শিরোনাম :

  • রাজধানীতে ট্রাকের ধাক্কায় বৃদ্ধ নিহত জবানবন্দিতে বুলুসহ ১৫ বিএনপি নেতার নাম পেয়েছে পুলিশ উখিয়ায় রোহিঙ্গা ক্যাম্পে সন্ত্রাসীদের গুলিতে নিহত ২দুই ট্রাকের মুখোমুখি সংঘর্ষ, নিহত ২
তবে কি বন্ধ হয়ে যাচ্ছে শাপলা মিডিয়া!
১১ আগস্ট, ২০২২ ১৬:২৫:৪২
প্রিন্টঅ-অ+


 বাংলাদেশ চলচ্চিত্র প্রযোজক পরিবেশক সমিতির ২০২২-২৪ মেয়াদি নির্বাচনে প্রার্থীতা প্রত্যাহার করেছেন প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান শাপলা মিডিয়া ইন্টারন্যাশনালের কর্ণধার মো. সেলিম খান। একই সঙ্গে নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়িয়েছেন জনপ্রিয় খল অভিনেতা মনোয়ার হোসেন ডিপজলও।

প্রযোজক সেলিম খান এবং খল অভিনেতা মনোয়ার হোসেন ডিপজল এই নির্বাচনে একটি প্যানেলের প্রধান দুই পদের প্রার্থী ছিলেন।

শাপলা মিডিয়ার প্যাডে সেলিম খান লিখেছেন, 'আমি মো. সেলিম খান। বাংলাদেশ চলচ্চিত্র প্রযোজক সমিতির একজন সাধারণ সদস্য। সমিতির আসন্ন ২০২২-২৪ মেয়াদের নির্বাচনে একজন প্রার্থী হই। ব্যক্তিগত কারণে নির্বাচনে অংশগ্রহণ করতে পারছি না। আমার প্রার্থিতা আমি প্রত্যাহার করলাম। আমার প্রার্থিতা বাতিল করার প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেবেন।'

সংশোধিত তফসিলে সেলিম খান দ্বিতীয়বার মনোনয়ন সংগ্রহ করলেও দ্বিতীয়বার মনোনয়ন পত্রই তোলেননি ডিপজল। অসুস্থার কারণ দেখিয়ে নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়ান অভিনেতা ডিপজল। এক গণমাধ্যমকে তিনি বলেছেন, 'আমার শরীরটা ভালো যাচ্ছে না অনেক দিন থেকেই। চিকিৎসা নিতে কিছুদিন পরপরই দেশের বাইরে যেতে হয়। নির্বাচনে দেওয়ার মতো সময় আমার নেই আর। এ কারণেই সরে দাঁড়িয়েছি।'

১৯ জন সাধারণ সদস্য ও ২ জন সহযোগী সদস্য পদের বিপরীতে মোট প্রার্থীসংখ্যা ৪৪। বর্তমান সাধারণ ভোটার ১০৮ ও সহযোগী ভোটার ৬৮ জন। সব ঠিক থাকলে ২০ আগস্ট হবে বাংলাদেশ চলচ্চিত্র প্রযোজক পরিবেশক সমিতির ২০২২-২৪ মেয়াদি নির্বাচন।

অন্যদিকে সাড়ে ৩৪ কোটি টাকার অবৈধ সম্পদ অর্জন এবং ৬৭ লাখ টাকার সম্পদের তথ্য গোপনের অভিযোগে সেলিম খানের বিরুদ্ধে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক) মামলা দায়ের হওয়ায় শাপলা মিডিয়ার ভবিষ্যত অনিশ্চয়তার মুখে পড়েছে। আপাতত বন্ধ রেখেছে সব ধরনের কার্যক্রম।

বিষয়টি  করেছে শাপলা মিডিয়ার হেড অব প্রোডাকশন অপূর্ব রায়।

অপূর্ব রায় জানান, 'আপাতত সকল কার্যক্রম স্থগিত রেখছি আমরা। নতুন কোন সিনেমা শুরু করবে না শাপলা মিডিয়া। কবে নাগাদ কাজে ফিরতে পারবো তা সঠিক  বলতে পারছি না। শুরু হওয়া সিনেমাগুলোর কাজ পর্যায়ক্রমে শেষ করতে চাই।'

অপূর্ব রায় জানান, '২০২১ সালে এক'শ সিনেমা নির্মাণের ঘোষণা দেয় শাপলা মিডিয়া। তার মধ্যে কিছু সিনেমার শুটিং শেষ, কিছু সিনেমার কাজ চলছিল। এখন সব কাজই বন্ধ রয়েছে।'

'চলচ্চিত্রকে ভালোবেসে প্রযোজনায় এসেছিলেন সেলিম খান' জানিয়ে অপূর্ব রায় বলেন, তিনি একের পর এক সিনেমা প্রযোজনা করছেন। ঝিমিয়ে পড়া ইন্ডাস্ট্রিতে কর্মসংস্থান করেছেন। কিন্তু বিনিময়ে তিনি কি পেয়েছেন...? আমরা চাই শাপলা মিডিয়া সচল রাখতে। তবে পরিস্থিতি বিবেচনায় ভবিষ্যত নিশ্চিত হবে।'

বিষয়গুলো নিয়ে সেলিম খানের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তার মুঠোফোন বন্ধ পাওয়া যায়।

প্রযোজনা সংস্থা শাপলা মিডিয়া ছাড়াও সেলিম খানের 'ভয়েজ টিভি' নামে একটি  আইপি টিভি, 'দেশ ভয়েস' নামে একটি দৈনিক পত্রিকা এবং 'সিনেবাজ' নামে একটি ওটিটি প্ল্যাটফর্মেরও মালিক তিনি।



আমার বার্তা -জন


আরো পড়ুন