আমরা তো তার অনুপস্থিতির কথা ভেবে বসে থাকতে পারি না। আমার মনে হয়, আমরা কি অর্জন করতে পারি সেদিকেই ফোকাস রাখা উচিত। সুযোগ কাজে লাগিয়ে ভালো পারফর্ম করতে হবে।’

সিরিজের দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টি মাঠে গড়াবে আজ (শনিবার)। ম্যাচটি হবে প্রথম টি-টোয়েন্টির ভেন্যু লাহোরের গাদ্দাফি স্টেডিয়ামেই। এরপর একই ভেন্যুতে ২৭ জানুয়ারি সিরিজের তৃতীয় ও শেষ টি-টোয়েন্টি।



আমার বার্তা/২৫ জানুয়ারি ২০২০/জহির


আরো পড়ুন