শিরোনাম :

  • ২৪ ঘণ্টায় আরও ৫৬ মৃত্যু শনাক্ত আরও এক হাজার ৩৮৬ জনকরোনায় আক্রান্ত তসলিমা নাসরিনআজকের মেঘমালা দেশের ৭০ ভাগ অঞ্চলকে ছুঁয়েছেসিলেটের নতুন বিভাগীয় কমিশনার খলিলুর রহমান
রমজানে মালটা খাওয়ার অসাধারণ স্বাস্থ্য উপকারিতা
২০ এপ্রিল, ২০২১ ১৩:৪৮:৫৩
প্রিন্টঅ-অ+

সাইট্রেস জাতীয় ফল মালটা। যা সারা বছরই বাজারে পাওয়া যায়। দামেও বেশ সস্তা। মালটা খেতেও দারুণ সুস্বাদু। রসালো এই ফলটি দিয়ে জুস তৈরি করেও খাওয়া যা। শুধু তাই নয় এর রয়েছে অনেক পুষ্টিগুণও। যা আমাদের দেহের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতাকে শক্তিশালী করতে সহায়তা করে। এছাড়া রমজানে সারাদিন রোজা রেখে ইফতারে মালটা খেলে তা শরীরকে সতেজ ও কর্মক্ষম করে তোলে।  


মালটার পুষ্টিগুণ


মালটাতে আছে ভিটামিন বি, ভিটামিন সি, ক্যালসিয়াম, পটাসিয়াম, ফসফরাস, এবং চর্বিমুক্ত ক্যালরি। এছাড়া মালটায় প্রচুর পরিমাণে ফ্লামনয়েট রয়েছে। আছে শরীরের জন্য প্রয়োজনী নিউট্রিসাস। শুধু তাই নয়, প্রচুর পরিমাণে মিনারেলসও রয়েছে এতে।


চলুন এবার জেনে নেই মালটার অসাধারণ কিছু স্বাস্থ্য উপকারিতা সম্পর্কে বিস্তারিত-


>> মালটাতে আছে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন সি, যা রোগ প্রতিরোধে সহায়তা করে।


>> মালটা ইনফেকশন প্রতিরোধে সহায়তা করে। এটি প্রদাহ জনিত রোগ সারিয়ে তোলে।


>> মালটাতে ম্যাগনেসিয়াম থাকার কারণে ব্লাড প্রেসার নিয়ন্ত্রণে সাহায্য করে। ডায়াবেটিস প্রতিরোধে সহায়তা করে। এন্টি অক্সিডেন্ট থাকার কারণে ওজন কমাতেও সহায়তা করে।


>> প্রতিদিন একটি মালটা খাওয়ার অভ্যাস আপনার দৃষ্টিশক্তিকে ভালো রাখে। কারণ মালটায় রয়েছে ভিটামিন এ, সি ও পটাসিয়াম। এ ভিটামিনগুলো আপনার দৃষ্টিশক্তির জন্য বেশ উপকারী।


>> এটি ভিটামিন সি সমৃদ্ধ ফল যা অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট সমূহের সমৃদ্ধ উৎস। এটি ত্বকের সজীবতা বজায় রাখে এবং ত্বকের বলি রেখা প্রতিরোধ করে লাবণ্য ধরে রাখে।


>> এক গ্লাস মাল্টার জুসকে ভিটামিন সি এর সবচেয়ে কার্যকর উৎস বলে মনে করা হয়। এটাকে ভিটামিন সি ট্যাবলেট হিসেবেও গ্রহণ করা যায়।


>> মালটার ভিটামিন সি উপাদান আমাদের শরীরে ক্যান্সার প্রতিরোধ করতে সাহায্য করে। এটি আমাদের শরীরের কোলন ক্যান্সার ও ব্রেস্ট ক্যান্সারের অন্যতম সেল প্রতিরোধক হিসেবে কাজ করে।


>> উচ্চ মাত্রায় ওষুধ সেবনের সময় মালটার লো-কলেস্টরেল শরীরে ওষুধের পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া রোধে সহায়তা করে।  


>> এতে উপস্থিত পটাশিয়াম ইকেট্রোলাইট ব্যালেন্স বজায় রাখে এবং কার্ডিওভাস্কুলার সিস্টেম ভালো রাখতে সহায়তা করে।


>> মালটা পাকস্থলীকে সুস্থ রাখে। নিয়মিত মালটা খাওয়ার অভ্যাস পাকস্থলীর আলসার ও কোষ্ঠকাঠিন্য থেকে সুরক্ষা দেবে। পাকস্থলীকে রাখবে সবল।


>> গবেষণায় জানা গেছে যে, মালটাতে উপস্থিত লিমিণয়েড, মুখ, ত্বক, ফুসফুস, পাকস্থলী কোমল ও স্তন ক্যান্সার প্রতিরোধে সহায়তা করে থাকে।


>> মালটাতে উপস্থিত বিটা ক্যারোটিন সেল ড্যামেজ প্রতিরোধে সহায়তা করে। এতে উপস্থিত ক্যালসিয়াম দাঁত ও হাঁড়ের গঠনে সাহায্য করে।

আরো পড়ুন