শিরোনাম :

  • জবানবন্দিতে বুলুসহ ১৫ বিএনপি নেতার নাম পেয়েছে পুলিশ উখিয়ায় রোহিঙ্গা ক্যাম্পে সন্ত্রাসীদের গুলিতে নিহত ২দুই ট্রাকের মুখোমুখি সংঘর্ষ, নিহত ২ আইসিসির সেরা হওয়ার দৌড়ে বাংলাদেশের নাসুম
ফলোআপ : আমার বার্তায় সংবাদ প্রকাশের পর
তুরাগে বৈধ গ্যাস সংযোগধারীদের বিক্ষোভ, আন্দোলনের হুমকী
অবৈধ গ্যাস সংযোগ বিচ্ছিন্ন দুর্ভোগে বৈধ সংযোগধারীরা বিপাকে ২০ হাজার পরিবার
মিজানুর রহমান, উত্তরা
২৮ জুলাই, ২০২২ ১৮:০২:৩৪
প্রিন্টঅ-অ+

রাজধানীর তুরাগের বিভিন্ন এলাকায় তিতাস গ্যাসের অবৈধ সংযোগের পরিবর্তে বৈধ গ্যাস সংযোগ বিচ্ছিন্ন এবং গ্যাসের মুল সংযোগ বন্ধ করে দেয়ার প্রতিবাদে বিক্ষোভ ও প্রতিবাদ সমাবেশ করেছেন স্থানীয় বাসিন্দা ও ভুক্তভোগীরা। বন্ধ সংযোগ চালুর করার বিষয়ে কর্তৃপক্ষ এখনো কোন ব্যবস্থা না নেওয়ায় এলাকাবাসীর উদ্যোগে আজ বৃহস্পতিবার সকালে নয়ানগর ঈদগাঁহ প্রাঙ্গণে বিক্ষোভ হয়।


গত ২৩জুলাই তারিখে দৈনিক আমার বার্তা প্রত্রিকায় এই বিষয়ে একটি খবর (তুরাগে গ্যাসের অবৈধ সংযোগ বিচ্ছিন্ন : দুর্ভোগে বৈধ সংযোগধারীরা)প্রকাশিত হয়। 


প্রতিবাদ সমাবেশে বক্তব্য রাখেন, ডিএনসিসি ৫৩ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর বীরমুক্তিযোদ্বা আলহাজ্ব মো, নাসির উদ্দিন, তুরাগ থানা আওয়ামীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আলহাজ্ব মো, নাজিম উদ্দিন,  সাবেক ইউপি মেম্বার ও আওয়ালীলীগ নেতা আলহাজ্ব মো, কফিল উদ্দিন,  তুরাগ থানা আওয়ামীগের যুগ্ন সম্পাদক মো, জিয়াউল  হক  জামাল,  আওয়ালীলীগ নেতা মো, মুনসুর আলী, আলহাজ্ব মো, আবুল হাসিম, আলহাজ মো, রমজান আলী, মো, আব্দুল জব্বার, মনির হোসেন জলিল, মো, ইসহাক মিয়া,  ভুক্তভোগী পরিবার, গ্রাহকসহ প্রায় দুই শতাধিক মানুষ অংশ নেয়। 


তুরাগ থানা আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবকলীগের সাবেক সভাপতি আলহাজ্ব মো, সাদেকুর রহমান অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন।


জানা গেছে, গত মঙ্গলবার দিয়াবাড়ি, তারার টেক, নলভোগ, ফুলবাড়িয়া, নয়ানগর, শুক্রভান্গা, কালিয়ারটেক, বামনারটেক এলাকায় অবৈধ গ্যাসের আদলে বৈধ গ্যাস সংযোগ এবং গ্যাসের মূল সংযোগ বিচ্ছিন্ন করে দেয় তিতাস গ্যাস কর্তৃপক্ষ। এতে করে ওইসব এলাকাসহ আশেপাশের হাজারো বৈধ গ্রাহক গ্যাস পাচ্ছেন না। সে কারনে প্রায় ২০ হাজার পরিবার নানাবিধ সমস্যায় পড়েছেন বলে জানিয়েছেন বৈধ গ্রাহকরা। গত ৮ দিন  ধরে বাড়িতে রান্না করতে পারছেন না এবং শুকনো খাবার খেয়ে দিন পার করছেন তারা।


আজ বৃহস্পতিবার দুপুরে সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, টিনসেড বাড়ি, সেমিপাকা বাড়ি, বহুতল বাড়িতেও গ্যাস নেই। এমনকী হোটেলেও গ্যাস নেই, আর এতে চরম বিপাকে পড়েছেন স্থানীয়রা। নলভোগ, ডিয়াবাড়ি, নয়ানগর এলাকার একাধিক ভাড়াটিয়ারা বলছেন, আমরা বছরের পর বছর এখানে ভাড়া আছি, কখনো জানতেই পারিনি আমরা মাসিক বিল পরিশোধ করে যে গ্যাস ব্যবহার করছি তা বৈধ না অবৈধ।


নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একাধিক বাড়িওয়ালা অভিযোগ করে বলেন, ‘আমাদের বৈধ গ্যাস সংযোগও বিচ্ছিন্ন করে দিয়েছে। বিভিন্ন জায়গায় দৌড়-ঝাঁপ করেও কোন সমাধান পাচ্ছি না। এছাড়া একদিকে এলাকাভিত্তিক লোডশেডিং, তার ওপরে গ্যাস সংকট। আমাদের ছোট ছোট ছেলে-মেয়ে ও বয়োবৃদ্ধ মানুষগুলো নিয়ে কোথায় যাবো, কী করবো।’


ডিয়াবাড়ি ও তারারটেক এলাকার বাড়ির মালিক আওয়ামীগ নেতা মো, মুনসুর আলী, আব্দুল জব্বার, ও নাসির জানান, তিতাসগ্যাস কর্তৃপক্ষ বৈধ ও অবৈধ যাচাই-বাছাই করে সংযোগ বিচ্ছিন্ন করলে মানুষের ভোগান্তি পোহাতে হতো না। আমরা পরিবার পরিজন নিয়ে অতীব কষ্টে মানবেতন জীবন যাপন করছি। বাসায় রান্নাবান্না করতে পারছিনা বিধায়: হোটেল থেকে খাবার কিনে খাচ্ছি।  অনেক সময় শুকনা খাবার খেয়ে জীবন কোন রকমে কাটাচ্ছি। বিষয়টির সমাধানে তারা স্থানীয় এমপি আলহাজ্ব মোহাম্মদ হাবিব হাসান ও ডিএনসিসি ৫৩ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর বীরমুক্তিযোদ্বা আলহাজ্ব মো, নাসির উদ্দিনের হস্তক্ষেপ কামনা করছি। তাদের নির্দেশ মতে আমরা কাজ করে যাবো। এছাড়া আমরা  তিতাস গ্যাস কর্তৃপক্ষের সঙ্গে কথা বলছি, তারা বলছে-আমরা বিষয়টি দেখছি।


এব্যাপারে তুরাগের নলভোগ এলাকায় বসবাসকারী নিউজ২৪-এর সাংবাদিক আরিফুর রহমান জানান, গত চার দিন ধরে বাসায় কোন চুলা জ্বলছে না। শুকনো খাবার খেয়ে দিন কাটাচ্ছি। আমার মত অনেক পরিবার গ্যাস লাইন বিচ্ছিন্ন এবং বন্ধের কারনে আমার পরিবারসহ হাজার হাজার পরিবার অনাহারে দিন কাটাচ্ছেন। 


এদিকে, তুরাগ থানা আওয়ামীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আলহাজ মো, নাজিম উদ্দিন জানান, আমরা এই গ্যাসের দুর্ভোগ থেকে অচিরেই মুক্তি চাই। ঢাকা-১৮ আসনের এমপি আলহাজ্ব মো, হাবিব হাসান ও ৫৩ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর বীরমুক্তিযোদ্বা আলহাজ্ব মো, নাসির উদ্দিন তিতাসগ্যাস কর্তৃপক্ষের সাথে দেখা করে সমস্যা সমাধানের চেষ্টা করছেন। খুব শিগগিরই এই গ্যাস সমস্যা র সমাধান না করা হলে দরকার হলে কঠোর আন্দোলন করা হবে। এই জন্য  ভুক্তভোগী এলাকাবাসিরা প্রস্তত রয়েছে।


স্থানীয় ওয়ার্ড কাউন্সিলর বীরমুক্তিযোদ্বা মোহাম্মদ নাসির উদ্দিন বলেন, তিতাসগ্যাস কর্তৃপক্ষ অবৈধ গ্যাস লাইন বিচিছন্ন করার পাশাপাশি বৈধ গ্যাস লাইনও কেটে দিয়েছে। গ্যাসের মূল লাইনের স্যুইচ বন্ধ করে দিয়েছে। এই সমস্যা কিভাবে নিরসন করা যায় সেই লক্ষ্যে আমরা নানামূখি উদ্যোগ গ্রহন করেছি। বৈধ গ্যাসের গ্রাহকদের কাগজপএ আমরা সংগ্রহ করছি। এবিষয়টি স্থানীয় এমপি  আলহাজ্ব মোহাম্মদ হাবিব হাসানকে অবগত করা হয়েছে। তার মাধ্যমে তিতাস গ্যাসের কর্তৃপক্ষকে পৌঁছিয়ে দিবো ৷


এ বিষয়ে তিতাস গ্যাসের ডেপুটি জেনারেল (ডিজিএম) ম্যানেজার এনামূল হকের কাছে জানতে চাইলে তিনি ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, ‘আমরা সংযোগ বিচ্ছিন্ন করেছি। গ্যাস সংযোগকারীরা আমাদের কাছে নতুন করে দরখাস্ত দিলে আমরা যাচাই-বাছাই করে যেসব সংযোগগুলি বৈধ সেগুলো নিয়ে আমরা প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করবো। তবে, ওই এলাকার অধিকাংশ গ্যাস সংযোগ অবৈধ।


অবৈধ সংযোগ বিচ্ছিন্ন করতে বৈধ সংযোগও বিচ্ছিন্ন করা হচ্ছে। এতে বৈধ গ্যাস ব্যবহারকারীরা সমস্যায় পড়ছেন। এমন  প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, এখানে কোনটা বৈধ এবং কোনটা অবৈধ আইডেন্টিফাই করা যাচ্ছে না। এজন্য গ্যাসের মূল সংযোগ কেটে দেওয়া হয়েছে। গ্রাহকরা নতুন করে দরখাস্ত দিলে যাচাই-বাছাই করে বৈধ সংযোগ চালু করা হবে। আপনারা এই বিষয়টি তিতাস গ্যাসের উধর্বতন কর্তৃপক্ষকে জানানোর জন্য অনুরোধ করেন তিনি।

আরো পড়ুন