শিরোনাম :

  • জবানবন্দিতে বুলুসহ ১৫ বিএনপি নেতার নাম পেয়েছে পুলিশ উখিয়ায় রোহিঙ্গা ক্যাম্পে সন্ত্রাসীদের গুলিতে নিহত ২দুই ট্রাকের মুখোমুখি সংঘর্ষ, নিহত ২ আইসিসির সেরা হওয়ার দৌড়ে বাংলাদেশের নাসুম
টুটুল ভালো থাকুক, শুভকামনা: তানিয়া
১৮ জুলাই, ২০২২ ১৫:১৪:২০
প্রিন্টঅ-অ+


দেশের শোবিজ জগতের সফল ও জনপ্রিয় দম্পতি এস আই টুটুল ও তানিয়া আহমেদের সংসার ভেঙে গেছে। এমনকি বিচ্ছেদের ধাক্কা সামলে নতুন সংসারও পেতেছেন টুটুল। এরইমধ্যে দ্বিতীয় বিয়ে করে ফেলেছেন তিনি। জানা গেছে, এস আই টুটুলের নতুন স্ত্রীর নাম শারমিন সিরাজ সোনিয়া।

টুটুলের দ্বিতীয় বিয়ের খবরটি জেনেছেন তার প্রথম স্ত্রী তানিয়া আহমেদও। এ বিষয়ে ঢাকা পোস্টের সঙ্গে কথা বলছেন তিনি। তানিয়া বলেন, ‘খবরটি আমিও শুনেছি। ও (টুটুল) ভালো থাকুক। তার জন্য শুভকামনা রইলো। সে যদি ভালো থাকে তাহলে আমার সন্তানরাও ভালো থাকবে। সুতরাং তার ভালো থাকাটা আমার জন্য জরুরি।’

দুজনের মধ্যে ডিভোর্স হয়েছে কিনা? কবে হয়েছে জানতে চাইলে জনপ্রিয় এই অভিনেত্রী বলেন, ‘সে তো অবুঝ না, গাধাও না, যে নিয়মের বাইরে গিয়ে এমন কিছু করবে। নিয়ম মেনেই সে বিয়ে করেছে।’

তানিয়ার ভাষ্যে, ‘বাচ্চারা এখনও জানে না তাদের বাবা আবার বিয়ে করেছে। তবে তারা জানতো সে বিয়ে করবে। আমিও বাচ্চাদের এসব জানাতে চাই না। আমরা সবসময় ছেলে-মেয়েদের ভালো জিনিসিটাই শেখানোর চেষ্টা করেছি। কখনো তাদের সামনে ঝগড়াঝাটি বা খারাপ কোনো শব্দ উচ্চারণ করিনি।’

দুজনের দূরত্ব প্রসঙ্গে টুটুলের সাবেক স্ত্রী বলেন, ‘এটা ঠিক আমাদের মধ্যে একটা দূরত্ব ছিল। সে মিউজিকের মানুষ। তার জীবনধারণটা একটু অন্যরকম। সে জায়গাটায় হয়তো দূরত্ব হয়েছে।’

প্রায় দুই যুগের দাম্পত্য জীবন আপনাদের। ভালোবাসার জায়গা থেকে ভক্ত-শুভাকাঙক্ষীরা তো এই সিদ্ধান্তে আহত হতে পারেন। এমন কথার জবাবে তানিয়া বলেন, ‘দুজন ভালো মানুষও একসঙ্গে থাকতে থাকতে একসময় আলাদা হয়ে যেতে পারে। সবচেয়ে বড় কথা এটা আমাদের দুজনের একান্তই ব্যক্তিগত বিষয়। এখানে তো আর সব বলার কিছু নাই।’

সবশষে তানিয়া বলেন, ‘তার জন্য আমার শুভকামনা থাকলো। দোয়া থাকলো। সে ভালো থাকুক।’

উল্লেখ্য, এস আই টুটুল টুটুল ও তানিয়া আহমেদ বিয়ে করেছিলেন ১৯৯৯ সালে। এরপর থেকে সুখেই সংসার করে আসছিলেন। তাদের ঘর আলো করে পৃথিবীতে আসে দুই ছেলে ও এক মেয়ে। তিন সন্তানকে নিয়ে তানিয়া-টুটুলের সুখের অন্ত ছিল না। কিন্তু সেই সুখের সংসার আর টিকলো না।



amar barta / john


আরো পড়ুন