শিরোনাম :

  • জাতিসংঘের মাদকদ্রব্য বিষয়ক কমিশনের সদস্য হলো বাংলাদেশখালেদা জিয়ার সঙ্গে বাবুনগরীর কোনোদিন দেখা হয়নি : হেফাজত চট্টগ্রামে একদিনে আরও ৫ জনের মৃত্যু, শনাক্ত ২৮৭মধ্যরাতে হেফাজতের সহকারী মহাসচিব আতাউল্লাহ গ্রেফতারহেফাজত নেতাদের মুক্তি দাবি মান্নার
অর্থদণ্ডেও থেমে নেই মাটি খেকোরা!
অভিযানের পরও চলছে একাধিক ভেকু দিয়ে মাটি উত্তোলন
রাব্বি ইসলাম, মির্জাপুর (টাঙ্গাইল) প্রতিনিধি
০২ মার্চ, ২০২১ ১৮:৪০:৪৭
প্রিন্টঅ-অ+


দিনের বেলায় অভিযান অব্যাহত থাকলেও রাতের আঁধারে অভিযান পরিচালনা না করার সুযোগকে কাজে লাগিয়ে হরহামেশা মাটি উত্তোলন করছে একটি প্রভাবশালী মহল। তবে, জীবনের ঝুঁকি নিয়ে রাতে অভিযান পরিচালনা করা সম্ভব হয়ে উঠছে না বলে দাবি প্রশাসনের কর্মকর্তাদের।

প্রসঙ্গত, গত ১১ ফেব্রুয়ারি শুক্রবার বহুল প্রচারিত জাতীয় দৈনিক আমার বার্তা প্রতিকায় মির্জাপুরে রাতের আঁধারে মাটি কাটার মহাযজ্ঞ” এই শিরোনামে একটি সংবাদ প্রকাশ হয়। নিয়মিত অভিযানের অংশ হিসেবে সংবাদ প্রকাশের পর একাধিক মাটি ব্যবসায়ীকে মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করে অর্থদণ্ড দেয় উপজেলা প্রশাসনের কর্মকর্তা। কিন্তু বলা যায় হিতে বিপরীত! অভিযানে অর্থদণ্ডের পর থেকেই একাধিক ভেকু মেশিন বসিয়ে প্রশাসনের হাতের নাগালে পৌরসভার বংশাই নদী এলাকায় রাতের আঁধারে অবাধে মাটি কেটে অন্যত্র বিক্রি করছে সরকার দলীয় আ.লীগ ও বিএনপির প্রভাবশালী নেতা এবং ওই এলাকার একাধিক প্রভাবশালীরা।

“দৃষ্টান্ত শাস্তির দাবি এলাকাবাসীর”

একাধিক এলাকাবাসীর অভিযোগ, প্রশাসনকে টাকা খায়িয়ে তারা এই অবৈধ কাজ করে বেড়াচ্ছেন। সঠিক শাস্তি প্রদান করা হলে তারা এই ধরণের কাজ থেকে বিরত থাকা সম্ভব।  সংশ্লিষ্ট প্রশাসনের কাছে স্থানীয়দের দাবি জরিমানা নয় তাদের জেল দিয়ে দৃষ্টান্ত স্থাপন করলেই এই অবৈধ কাজ বন্ধ করা সম্ভব।

সরেজমিনে উপজেলা বিভিন্ন এলাকায় রাতের আঁধারে চলছে মাটি উত্তোলনের উৎসব। প্রশাসনের অভিযান যেরকম অব্যাহত আছে একইভাবে মাটি উত্তোলনও চলছে অবাধেই। তবে বিগত বছরের তুলনায় এ বছর অভিযান কম পরিচালনা করা হচ্ছে বলে দাবি সুশীল সমাজের নাগরিকদের।

এ ব্যাপারে সহকারি কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. জুবায়ের হোসেনের সাঙ্গে কথা হলে তিনি জানান, দিনে অভিযান পরিচালনা করা সম্ভব হলেও রাতে জীবনের ঝুঁকি থাকায় সেটি করা সম্ভব হয়ে উঠছে না। তবুও আমরা এই মাটি কাটা বন্ধের ব্যাপারে তৎপর। এটি বন্ধে সকল জনগণের সহযোগিতা কামনা করেন এই কর্মকর্তা।



২মার্চ ২০২০/আমার বার্তা/সাদ্দাম


আরো পড়ুন