শিরোনাম :

  • জবানবন্দিতে বুলুসহ ১৫ বিএনপি নেতার নাম পেয়েছে পুলিশ উখিয়ায় রোহিঙ্গা ক্যাম্পে সন্ত্রাসীদের গুলিতে নিহত ২দুই ট্রাকের মুখোমুখি সংঘর্ষ, নিহত ২ আইসিসির সেরা হওয়ার দৌড়ে বাংলাদেশের নাসুম
‘হাওয়া’ টিম ক্যাম্পাসে ক্যাম্পাসে ঘুরছে
২৪ জুলাই, ২০২২ ১২:৪৭:০০
প্রিন্টঅ-অ+


আগামী ২৯ জুলাই দেশের প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি পেতে যাচ্ছে মেজবাউর রহমান সুমন পরিচালিত সময়ের আলোচিত সিনেমা ‘হাওয়া’। মাঝসমুদ্রে বিভিন্ন ঘটনার ঘাতপ্রতিঘাতে গন্তব্যহীন হয়ে পড়া একটি ফিশিং ট্রলারের আট মাঝি-মাল্লা এবং এক রহস্যময় বেদেনীকে ঘিরে চলচ্চিত্রটির গল্প।

ইতিমধ্যেই সামাজিক যোগাযোগ এবং গণমাধ্যমে বেশ আলোড়ন তৈরি করেছে ‘হাওয়া’র ট্রেলার ও গান। সাধারণ দর্শক ও তরুণ প্রজন্মের মাঝে সিনেমাটিকে আরও ছড়িয়ে দিতে এর টিম, সংগীতশিল্পী আরফান মৃধা শিবলু, ইমন চৌধুরী, তানজির তুহিন এবং ‘মেঘদল’ ব্যান্ডের সদস্যরা ঘুরে ফিরবেন দেশের বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসগুলোতে।

গতকাল ২৩ জুলাই সন্ধ্যা ৭টায় জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের সেলিম আল দীন মুক্তমঞ্চে উপস্থিত থেকে তারা সিনেমাটির প্রচারণা করেন। এ সময় সিনেমার গান গেয়ে উপস্থিত দর্শক-শ্রোতাদের মাতিয়ে রাখেন তারা।

রোববার (২৪ জুলাই) বেলা ৩টায় দলটি আমেরিকান ইন্টারন্যাশন্যাল ইউনিভার্সিটি ক্যাম্পাসে যাবে। বুয়েট অডিটোরিয়াম প্রাঙ্গণে হাজির হবে ২৫ জুলাই বিকাল ৫টায়। পরের দিন ২৬ জুলাই বিকাল ৫টায় যাবে নটরডেম ইউনিভার্সিটি বাংলাদেশের ওপেন স্পেসে। ক্যাম্পাস প্রচারণার দিনগুলোতে ‘হাওয়া’র কলাকুশলীরা চলচ্চিত্রটি সম্পর্কিত অনেক গল্প ও ব্যক্তিগত অভিজ্ঞতা তরুণদের সাথে ভাগাভাগি করবেন।

প্রতিটি ক্যাম্পাসেই ব্যান্ড ‘মেঘদল’, আরফান মৃধা শিবলু, ইমন চৌধুরী এবং তানজির তুহিনের অংশগ্রহণে থাকছে সংগীত পরিবেশনা। আরও থাকছে সিনেমার সঙ্গে সম্পর্কিত পৃষ্ঠপোষক ‘রাঁধুনী’র কিছু প্রতিযোগিতামূলক প্রচারণা কার্যক্রম। যাতে অংশ নিয়ে দর্শকরা জিতে নিতে পারবেন ‘হাওয়া’র ফ্রি টিকেট, টিশার্ট ও অফিসিয়াল পোস্টার।

দর্শকরা অনুষ্ঠানগুলো ‘হাওয়া’, জাজ মাল্টিমিডিয়া, মেঘদল ও মাছরাঙ্গা টেলিভিশনের ফেসবুক পেইজ থেকেও লাইভ দেখতে পারবেন।

এদিকে, বাংলাদেশে পর শিগগিরই সিনেমাটি মুক্তি পেতে যাচ্ছে উত্তর আমেরিকা, কানাডা, অষ্ট্রেলিয়া ও নিউজিল্যান্ডে। এছাড়াও আরও বেশকিছু দেশে মুক্তি দেয়ার চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে প্রযোজনা সংস্থা সান মিউজিক অ্যান্ড মোশন পিকচার্স লিমিটেড।

চলচ্চিত্রটির নির্মাণ সংস্থা ফেসকার্ড প্রোডাকশন এবং প্রযোজনা করেছে সংস্থা সান মিউজিক অ্যান্ড মোশন পিকচার্স লিমিটড।



amar barta / john


আরো পড়ুন