শিরোনাম :

  • জবানবন্দিতে বুলুসহ ১৫ বিএনপি নেতার নাম পেয়েছে পুলিশ উখিয়ায় রোহিঙ্গা ক্যাম্পে সন্ত্রাসীদের গুলিতে নিহত ২দুই ট্রাকের মুখোমুখি সংঘর্ষ, নিহত ২ আইসিসির সেরা হওয়ার দৌড়ে বাংলাদেশের নাসুম
কাতারে আল্লামা আবদুল হালিম বুখারী স্মরণে আলোচনা
০৭ জুলাই, ২০২২ ২২:১৩:২০
প্রিন্টঅ-অ+

আমার বার্তা ডেস্ক :: লন্ডন এসেক্স ইসলামিক সেন্টারের পরিচালক মাওলানা মাহমুদুল হাসান বলেছেন, আল্লামা আবদুল হালিম বুখারী ছিলেন বহুমুখী যোগ্যতার অধিকারী একজন জনপ্রিয় হাদিস বিশারদ, বরেণ্য ইসলামী গবেষক ও লেখক এবং মানুষ গড়ার কারিগর। বাংলাদেশের ইসলামী শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলো তাঁর অভাব সর্বদা অনুভব করবে।


সম্প্রতি কাতারে আল নূর কালচারাল সেন্টার আয়োজিত আল্লামা আবদুল হালিম বুখারী রহ এর জীবন ও কর্ম শীর্ষক আলোচনা সভায় মোবাইল বক্তব্যে তিনি উপরোক্ত কথাগুলো বলেন। গত ৫ জুলাই দোহা জাদিদ নিউ জামান রেস্টুরেন্টে আল নূর নির্বাহী পরিচালক হাফেজ মাওলানা ইউসুফ নূরের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন কাতার ধর্মমন্ত্রণালয়ের ইমাম ও খতিব মাওলানা আব্দুল হালিম আর বিশেষ অতিথি ছিলেন কাতারস্হ  চট্টগ্রাম সমিতির  সভাপতি মুহাম্মদ ইউসুফ। আল নূর নির্বাহী সদস্য মাওলানা তানভীর আহমদের উপস্থাপনায় এতে প্রধান আলোচক হিসেবে আল্লামা বুখারীর জীবন ও কর্মের ওপর আলোকপাত করেন কাতার বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষক মাওলানা   হােসাইন মুহাম্মদ নাঈমুল হক। অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন কাতার বিন যাইদ ইসলামিক কালচারাল সেন্টারের অনুবাদক মাওলানা মুহাম্মদ কমর , কাতার ধর্মমন্ত্রণালয়ের ইমাম মাওলানা ত্বাহা সিদ্দিকী ও মাওলানা সাদকে হোসাইন। প্রাণবন্ত এই আলোচনা সভায় স্বাগত ভাষণ পেশ করেন আল নূর সংস্কৃতি বিভাগের সহকারী পরিচালক মাওলানা  জসিমুদ্দিন মাশরুফ আর দোয়া পরিচালনা করেন আল নূর উপদেষ্টা মাওলানা গোলাম রাব্বানী।


সভাপতির বক্তব্যে কাতার ধর্মমন্ত্রণালয়ের ইমাম- খতিব ও ওয়াইজ মাওলানা ইউসুফ নূর বলেন, মনীষীদের জীবনী আলোচনা আবহমান ইসলামী সংস্কৃতির অংশ। ইমাম আবু হানিফা রহ, বলতেন: পূণ্যবানদের  জীবন কাহিনী আমার কাছে ফিকহের চাইতে ও উত্তম মনে হয়। তাই আল নূর সেন্টার গুরুত্ব সহকারে  উলামা মাশায়েখ ও মনীষীদের নিয়ে নানাবিধ অনুষ্ঠান করে থাকে। আজকের এই আয়ােজন আল্লামা বুখারীর প্রতি আল্লাহর জন্য  ভালবাসার বহি:প্রকাশ বৈ নয়। আল্লামা বুখারীর সাথে দাওয়াতী কার্যক্রমের স্মৃতিচারণ করে তিনি বলেন, আল্লামা বুখারী বিদায় নিলে ও তার ঘটনাবহুল জীবন আমাদের প্রেরণার উৎস এবং চেতনার মাইল ফলক হয়ে থাকবে।


 

আরো পড়ুন