শিরোনাম :

  • সন্ধ্যার মধ্যেই আঘাত হানবে ‘গুলাব’, সতর্কতা জারিকরোনা পরীক্ষায় শাহজালালে বসল পিসিআর ল্যাবট্রেনের ছাদে হত্যার ঘটনায় গ্রেপ্তার ৫চার অপহরণকারীকে হত্যা করে প্রকাশ্যে ঝুলিয়ে রাখল তালেবান
মালয়েশিয়ায় ফিরতে সাড়ে ৩ লাখেরও বেশি এমটিপি আবেদন
১৪ সেপ্টেম্বর, ২০২১ ১৩:৫৭:১৮
প্রিন্টঅ-অ+

বৈশ্বিক করোনা মহামারি তে মালয়েশিয়ার অর্থনীতিসহ দেশটির স্বাভাবিক কর্মযজ্ঞ ও জীবনযাপন ব্যাহত হচ্ছে। করোনা প্রতিরোধে দীর্ঘসময় ধরে কঠোর বিধি নিষেধের কারণে সাধারণ জনগণসহ অভিবাসীরা নানামুখী সঙ্কটের মুখে ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছেন। 


হাজার হাজার প্রবাসী কর্মী করেনাকালে মালয়েশিয়া থেকে ছুটিতে নিজ দেশে এসে এখন আটকা পড়েছেন। বাংলাদেশ-মালয়েশিয়া স্পেশাল ফ্লাইট ছাড়া নিয়মিত ফ্লাইট বন্ধ রয়েছে দীর্ঘ সময় ধরে। ভিসা পারমিট থাকা সত্তেও দীর্ঘ অপেক্ষার পরও নানা জটিলতার কারণে ফিরতে পারছে না। এরকম ভোক্তভোগী প্রায় তিন লাখ ৫৬ হাজার ৫১০ জন মালয়েশিয়া ফিরতে ইমিগ্রেশন বিভাগের মাই ট্রাভেল পাসে (এমটিপি) অনলাইন আবেদন করেছেন। এর মধ্যে দুই লাখ আট হাজার ৫০৯ জনের আবেদন পাস হয়েছে এবং এক লাখ ২৭ হাজার ৪৬৫ জনের আবেদন বিভিন্ন কারণে বাতিল করা হয়েছে। এসব আবেদনকারীর মধ্যে রয়েছে মালয়েশিয়ান নাগরিক ও তাদের পোষ্য এবং বিভিন্ন দেশের অভিবাসী ছাত্র শ্রমিক। দেশটিতে প্রবেশ করতে চাইলে ইমিগ্রেশনের


পূর্ব অনুমতি প্রয়োজনের কথা উল্লেখ করে এই এমটিপি অনলাইন আবেদন ২০২০ এর নভেম্বর চালু করা হয়েছিল, যা এখনো চালু রয়েছে।


গতকাল বিকেলে দেশটির রাষ্ট্রীয় সংবাদ সংস্থা "বারনামা" কে দেয়া এক বিবৃতিতে এসব কথা বলেন অভিবাসন বিভাগের মহাপরিচালক দাতুক খায়রুল দাজাইমি দাউদ।


এর আগে মালয়েশিয়ার একটি স্থানীয় পত্রিকায় এক প্রতিবেদনে সমালোচনা করে বলা হয়, মাই ট্রাভেল পাসের (এমটিপি) প্রসেসিং অনেক বিলম্ব হচ্ছে যার কারণে আটকা পড়া মানুষজন দেশটিতে ফিরতে পারছেন না এবং দেশটি থেকে বাহিরের দেশে যেতে পারছেন না। তাছাড়াও এমটিভির প্রয়োজনীয়তা ও সহজ শর্তাবলী জনসমক্ষে প্রকাশ করা হয়নি।


অভিযোগ অস্বীকার করে খায়রুল দাজাইমি দাউদ বলেন, গত ২০২০ এর নভেম্বর থেকে এ পর্যন্ত প্রায় তিন লাখ ৫৬ হাজার ৫১০টি আবেদন জমা পড়েছে। এগুলো প্রসেসিং করতে তিনটি টিম নিয়মিত কাজ করছে। দিন দিন এই আবেদন বেড়েই চলেছে তার কারণ বর্তমানে দেশে লকডাউন শিথিল করা হয়েছে। আগে বাছাই প্রক্রিয়াটির সময়সীমা যেখানে সাত দিন ছিল এখন তা বাড়িয়ে ১৪ দিন করা হয়েছে।


এমটিপি আবেদন গ্রহন বাতিল দেশের অভ্যান্তরীন পরিস্থিতি ও সরকারের বিভিন্ন


বিধিনিষেধের উপর নির্ভর করতে হয়। তাই জনগণকে এমটিপির শর্তগুলো পূরোপূরি বুঝতে


হবে পাশাপাশি সরকারের বিভিন্ন বিধিনিষেধ ও নিয়ম কানুন সম্পর্কে আরো সতর্ক থাকতে হবে। এমটিপি আবেদন পক্রিয়া সহজ করতে এর আপডেট অব্যাহত আছে বলে তিনি জানিয়েছেন।


সূত্র: নয়াদিগন্ত


আমার বার্তা/ এইচ এইচএন

আরো পড়ুন