শিরোনাম :

  • নয়াপল্টনে বিএনপির নেতাকর্মীদের সঙ্গে পুলিশের সংঘর্ষ জবানবন্দিতে বুলুসহ ১৫ বিএনপি নেতার নাম পেয়েছে পুলিশ সেনা অভ্যুত্থানবিরোধী বিক্ষোভে উত্তাল সুদান, সংঘর্ষে নিহত ৭দুই ট্রাকের মুখোমুখি সংঘর্ষ, নিহত ২
২২৬ কোটি টাকায় ৩০ হাজার মে. টন ইউরিয়া সংগ্রহের উদ্যোগ
১১ মে, ২০২২ ১১:৩৬:২৭
প্রিন্টঅ-অ+

দেশের কৃষিখাতের সারের চাহিদা মেটাতে কর্ণফুলী ফার্টিলাইজার কোম্পানি লিমিটেড (কাফকো) থেকে ১৭তম লটে ৩০ হাজার মেট্রিক টন ব্যাগড গ্র্যানুলার ইউরিয়া সার সংগ্রহের উদ্যোগ নিয়েছে শিল্প মন্ত্রণালয়। এজন্য মোট ব্যয় হবে ২২৬,৭৯,৪৩,৭৫০ টাকা।


শিল্প মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা গেছে, বাংলাদেশ কেমিক্যাল ইন্ডাষ্ট্রিজ করপোরেশন (বিসিআইসি) থেকে ক্রয় প্রস্তাবটি গত ২০ এপ্রিল শিল্প মন্ত্রণালয়ে পাঠানো হয়। 


কৃষি মন্ত্রণালয় ২০২১-২০২২ অর্থবছরের জন্য ইউরিয়া সারের চাহিদা ২৬ লাখ মেট্রিক টন এবং নিরাপত্তা মজুদ কমপক্ষে ৭ লাখ মেট্রিক টনসহ মোট ৩৩ লাখ মেট্রিক টন নির্ধারণ করে। সে চাহিদার পরিপ্রেক্ষিতে বিসিআইসি কর্তৃক প্রণীত বার্ষিক সংগ্রহ পরিকল্পনা ২০২১ সালের ২০ এপ্রিল শিল্প মন্ত্রণালয় অনুমোদন দেয়। পরবর্তীতে ২০২১ সালের জুলাই মাসের প্রকৃত উৎপাদন, আমদানি এবং বিক্রয় পর্যালোচনা করে বিসিআইসি বার্ষিক সংগ্রহ পরিকল্পনা সংশোধন করে। সংশোধিত পরিকল্পনায় অপ্রত্যাশিত ঝুঁকি পরিহারের লক্ষ্যে আরও ১লাখ ৪০ হাজার মেট্রিক টনসহ সারের মোট সংস্থান রাখা হয়েছে ৩৪ লাখ ৪০ হাজার মেট্রিক টন, যা ২০২১ সালের ২৭ সেপ্টেম্বর তারিখে শিল্প মন্ত্রণালয় অনুমোদন দিয়েছে। 


২০২১-২০২২ অর্থবছর ১৬ লাখ ৭০ হাজার মেট্রিক টন সার আমদানির পরিকল্পনা রয়েছে। এজন্য মোট ৬ হাজার ৪৯৫ কোটি ৭৮ লাখ ৬৭ হাজার টাকা ব্যয় ধরা হয়েছে।


উল্লেখিত সংগ্রহ পরিকল্পনায় কাফকো, বাংলাদেশ থেকে ইউরিয়া সার কেনার পরিমাণ নির্ধারণ করা হয়েছে ৬ লাখ ৫০ হাজার মেট্রিক টন। কৃষি মন্ত্রণালয়ের মাসভিত্তিক চাহিদা, বিসিআইসি’র গুদামগুলোর ধারণ ক্ষমতার সীমাবদ্ধতা এবং কাফকো’র মাসভিত্তিক উৎপাদন সক্ষমতা বিবেচনায় ৬ লাখ ৫০ হাজার মেট্রিক টন ইউরিয়া সার ৩০ হাজার মেট্রিক টনের ২২ টি লটে ২০২১ সালের জুলাই থেকে ২০২২ সালের জুন সময়ে কেনা হবে। 


কর্ণফুলী ফার্টিলাইজার কোম্পানি লিমিটেড বাংলাদেশ সরকারের একটি যৌথ মালিকানাধীন প্রতিষ্ঠান। এই প্রতিষ্ঠানটি থেকে দীর্ঘ মেয়াদি চুক্তির আওতায় ইউরিয়া সার কেনা হচ্ছে। কাফকোর সঙ্গে সম্পাদিত দীর্ঘ মেয়াদি চুক্তি এবং সংশোধনী চুক্তিতে দাম নির্ধারণী ফমূর্লা উল্লেখ রয়েছে।


সূত্র জানায়, বিসিআইসি কর্তৃক কাফকো থেকে ২০২১-২০২২ অর্থবছরে ১৭তম লটের ৩০ হাজার মেট্রিক টন ব্যাগড গ্র্যানুলার ইউরিয়া সার কিনতে প্রাইস অফার পাঠানোর জন্য কাফকোকে চিঠি দেওয়া হয়। কাফকো ২০২২ সালের ১৪ এপ্রিল তারিখে প্রকাশিত ৪টি বুলেটিনের তথ্য অনুযায়ী ১৭তম লটের ৩০ হাজার মেট্রিক টন ব্যাগড গ্র্যানুলার ইউরিয়া সারের প্রাইস অফার পাঠায়, যা আগামী ১৭ মে পর্যন্ত বলবৎ থাকবে।


কাফকো কর্তৃক প্রস্তাবিত প্রতি মেট্রিক টন বাল্ক ইউরিয়া সারের দাম এফওবি ৮৭১.৫০ ডলার। চুক্তি অনুযায়ী প্রতি মেট্রিক টনের ব্যাগিং বাবদ ৫ মার্কিন ডলার যোগ হবে। এছাড়া ব্যাগিংয়ের প্রয়োজনীয় ব্যাগ এবং সুতা বিসিআইসি কর্তৃক সরবরাহ করা হবে। সে হিসেবে এফওবি (কাফকো ব্যাগিং হাউজ) ভিত্তিতে প্রতি মেট্রিক টন ব্যাগড গ্র্যানুলার ইউরিয়া সারের দাম ৮৭৬.৫০ মার্কিন ডলার (এফওবি মার্কিন ডলার ৮৭১.৫০+ব্যাগিং চার্জ ৫.০০ মার্কিন ডলার) হিসেবে ৩০ হাজার মেট্রিক টন সার কেনার আর্থিক সংশ্লিষ্টতা হবে ২,৬২,৯৫,০০০ মার্কিন ডলার সমতুল্য বাংলাদেশী মুদ্রায় ২২৬,৭৯,৪৩,৭৫০ টাকা। কাফকোর ১৬তম লটে প্রতি মে্িরটক টন সারের দাম ছিল ৯৩৫.১২৫ মার্কিন ডলার। নির্ধারিত তারিখের বুলেটিনে প্রকাশিত দাম পর্যালোচনায় সুপারিশকৃত দর বর্তমান আন্তর্জাতিক বাজার দরের সঙ্গে সামঞ্জস্যপূর্ণ বলে সূত্র জানিয়েছে।


এ সংক্রান্ত একটি ক্রয় প্রস্তাব অনুমোদনের জন্য অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামালের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠেয় সরকারি ক্রয় সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটির পরবর্তী সভায় উপস্থাপন করা হবে বলে সূত্র জানিয়েছে।

আরো পড়ুন