শিরোনাম :

  • ঢাকায় বাড়তে পারে তাপমাত্রা করোনার ছোবলে এবার চলে গেলেন এসআই মোশাররফ সপ্তাহে তিন দিন ছুটির বিধান আসছে নিউজিল্যান্ডে পেরুতে একদিনেই আক্রান্ত প্রায় ৩ হাজার
করোনার ভ্যাকসিন আবিষ্কার না হলে খেলতে চান না ভারতের এই ক্রিকেটার
স্পোর্টস ডেস্ক :
০৭ মে, ২০২০ ১১:০৭:৪২
প্রিন্টঅ-অ+


২০১৬ সালে সেই বিখ্যাত বলিউড সিনেমা সুলতানের কথা মনে আছে? সালমান খান অভিনয় করেছিলেন একজন রেসালের ভুমিকায়। প্রতিটি রেসলিং জয়ের পর তিনি দুই হাত জোড় করে প্রতিপক্ষতে সম্মান জানাতেন। হিন্দু ধর্মে একে বলা হয় নমস্তে।

করোনাভাইরাসের পর ক্রিকেট শুরু হলে বোলাররা উইকেট পাওয়ার পর আর আগের মত একে অপরকে জড়িয়ে ধরে উদযাপন করা যাবে না। কিংবা হাই-ফাইভ পর্যন্ত দেয়া যাবে না। সুলতানের সালমান খানের মত ‘নমস্তে’ করেই উইকেট প্রাপ্তি কিংবা জয়ের উদযাপনটা করতে হবে।

ভারতের টেস্ট ক্রিকেটের সহ-অধিনায়ক আজিঙ্কা রাহানে এমনটাই মনে করছেন। সম্প্রতি অনলাইনে ক্রিকেট সংক্রান্ত এক সাংবাদ সম্মেলনে অংশ নেন টেস্টে বিরাট কোহলির ডেপুটি।

সেখানে পুনরায় ক্রিকেট চালুর আগে ক্রিকেটারদের অন্ততপক্ষে একমাসের একটি যথাযথ প্র্যাকটিস সেশনের দাবি জানান তিনি। রাহানের কথায়, ‘যে পরিস্থিতি দাঁড়িয়েছে তাতে কোনোরকম প্রতিযোগীতামূলক ক্রিকেটে অংশ নেওয়ার আগে আমাদের অন্ততপক্ষে তিন থেকে চার সপ্তাহের একটি প্র্যাকটিস সেশন প্রয়োজন।’

প্রায় দু’মাস হতে চলল খেলা থেকে বাইরে রয়েছেন রাহানেসহ ভারতীয় ক্রিকেটাররা। অন্য সব ক্রিকেটারের মতো লকডাউনে এই সময় ক্রিকেটকে খুব মিস করছেন আজিঙ্কা রাহানে। করোনা পরবর্তী সময় কেমন হবে ক্রিকেট। তা নিয়ে চলছে জোর জল্পনা। রাহানেও মনে করেন করোনা পরবর্তী সময় ক্রিকেটারদের লাইফস্টাইলে এক বড়সড় পরিবর্তন আসবে।

এ সময়ই রাহানে উল্লেখ করেন, করোনার ভ্যাকসিন আবিষ্কার না হলে ক্রিকেটে ফেরা উচিৎ নয়। তিনি বলেন, ‘নিঃসন্দেহে আমি আমার ব্যাটিং খুব মিস করছি এই সময়। কিন্তু সত্যি বলতে করোনার ভ্যাকসিন আবিষ্কার না হলে ক্রিকেট চালু করা উচিৎ নয়।’

করোনার জেরে ব্যাপক ক্ষতিগ্রস্থ ভারতে ক্রিকেট পুনরায় চালু করা নিয়ে এখনও কোনো নির্দেশিকা নেই বিসিসিআই’র পক্ষ থেকে। অদূর ভবিষ্যতে ভারতে ক্রিকেট চালু হওয়া সম্ভব নয় বলে গতমাসের শেষদিকে এক বিবৃতিতে জানিয়েছিল ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড। এ পরিস্থিতিতে রাহানের মতামত যথেষ্ট গুরুত্বপূর্ণ বলেই মনে করা হচ্ছে।

এ ছাড়া লকডাউনের এই সময়ে ফিটনেস ঠিক রাখতে তিনি যথাসাধ্য পরিশ্রম করছেন বলে জানিয়েছেন রাহানে। ‘ট্রেনারের নির্দেশ মেনে আমি আমার ফিটনেস ট্রেনিং বজায় রেখেছি। ফ্রি ওয়েটের পাশাপাশি যোগাভ্যাসেও নিয়মিত সময় ব্যয় করছি।’

খেলাধুলা শুরু হলে মাঠে ক্রিকেটারদের সেলিব্রেশন কেমন হবে সে বিসয়ে রাহানে বলেন, ‘আমার মনে হয় করোনা পরবর্তী সময় উইকেটের পর সেলিব্রেশনের ক্ষেত্রে পুরনো পন্থা অবলম্বন করবেন ফিল্ডাররা। তারা নিজেদের ফিল্ডিং পজিশনে দাঁড়িয়ে কেবল হাততালি দিয়েই সেলিব্রেশনে মাতবেন। হয়তো করমর্দনের জায়গা নেবে নমস্তে।’



আমার বার্তা/০৭ মে ২০২০/জহির


আরো পড়ুন