শিরোনাম :

  • কুষ্টিয়ায় প্রকাশ্যে গুলিকরে ২ জনকে হত্যা চীনের দেয়া উপহার “৬ লাখ টিকা” আসবে বিকেলে সূচকের উত্থন পতনে ৩০ মিনিটে ৬০০ কোটি টাকার লেনদেন ইসরায়েলি সেনার গু'লিতে প্রাণ গেল ফিলিস্তিনি নারীর।
গোবর আর কেঁচো থেকে লাক্ষ টাকা আয় করেন তসলিম মাস্টার
০৯ মে, ২০২১ ১৩:৩৫:৫৩
প্রিন্টঅ-অ+

গোবর আর কেঁচো থেকে ভার্মি কম্পোস্ট ( কেঁচো সার) খামার করে লাক্ষ টাকা আয় করেন যশোরের কেশবপুর উপজেলার তসলিম মাস্টার। অর্থনৈতিক ভাবে স্বাবলম্বী হয়েছেন তিনি।


জানা গেছে, ভার্মি কম্পোস্ট সারের  প্রকৃতির কেঁচো আর বাসি গোবর  প্রধান উপকরন। তসলিম মাস্টার বাড়ির পাশে একটা খামার তৈরি করেন তার মধ্যে বিভিন্ন শেড তৈরি ১মাসের বাসি গোবর তরিতরকারির খোসা বিভিন্ন ময়লা আবর্জানা ভিতর কেঁচো ছেড়ে দিয়ে মুখ ডেকে রেখে তৈরি হয় উন্নত মানের ভার্মি কম্পোস্ট সার।


সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায় উপজেলার চিংড়া বাজারের পশ্চিম পার্শ্বে নিজের বাড়িতে গড়ে তুলেছেন ভার্মি কম্পোস্ট ( কেঁচো) সারের খামার ।


তসলিম মাস্টার বলেন, ভার্মি কম্পোস্ট কেঁচো সার একটি রাসায়নিক জৈব সার। এটি জমিতে প্রয়োগ করলে মাটির উর্বরতা ও সুসাস্থ ভালো থাকে। এই সার তিনি নিজের জমিতে প্রয়োগ করার জন্য উদ্যোগ নিয়েছিলেন তিনি নিজের জমিতে প্রয়োগ করার পর অধিক লাভবান হয়েছেন এবং পাশের কৃষক রাও চমকে গেছেন ভার্মি কম্পোস্ট সারের উপকারিতা দেখে তারপর থেকে তসলিম মাষ্টার ভার্মি কম্পোস্ট সারের চাহিদা বাড়তে থাকে।


ভার্মি কম্পোস্ট কেঁচো  সার বর্তমান বাজার মুল্য ১৫ টাকা দরে মাস্টার বলেন আমি বছরে ২ লাক্ষ ৪০ হাজার আয় করি।


উপজেলা কৃষি অফিসার ভার্মি কম্পোস্ট সার খামার পরিদর্শন করেন এবং কৃষকদের জমিতে প্রয়োগ করতে পরামস্য দেন ।


কৃষক আসাদুল সানা বলেন আমার পটলের খেতে ভার্মি কম্পোস্ট সার দেওয়ার পর অধিক ফল লাভ করি এটা দিলে মাটির উর্বর শক্তি বাড়িয়ে তোলে তা ফলন ভালো হয়


অন্য কৃষক রা বলেন আমাদের ধান খেতে ভার্মি কম্পোস্ট সার প্রয়োগ করার পর ফলন দিগুন হয় । এই ভাবে তসলিম মাস্টারের সারের চাহিদা বাড়তে থাকে।  বর্তমান তার খামারে ৪-৫ জন লোকের কর্মসংস্থান সৃষ্টি করে দিয়েছেন। তাদের বেতন দেন ২৫০-৩০০ টাকা করে এটার মাধ্যমে তসলিম মাস্টার ও কর্মসংস্থান লোকেরা অথনৈতিক দিক দিয়ে লাভবান হন।


আমার বার্তা/৯মে ২০২১/গাজী আক্তার

আরো পড়ুন