শিরোনাম :

  • জবানবন্দিতে বুলুসহ ১৫ বিএনপি নেতার নাম পেয়েছে পুলিশ উখিয়ায় রোহিঙ্গা ক্যাম্পে সন্ত্রাসীদের গুলিতে নিহত ২দুই ট্রাকের মুখোমুখি সংঘর্ষ, নিহত ২ আইসিসির সেরা হওয়ার দৌড়ে বাংলাদেশের নাসুম
এক ঝলকে সরকারি শহীদ সোহরাওয়ার্দী কলেজ
অপূর্ব চক্রবর্তী
১৯ জুলাই, ২০২২ ১৭:৩৭:৪৬
প্রিন্টঅ-অ+

রাজধানী পুরান ঢাকার লক্ষীবাজারে অবস্থিত সরকারি শহীদ সোহরাওয়ার্দী কলেজ। ১৯৪৯ সালের ১১ই নভেম্বর কায়েদ-ই-আজম নামে কলেজটির কার্যক্রম শুরু হয়। স্বাধীনতার পরবর্তীতে ১৯৭২ সালে কলেজটির নাম পরিবর্তন করে রাখা হয় শহীদ সোহরাওয়ার্দী কলেজ। ১৯৮৪ সালের ১লা নভেম্বর কলেজটিকে সরকারি কলেজে পরিণত হলে এর নামকরণ করা হয় ''সরকারি শহীদ সোহরাওয়ার্দী কলেজ''।


সর্বশেষ ২০১৭ সালের ১৬ই ফেব্রুয়ারি বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে ঢাকার ঐতিহ্যবাহী সাত কলেজটিকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধিভুক্ত করা হয়, সেখানে স্থান পায় সরকারি শহীদ সোহরাওয়ার্দী কলেজ।


ঐতিহ্যবাহী এ কলেজেই প্রতিষ্ঠিত ছয় দফার উপর নির্মিত বাংলাদেশের প্রথম ভাস্কর্য ''মুক্তির সনদ''। এ ভাস্কর্যটির উদ্বোধন করেন গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের মাননীয় শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি, এমপি। ভাস্কর্যটি উদ্বোধন করা হয় ২৪শে মার্চ ২০২০ (১০ চৈত্র ১৪২৬ বঙ্গাব্দ)। 


এখানে রয়েছে কলা এবং মানবিক অনুষদ, বিজ্ঞান অনুষদ এবং বাণিজ্য অনুষদ মিলিয়ে মোট ২০ টি বিভাগ রয়েছে। যেখানে উচ্চ মাধ্যমিক ও স্নাতক পর্যায়ে অধ্যয়নরত শিক্ষার্থীর সংখ্যা আনুমানিক ১৭ হাজার। 


কলেজের পশ্চিম পাশের ভবনের নিচতলায় অবস্থিত সুসজ্জিত গ্রন্থাগার। এখানে পাঠ্যবই, গল্পের বই, উপন্যাসের বই রয়েছে। কলেজের শিক্ষার্থীরা পরিচয়পত্র দেখিয়ে বই বাসায় নিয়ে যেতে পারে। লাইব্রেরিতে বসার জন্য সাধারণ কাঠের বেঞ্চ ও টেবিল রয়েছে।


এছাড়াও কলেজ প্রাঙ্গণে রয়েছে ভাষা শহীদের আত্মত্যাগের বিনিময়ে অর্জিত শহীদ মিনার, যেখানে প্রতিবছরের ২১শে ফেব্রুয়ারি অত্র কলেজের সকল ছাত্র-শিক্ষক, কর্মচারীবৃন্দ শ্রদ্ধার্ঘ নিবেদন করে।


এখানে শহীদ সোহরাওয়ার্দী কলেজ  মেডিকেল সেন্টার, যেখানে সপ্তাহে ৩ দিন একজন নিয়োগপ্রাপ্ত এমবিবিএস ডাক্তার প্রাথমিক চিকিৎসা সেবা দিয়ে থাকেন।


সরকারি শহীদ সোহরাওয়ার্দী কলেজে সক্রিয় কয়েকটি স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন। এখানে রয়েছে বাংলাদেশ ছাত্রলীগ (সোহরাওয়ার্দী কলেজ শাখা), বিএনসিসি (বাংলাদেশ ন্যাশনাল ক্যাডেট কোর) রমনা রেজিমেন্ট, যুব রেড ক্রিসেন্ট, বাঁধন (ঢাকা সিটি জোন), গার্লস গাইড এসোসিয়েশন। 


কলেজ প্রাঙ্গণে রয়েছে একটি দোয়ালিকা যেখানে কোন বিশেষ দিবসে শিক্ষার্থী, শিক্ষকদের জন্যে রয়েছে সুপ্ত প্রতিভা বিকাশের সুযোগ।


কলেজ প্রাঙ্গণে আরও রয়েছে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এবং তাঁর সুযোগ্য কণ্যা বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ম্যুরাল চিত্রকর্ম। 


কলেজের বিভিন্ন দেওয়ালগুলো সাজানো হয়েছে বিভিন্ন খনার বচন, জাতির পিতার বক্তব্য দিয়ে। এছাড়াও দেওয়ালগুলোতে আরও রয়েছে জাতির সূর্য সন্তান জাতীয় চার নেতার ছবি এবং বাঙলা সাহিত্যের দুই অগ্রদূত বিশ্বকবি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর এবং মাইকেল মধুসূদন দত্তের ছবি।

আরো পড়ুন