শিরোনাম :

  • প্রথম ওভারেই নাসুমের আঘাত করোনায় একদিনে পুরুষের চেয়ে নারীর মৃত্যু দ্বিগুণ নাঈম-মুশফিকের অর্ধশতকে ১৭১ রানের চ্যালেঞ্জিং স্কোর‘তিস্তায় মেগা প্রকল্প বাস্তবায়ন করা হবে
অশ্রু নয়, কাঁদলে চোখ থেকে বেরিয়ে আসছে পাথর
২৮ সেপ্টেম্বর, ২০২১ ১৩:১৯:২৬
প্রিন্টঅ-অ+

অঝোরে কাঁদছে ১৫ বছরের মেয়ে। কিন্তু চোখে পানির জায়গায় ঝরে পড়ছে পাথর! হ্যা, শুনতে অবাক লাগলেও সম্প্রতি সামনে এসেছে এমনই ঘটনা। যা দেখার পর হতবাক চিকিৎসকরাও।


একটি সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত খবর অনুযায়ী, ১৫ বছর বয়সী ওই মেয়ে ভারতের উত্তরপ্রদেশের কনৌজের গাদিয়া বালিদাসপুরের বাসিন্দা। তিনি কাঁদলেই চোখ থেকে পাথর পড়ছে। বিগত বেশ কয়েক মাস ধরেই তার বাড়ির লোকদের নজরে বিষয়টি আসে। এরপরই গোটা গ্রামে রীতিমতো চাঞ্চল্য ছড়ায়। গ্রামের বাসিন্দাদের কারোর ধারণা, এই মেয়ের মধ্যে অশুভ কোনো শক্তি ভর করেছে। কেউ আবার বলছেন ভয়ঙ্কর বিপর্যয়ের ইঙ্গিত এই কান্না।


এমনকী তার জটিল এই অসুখের কথা শুনে হতবাক চিকিৎসকরাও। তারাও ঠাহর করতে পারছেন না, ঠিক কোন রোগে আক্রান্ত ওই নাবালিকা। চিকিৎসকদের মতে, কোনো যুক্তিতেই এমন ঘটনার কার্যকারণ ব্যাখ্যা করা সম্ভব নয়।


ওই বালিকার পরিবারের বক্তব্য, শেষ দু’মাস ধরে চোখ থেকে ১০-১৫টি পাথর বাইরে এসে পড়েছে। ইতোমধ্যে সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়েছে একটি ভিডিও। যেখানে ওই মেয়েটির চোখ থেকে দু’টি পাথর পড়তে দেখা গেছে বলে গ্রামবাসীদের দাবি।


এছাড়া একটি ছবিতে মেয়েটির চোখের পাশে একটি মাংসপিণ্ড রয়েছে। কিছুক্ষণ সেটিতে চাপ দিতেই বেরিয়ে আসে ছোট্ট পাথর। এরপর ফের চোখ থেকে একটি পাথর বেরিয়ে আসে। আর এই ভিডিও দেখার পরই রীতিমতো হতবাক নেটিজেনরা।


তবে এই প্রথম নয়, এর আগে ২০১৪ সালে ইয়েমেনের ১২ বছর বয়সী এক মেয়ের সাথেও একই ঘটনা ঘটেছিল। সাদিয়া সালেহ নামে ওই নাবালিকাও একই রকম রোগে আক্রান্ত ছিল। যা নিয়ে রীতিমতো হইচইও হয়েছিল। কিন্তু সেক্ষেত্রেও চিকিৎসকরা বুঝতে পারেননি, ঠিক কোন রোগে আক্রান্ত ওই মেয়েটি। আর উত্তরপ্রদেশের ঘটনাতেও একই বক্তব্য চিকিৎসকদের।


সত্র : সংবাদ প্রতিদিন

আরো পড়ুন