শিরোনাম :

  • নয়াপল্টনে বিএনপির নেতাকর্মীদের সঙ্গে পুলিশের সংঘর্ষ জবানবন্দিতে বুলুসহ ১৫ বিএনপি নেতার নাম পেয়েছে পুলিশ সেনা অভ্যুত্থানবিরোধী বিক্ষোভে উত্তাল সুদান, সংঘর্ষে নিহত ৭দুই ট্রাকের মুখোমুখি সংঘর্ষ, নিহত ২
জায়েদ খান আর রাস্তার ব্যাঙ এক কথা: ফারদিন
১৪ জুন, ২০২২ ১৬:০৮:২৯
প্রিন্টঅ-অ+


কয়েকদিন ধরেই আলোচনায় রয়েছেন অভিনেত্রী মৌসুমী, চিত্রনায়ক ওমর সানী ও জায়েদ খান। মূলত মৌসুমীকে নিয়ে বিবাদে জড়িয়েছেন ওমর সানী ও জায়েদ খান।

এমন পরিস্থিতিতে জায়েদের পক্ষ নেন মৌসুমী আর বাবার পক্ষে কথা বলেন মৌসুমী-সানীপুত্র ফারদিন।

রোববার (১২ জুন) সন্ধ্যায় বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতিতে জায়েদের নামে লিখিত অভিযোগ করেন সানী। এর একদিনের মাথায় সোমবার একটি অডিও বার্তায় জায়েদকে নির্দোষ দাবি করেন মৌসুমী। তিনি বলেন, আমাকে বিরক্ত করার কোনো ঘটনায় ঘটেনি। বরং জায়েদ আমাকে সম্মান করেন।

সানী বারবার দাবি করেছেন, বিরক্ত করার যাবতীয় তথ্যপ্রমাণ তাদের ছেলে ফারদিনের কাছে রয়েছে। বিষয়টি নিয়ে ফারদিন বলেন, তার (জায়েদ খান) বিষয়ে সবাই মোটামুটি জানেন। শুধু আমার আম্মা না, উনি কমবেশি সবাইকে হ্যারাস করে থাকেন। উনি আমার আব্বুর সঙ্গেও বেয়াদবি করেছেন, আম্মুর সঙ্গেও করেছেন। কিন্তু আম্মু ভেবেছেন, বিষয়টা সিভিল ম্যাটার, এটা ফ্যামিলির মধ্যেই সীমাবদ্ধ থাকুক। আমরা নিজেরাই সমাধান করব।

মৌসুমীর অডিও বার্তা নিয়ে তিনি বলেন, এটা নিয়ে যেন এতো কাদা ছোঁড়াছুড়ি না হয়, সেই চিন্তা থেকেই আম্মু কথাগুলো বলেছেন। যেন বিষয়টা দ্রুত ঠাণ্ডা হয়। এক জায়গায় দেখলাম আম্মু নাকি বলেছেন- মিথ্যাচারে জড়াচ্ছেন ওমর সানী। এটা আসলে ঠিক না। আম্মু যদি কোথাও স্টেটমেন্ট দেয় আমি বলব, এটা ঠিক না। আসলে এটা পরিস্থিতি ঠাণ্ডা করার জন্যই বলেছেন। আম্মু আমার সঙ্গেও কথাও বলেছেন। উনিও চান নাই পত্রিকায়-টিভিতে এসব নিয়ে আলোচনা বা সংবাদ প্রকাশ হোক।

বাবা-মায়ের মধ্যকার সাম্প্রতিক সম্পর্ক নিয়ে ফারদিন বলেন, সব ঠিক আছে। আমি তো আমার আব্বুকে পাচ্ছি, আম্মুকে পাচ্ছি। হ্যাঁ, অনেক বিষয় নিয়ে মনোমালিন্য থাকে। আমিও বিয়ে করেছি। আমাদেরও তো হয়। এটা স্বাভাবিক। তবে আব্বু-আম্মু দু’জন চাচ্ছেন যেন বিষয়টা দ্রুত সমাধান হয়ে যায়। ছেলে হিসেবে আমি তো আব্বু-আম্মু দুজনকেই চাইব। দিন শেষে আমার চাওয়া- যেন এটা দ্রুত সমাধান হয়।

ফারদিন আরো বলেন, ২০২২ সালে এটা হাইলাইটস করার মতো কোনো বিষয় না। তবে সত্যি কথা হল উনি (জায়েদ খান) ডিস্টার্ব করেন। আমি চাইলেও এখন প্রমাণ সবার সামনে হাজির করব না। উনি আমার ব্যবসারও ক্ষতি করার চেষ্টা করেছেন। এগুলো হয়তো প্রমাণ দিতে পারব না। আমি জানি বিষয়গুলো, পাবলিকলি সব বলবও না। তবে উনাকে নিয়ে চিন্তায় পড়ে যাব এমন না। উনাকে এতো গুরুত্ব দিচ্ছি না। জায়েদ খান আর রাস্তার ব্যাঙ এক কথা। তাই উনাকে নিয়ে ভাবছি না।


আরো পড়ুন