শিরোনাম :

  • ঢাকায় বাড়তে পারে তাপমাত্রা করোনার ছোবলে এবার চলে গেলেন এসআই মোশাররফ সপ্তাহে তিন দিন ছুটির বিধান আসছে নিউজিল্যান্ডে পেরুতে একদিনেই আক্রান্ত প্রায় ৩ হাজার
জুনিয়র কোহলির অপেক্ষায় বন্ধু ডি ভিলিয়ার্স
স্পোর্টস ডেস্ক :
১২ মে, ২০২০ ১১:১৯:৩২
প্রিন্টঅ-অ+


ফ্র্যাঞ্চাইজি ক্রিকেটে সর্বোচ্চ রানের জুটির রেকর্ডে লেখা রয়েছে এবি ডি ভিলিয়ার্স ও বিরাট কোহলির নাম। ২০১৬ সালের আইপিএলে গুজরাট লায়নসের বিপক্ষে দ্বিতীয় উইকেট জুটিতে দুজন মিলে যোগ করেছিলেন ২২৯ রান, সেঞ্চুরি করেছিলেন দুজনই।

ক্রিকেট মাঠে কোহলি ও ভিলিয়ার্সের অসাধারণ বন্ধুত্বের একটি উদাহরণ ছিল এই রেকর্ড জুটিটি। আইপিএলে রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালুরুর হয়ে দীর্ঘদিন ধরে খেলার সুবাদে সময়ের অন্যতম সেরা দুই ক্রিকেটারের মাঝে বন্ধুত্বটা মাঠের বাইরেও অনেক গভীর।

শুধু খেলা নিয়েই নয়, খেলার বাইরে ব্যক্তিগত জীবনেও একে অপরের ভালো বন্ধু কোহলি ও ডি ভিলিয়ার্স। যা এখন রূপ নিয়েছে পারিবারিক বন্ধনেও। কোহলির স্ত্রী আনুশকা শর্মার সঙ্গেও ভালো বন্ধুত্ব ডি ভিলিয়ার্সের।

খেলা না থাকলেও নিয়মিতই কোহলি-আনুশকার সঙ্গে অনেক বিষয়ে কথা বলেন সাবেক প্রোটিয়া অধিনায়ক। তিনি এবার অপেক্ষায় রয়েছেন বন্ধুর প্রথম সন্তানের। যে কথা তিনি আনুশকাকেও বলে রেখেছেন এরই মধ্যে।

সম্প্রতি এক সাক্ষাৎকারে কোহলির ব্যাপারে ডি ভিলিয়ার্স বলেছেন, ‘কোহলি একজন সাধারণ ক্রিকেটারের চেয়েও অনেক বেশি কিছু। অনেক মানুষ একটা নির্দিষ্ট সময়ের পরে বুঝতে পারে যে ক্রিকেটের বাইরেও একটা জীবন আছে। শুরুতে আমরা এটা বুঝতে পারি না। তবে কোহলি সবসময় বিষয়গুলো চিন্তা করে। সে সবসময় নতুন নতুন জিনিস চেষ্টা করে। জীবনের প্রতিটি ধাপ সম্পর্কে আলাদা আলাদা করে ভাবে কোহলি।’

এসময় আনুশকার সঙ্গে বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্কের কথা উল্লেখ করে তিনি আরও বলেন, ‘আমাদের আলোচনা অনেক গভীরে চলে যায়। এমনকি ওর (কোহলি) স্ত্রী আনুশকার সঙ্গেও অনেক গভীর জীবনবোধ নিয়ে কথা হয়। এটা সত্যিই অসাধারণ। আমরা পরিবার এবং বাচ্চাকাচ্চা নিয়ে কথা বলি। আমি এখন কোহলির প্রথম সন্তানের জন্য অপেক্ষা করছি। আমরা ক্রিকেট নিয়েও কথা বলি। তবে বেশিরভাগ সময় ক্রিকেটের বাইরের বিষয় নিয়েই আলোচনা হয়।’

কোহলিকে নিজের বেস্ট ফ্রেন্ড উল্লেখ করে ভিলিয়ার্স বলেছেন, ‘ক্রিকেটে অবশ্যই আমার সবচেয়ে ভাল বন্ধু কোহলি। শুধু আইপিএলের জন্য না, আমরা সারাবছরই কিছু না কিছু নিয়ে কথা বলি। যেটা আইপিএল বা ক্রিকেটীয় বন্ধুত্বের ঊর্ধ্বে। দক্ষিণ আফ্রিকার কথা বললে মরনে মরকেল, ফাফ ডু প্লেসি এবং ডেল স্টেইনের সঙ্গে ভালো বন্ধুত্ব। তবে শুধু ক্রিকেটের কথা বললে আপনি বেস্ট ফ্রেন্ড পাবেন না।’



আমার বার্তা/১২ মে ২০২০/জহির



 


আরো পড়ুন