শিরোনাম :

  • আজ সারাদেশেই ঝড়-বৃষ্টির সম্ভাবনা বঙ্গবন্ধুর ছবিযুক্ত স্মারক ডাক টিকিট অবমুক্ত করল জাতিসংঘ ট্রাম্পের মধ্যস্থতার প্রস্তাব ফিরিয়ে দিল ভারত-চীন ৬০ লাখ ছাড়াল করোনা আক্রান্তের সংখ্যা, সুস্থ ২৬ লাখ
অধঃপতনেও আফসোস নেই সরফরাজের
স্পোর্টস ডেস্ক :
২১ মে, ২০২০ ১৩:৩২:১০
প্রিন্টঅ-অ+


২০১৯ সালের ওয়ানডে বিশ্বকাপ থেকেই শুরু হয়েছে পাকিস্তানের সাবেক অধিনায়ক সরফরাজ আহমেদের শনির দশা। পুরো বিশ্বকাপে পারফরম করতে পারেননি প্রত্যাশামাফিক। মাঠে অদ্ভুত সব কাণ্ডে সমালোচিত হয়েছেন বারবার। ফলে হারিয়েছেন অধিনায়কত্ব। শঙ্কা জেগেছিল চিরতরে দল থেকে বাদ পড়ার।

আপাতত তা হয়নি। তবে ক্রিকেট বোর্ডের কেন্দ্রীয় চুক্তিতে অধঃপতন হয়েছে সরফরাজের। নতুন মৌসুমের জন্য ঘোষিত চুক্তিতে ‘এ’ থেকে ‘বি’ ক্যাটাগরিতে নেমে গেছেন সরফরাজ। তার বদলে এ ক্যাটাগরিতে জায়গা পেয়েছেন ২০ বছর বয়সী বাঁহাতি পেসার শাহিন শাহ আফ্রিদি।

নিজের এই অবনমনেও তেমন আফসোস নেই সাবেক অধিনায়ক সরফরাজের। তিনি বরং চুক্তিতে থাকতে পেরেই পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের (পিসিবি) কাছে কৃতজ্ঞ। চুক্তির ক্যাটাগরির দিকে খেয়াল না করে নিজের ভালো খেলার দিকেই বেশি মনোযোগ দিতে চান তিনি।

পিসিবির এক পডকাস্টে ৩২ বছর বয়সী এ উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান বলেছেন, ‘যেকোন কিছু ধরে রাখার জন্য আপনাকে কঠোর পরিশ্রম করতে হয়। ক্যাটাগরি এ, বি নাকি সি তা কোন বড় বিষয় নয়। আমার জন্য মূল কাজ হলো, যখনই সুযোগ পাই জাতীয় দলে নিজের জায়গা নিশ্চিত করা।’

নিজ দেশের বোর্ডের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করে সরফরাজ আরও বলেন, ‘ক্রিকেট ক্যারিয়ারে ভালো সময়, খারাপ সময় আসবেই। আমি বি ক্যাটাগরিতে থাকতে পেরে কৃতজ্ঞ। কারণ আমাদের সেরা ক্রিকেটাররাও সবাই এই ক্যাটাগরিতে।’

তার কথা ঠিক। শুধু মাত্র বাবর আজম, আজহার আলী ও শাহিন শাহ আফ্রিদি। মাত্র ২০ বছর বয়সে শাহিনের এ ক্যাটাগরিতে অন্তর্ভুক্তিতে অবাক হননি সরফরাজ, ‘শাহিন এ ক্যাটাগরিতে জায়গা পাওয়ায় আমি খুশি। ২০১৯ সালের বিশ্বকাপে সে দুর্দান্ত খেলেছে। এর বাইরে টেস্টেও তার পারফরম্যান্স চোখে পড়ার মতো।’



আমার বার্তা/২১ মে ২০২০/জহির

 


আরো পড়ুন