শিরোনাম :

  • ২৪ ঘণ্টায় আরও ৫৬ মৃত্যু শনাক্ত আরও এক হাজার ৩৮৬ জনকরোনায় আক্রান্ত তসলিমা নাসরিনআজকের মেঘমালা দেশের ৭০ ভাগ অঞ্চলকে ছুঁয়েছেসিলেটের নতুন বিভাগীয় কমিশনার খলিলুর রহমান
কটাক্ষের শিকার কঙ্গনা
২১ এপ্রিল, ২০২১ ১১:২২:২৩
প্রিন্টঅ-অ+

টুইটারে মঙ্গলবার নবরাত্রির অষ্টমীর প্রসাদের ছবি পোস্ট করতেই কটাক্ষের তির ধেয়ে এল কঙ্গনারি দিকে। নানা পদের সঙ্গে প্রসাদের থালায় রাখা পেঁয়াজ চোখ এড়িয়ে যায়নি নেটাগরিকদের। কঙ্গনা যদিও পোস্টে জানিয়েছিলেন, অষ্টমীর উপোস করছেন তিনি। এই খাবার তার পরিবারের জন্য। তবে তাতেও ছাড় পাননি অভিনেত্রী। নেটাগরিকদের একাংশ হিন্দুত্বের পাঠ পড়ালেন অভিনেত্রীকে। একজন লিখলেন, প্রসাদের থালায় পেঁয়াজ থাকা উচিত নয়, কেউ আবার প্রশ্ন তুললেন, প্রসাদে পেঁয়াজ? আপনি নিশ্চিত যে আপনার বাড়িতে নিয়ম মানা হচ্ছে? নিজের ধর্মের রীতিনীতিগুলি কঙ্গনা জানেন না বলেও দাবি করেন অনেকে। এই পোস্টের কিছুক্ষণের মধ্যেই টুইটারে ট্রেন্ড করতে থাকে ।


কঙ্গনার পোস্টের মন্তব্যস্থান ভরে যায় নানা রকমের কটূক্তিতে।


বেগতিক দেখে এর পর আরও একটি পোস্ট করেন কঙ্গনা। সাফাই দিতে গিয়েও প্রথম ধর্ম নিয়ে খানিক খোঁচা দিয়ে মন্তব্য করেন তিনি। তার মতে, হিন্দু ধর্ম অন্যান্য ধর্মের মতো রক্ষণশীল নয়। সেটিই তার সৌন্দর্য। তাই তার পরিবার যদি প্রসাদের সঙ্গে পেঁয়াজ খেতে চায়, তা হলে সেটা নিয়ে বিদ্রূপ করা অর্থহীন। এর পরে অভিনেত্রী জানান, বাইরে থেকে আসা তার ভাইয়ের জন্য থালাটি সাজিয়েছিলেন তিনি। নিজে সে খাবার খাননি। এরআগে  সোমবার করোনা অতিমারি নিয়ে বিতর্কিত মন্তব্য করে কটাক্ষের শিকার হয়েছিলেন কঙ্গনা। অভিনেত্রী বলেছিলেন, করোনা ভাইরাসে মানুষ মারা গেলেও, বাকি সব কিছু সুস্থ হয়ে উঠছে। নেটাগরিকদের একাংশ আপত্তি জানিয়েছেন কঙ্গনার এই মন্তব্যে। তাদের মতে, অভিনেত্রীর কাছে সব রকম সুযোগ সুবিধা আছে বলেই তিনি এ ধরনের কথা বলতে পারছেন। সেই বিতর্কের রেশ মিলিয়ে যাওয়ার আগেই শুরু হল 'পেঁয়াজ বিতর্ক'।

আরো পড়ুন