শিরোনাম :

  • ঢাকায় বাড়তে পারে তাপমাত্রা করোনার ছোবলে এবার চলে গেলেন এসআই মোশাররফ সপ্তাহে তিন দিন ছুটির বিধান আসছে নিউজিল্যান্ডে পেরুতে একদিনেই আক্রান্ত প্রায় ৩ হাজার
আইসিইউতে ওসমানী মেডিকেলের সাবেক ভারপ্রাপ্ত পরিচালকের মৃত্যু
সিলেট প্রতিনিধি :
১২ মে, ২০২০ ১২:১২:২৫
প্রিন্টঅ-অ+


করোনাভাইরাসের উপসর্গ নিয়ে প্রখ্যাত চিকিৎসক ও সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের সাবেক ভারপ্রাপ্ত পরিচালক ডা. মীর মাহবুবুল আলমের (৭২) মারা গেছেন। সোমবার (১১ মে) দিবাগত রাত ৩টা ২৫ মিনিটে ওসমানী হাসপাতালের নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে (আইসিইউ) তার মৃত্যু হয়।

ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের অ্যানেসথেশিয়া বিভাগের প্রধান ডা. মাইনুল ইসলাম ডালিম বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

ডা. মীর মাহবুবুল আলম ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের সার্জারি বিভাগের প্রধান, হাসপাতালের সাবেক ভারপ্রাপ্ত পরিচালক এবং শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের মেডিকেল সাইন্সের ডিন ছিলেন।

কাশি ও শ্বাসকষ্টসহ নানা অসুখ নিয়ে গত বুধবার (৬ মে) প্রথমে নগরের একটি বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি হন ডা. মীর মাহবুবুল আলম। এরপর সেখান থেকে তাকে ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। ওইদিন রাতেই শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে তাকে হাসপাতালের নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে (আইসিইউ) নেয়া হয়। ডা. মীর মাহবুব দীর্ঘদিন ধরেই ডায়াবেটিস ও লিভার সিরোসিসে ভুগছিলেন।

ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের উপ-পরিচালক ডা. হিমাংশু লাল রায় জানান, করোনার কিছু উপসর্গ থাকলেও ডা. মীর মাহবুবুল আলম করোনা আক্রান্ত ছিলেন না। চার-চারবার তার নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। প্রতিবারই ফলাফল নেগেটিভ এসেছে। ফলে তিনি করোনাভাইরাসে নয়, ডায়াবেটিস ও লিভার সিরোসিসে মারা গেছেন।

এদিকে ডা. মীর মাহবুবুল আলমের মৃত্যুতে সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসক ও কর্মকর্তা-কর্মচারীদের মাঝে শোকের ছায়া নেমে এসেছে। এ হাসপাতালেই শতাধিক চিকিৎসক এবং অধ্যাপক রয়েছেন সরাসরি তার ছাত্র। তিনি একজন জনপ্রিয় চিকিৎসক ছিলেন। মৃত্যুর খবরে ভোরে ডা. মীর মাহবুবুল আলমের মরদেহ এক নজর দেখার জন্য ভিড় করেন তার সাবেক ছাত্রছাত্রীসহ সহকর্মীবৃন্দ। এ সময় অনেকে কান্নায় ভেঙে পড়েন।



আমার বার্তা/১২ মে ২০২০/জহির

 


আরো পড়ুন