শিরোনাম :

  • নয়াপল্টনে বিএনপির নেতাকর্মীদের সঙ্গে পুলিশের সংঘর্ষ জবানবন্দিতে বুলুসহ ১৫ বিএনপি নেতার নাম পেয়েছে পুলিশ সেনা অভ্যুত্থানবিরোধী বিক্ষোভে উত্তাল সুদান, সংঘর্ষে নিহত ৭দুই ট্রাকের মুখোমুখি সংঘর্ষ, নিহত ২
কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর শপথ নিলেন বিলাওয়াল ভুট্টো জারদারি
২৯ এপ্রিল, ২০২২ ১৪:৪৩:১০
প্রিন্টঅ-অ+

পাকিস্তানের কেন্দ্রীয় মন্ত্রী হচ্ছেন দেশটির বর্তমান ক্ষমতাসীন জোট সরকার পাকিস্তান পিপলস পার্টির (পিপিপি) চেয়ারম্যান বিলাওয়াল ভুট্টো জারদারি। বুধবার পাকিস্তানের রাষ্ট্রপতির ভবন ও কার্যালয় আইওয়ান-ই-সদরে মন্ত্রীর শপথ নিয়েছেন তিনি।


প্রেসিডেন্ট আরিফ আলভির কাছে তিনি শপথ নিয়েছেন বলে এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে পাকিস্তানের জাতীয় দৈনিক ডন। প্রধানমন্ত্রী শেহবাজ শরিফ এবং বিলাওয়াল ভুট্টো জারদারির বাবা ও পিপিপির ভাইস চেয়ারম্যান আসিফ আলি জারদারি উপস্থিতি ছিলেন এই শপথ অনুষ্ঠানে।


অনাস্থা ভোটে ইমরান খানকে হটিয়ে গত ১১ এপ্রিল পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী হন দেশটির পার্লামেন্টের প্রধান বিরোধী দল পাকিস্তান মুসলিম লীগ-নওয়াজের (পিএমএল-এন) চেয়ারম্যান শেহবাজ শরিফ। নানা নাটকীয়তার পর ১৯ এপ্রিল শপথ নেয় শেহবাজের নেতৃত্বাধীন মন্ত্রিসভার ৩১ মন্ত্রী ও ৩ প্রতিমন্ত্রী।


তবে সেই শপথ অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন না বিলাওয়াল; এবং শপথ নেওয়া মন্ত্রী ও প্রতিমন্ত্রীদের দপ্তর বণ্টন করা হলেও পররাষ্ট্রমন্ত্রীর পদটি ফাঁকা ছিল এতদিন।


পাকিস্তানের সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেনজির ভুট্টো ও তার স্বামী আসিফ আলি জারদারির ছেলে বিলাওয়াল ভুট্টো জারদারির বয়স ৩৩ বছর। ২০১৮ সালে তিনি প্রথম জাতীয় নির্বাচনে অংশগ্রহণ করেন ও জয়ী হন। দেশটির মন্ত্রিপরিষদেও তিনি প্রথমবারের মতো অন্তর্ভুক্ত হলেন।


বিলাওয়াল কোন মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব নেবেন, তা এখনও স্পষ্ট নয়। তবে ধারণা করা হচ্ছে, পাকিস্তানের নতুন সরকারের পররাষ্ট্রমন্ত্রী হতে যাচ্ছেন তিনি। মঙ্গলবার রাজধানী ইসলামাবাদে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি নিজেই এ ইঙ্গিত দিয়েছিলেন।


সংবাদ সম্মেলনে তিনি বলেছিলেন, ‘আমাদেরকে বুঝতে হবে এটি কোনো সাধারণ জোট সরকার নয়। এটি বিরোধী বেঞ্চে বসা দলগুলোর ঐক্যমতের সরকার। এটি অনেক বড় একটি চ্যালেঞ্জ। প্রত্যেককেই তাদের ভূমিকা পালন করতে হবে এবং বোঝা ভাগাভাগি করতে হবে।’


বুধবার শপথ নেওয়ার পর বিলাওয়ালের বোন ও পিপিপির কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির অন্যতম সদস্য বাখতাওয়ার ভুট্টো জারদারি এক টুইটবার্তায় বলেন, ‘পিপিপির কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির সিদ্ধান্ত মেনে পাকিস্তানের ক্ষমতাসীন জোট সরকারের পররাষ্ট্রমন্ত্রী হিসেবে শপথ নিয়েছেন বিলাওয়াল ভুট্টো জারদারি এবং আমরা তাকে নিয়ে খুব গর্বিত। সৃষ্টিকর্তা তাকে সাফল্যমন্ডিত করুন।’


শপথ নেওয়ার পর পাকিস্তানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে যান বিলাওয়াল। সেখানে তাকে স্বাগত জানান মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী হিনা রব্বানি খার ও পররাষ্ট্র সচিব সোহেল মাহমুদ। এ সময় তিনি মন্ত্রণালয়ের জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তাদের সঙ্গে সংক্ষিপ্ত মত বিনিময় করেন।


মন্ত্রণালয় পরিদর্শন শেষে পাকিস্তানের চীনা দূতাবাসেও যান বিলাওয়াল। সেখানেও দূতাবাস কর্মকর্তাদের সঙ্গে আলাপ-আলোচনা করেন। মঙ্গলবার করাচিতে ঘটে যাওয়া আত্মঘাতী বোমা হামলার ঘটনায় শোক জানান।


পাকিস্তানের বর্তমান ক্ষমতাসীন জোট সরকারের প্রধান দুই শরিক পিএমএল-এন ও পিপিপি। দেশটির বর্তমান মন্ত্রিসভায় পিএমএল-এনের সংখ্যাগরিষ্ঠতা থাকবে। এ দলের ১৪ জন মন্ত্রীর দায়িত্ব পাবেন।


এছাড়া পিপিপির ১১টি, জেইউআই-এফ চারটি মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব পাবে। বাকি সাত মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব পাবে অন্য শরিকরা।


এক সপ্তাহ আগে আস্থা ভোটে হেরে ইমরান খানের বিদায়ের পর পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী হয়েছেন পিএমএল-এন নেতা শাহবাজ শরিফ।


পার্লামেন্টে ইমরানের বিরুদ্ধে বিরোধীদলগুলো অনাস্থা প্রস্তাব আনলে ডেপুটি স্পিকার তা বাতিল করে দিয়েছিলেন। এরপর প্রেসিডেন্ট আলভি প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে আলোচনা করে পার্লামেন্ট ভেঙে দেন।


কিন্তু সুপ্রিম কোর্ট ওই দুই সিদ্ধান্ত ‘অবৈধ’ ঘোষণা কর। সেই রায়ে শেষ পর্যন্ত আস্থা ভোট হয় এবং ইমরান খানের পিটিআই সরকারের পতন ঘটে।


ভোটে সংখ্যাগরিষ্ঠতার জন্য যেখানে ১৭২ সদস্যের সমর্থন লাগে, সেখানে ১৭৪ সদস্যের সমর্থন পায় শাহবাজ নেতৃত্বাধীন বিরোধী জোট।

আরো পড়ুন