শিরোনাম :

  • নয়াপল্টনে বিএনপির নেতাকর্মীদের সঙ্গে পুলিশের সংঘর্ষ জবানবন্দিতে বুলুসহ ১৫ বিএনপি নেতার নাম পেয়েছে পুলিশ সেনা অভ্যুত্থানবিরোধী বিক্ষোভে উত্তাল সুদান, সংঘর্ষে নিহত ৭দুই ট্রাকের মুখোমুখি সংঘর্ষ, নিহত ২
ফাঁসানো হয়েছিল রিয়াকে
২৯ মে, ২০২২ ১৮:০১:৪৯
প্রিন্টঅ-অ+


মাদক মামলায় ক্লিনচিট দেওয়া হয়েছে শাহরুখপুত্র আরিয়ান খানকে। শুধুই আরিয়ান নয়, মাদক মামলায় অভিযুক্ত আরও ৫ জনকেও ক্লিনচিট দিয়েছে এনসিবি। এবার আরিয়ানের আইনজীবী সতীশ মানেশিন্ডে দাবি করলেন, যেভাবে ফাঁসানো হয়েছিল আরিয়ানকে, সেইভাবেই ফাঁসানো হয়েছে রিয়া চক্রবর্তীকেও। অবিলম্বে রিয়ার বিরুদ্ধে দায়ের হওয়া মাদক সংক্রান্ত তিনটি মামলার নতুন করে তদন্তের দাবি তুললেন তিনি। প্রসঙ্গত, আরিয়ানের মতোই রিয়া ও তার ভাই সৌভিকেরও আইনজীবী সতীশই। এমনিতে আরিয়ান ক্লিনচিট পাওয়ার পরই বিপাকে সমীর ওয়াংখেড়ে। তার বিরুদ্ধে সঠিকভাবে তদন্ত না করার অভিযোগ উঠেছে। সেই অভিযোগে নয়া মাত্রা দিল সতীশের দাবি। তিনি জানিয়েছেন, রিয়া চক্রবর্তী ও তার ভাই সৌভিকের মামলাটিরও নতুন করে তদন্ত হওয়া দরকার। ওঁদের ক্ষেত্রেও কিন্তু কোনও মাদক পাওয়া যায়নি।

কোনও পরীক্ষাই করা হয়নি।

আরিয়ান খানের মামলা দেখিয়ে দিয়েছে, তার বিরুদ্ধে মিথ্যে অভিযোগ আনা হয়েছিল। রিয়া চক্রবর্তী সময় থেকেই এটা হয়ে আসছে। তাই নতুন করে তদন্ত করা একান্তই দরকার। সতীশের আরও দাবি, বলিউডের তারকাদের বিরুদ্ধে যেভাবে মাদক নেওয়ার অভিযোগ আনা হয়েছে তা কেবল তাদের জনপ্রিয়তাকে নষ্ট করার উদ্দেশ্যেই করা হয়েছে। কেননা কোনও তারকাই মাদক নেন না, তাদের ফিটনেস নষ্ট হওয়ার ভয় থাকে বলে। ২০২০ সালের জুন মাসে ১৪ জুন সুশান্ত সিং রাজপুতের ঝুলন্ত দেহ উদ্ধারের পরে রীতিমতো কেঁপে যায় বলিউড। রিয়া-সহ একাধিক ব্যক্তির বিরুদ্ধে মামলা করেছিল সুশান্তের পরিবার। পরে মাদক মামলায় গ্রেপ্তার করা হয় রিয়াকে। প্রায় এক মাস বাইকুল্লা জেলে কাটিয়েছিলেন রিয়া। অনেকেই সুশান্তের মৃত্যুর জন্য তাঁকে দায়ী করেছিলেন। পরে জামিনে ছাড়া পান রিয়া। সতীশের দাবি, রিয়ার কাছ থেকে কোনও মাদক উদ্ধার করতে পারেনি এনসিবি। কেবল মাত্র হোয়াটসঅ্যাপ চ্যাটের ভিত্তিতেই মামলা সাজানো হয়েছিল।


আরো পড়ুন