শিরোনাম :

  • জবানবন্দিতে বুলুসহ ১৫ বিএনপি নেতার নাম পেয়েছে পুলিশ উখিয়ায় রোহিঙ্গা ক্যাম্পে সন্ত্রাসীদের গুলিতে নিহত ২দুই ট্রাকের মুখোমুখি সংঘর্ষ, নিহত ২ আইসিসির সেরা হওয়ার দৌড়ে বাংলাদেশের নাসুম
তাইওয়ানের চারপাশে চীনে 'অভূতপূর্ব' সামরিক মহড়া
আন্তর্জাতিক ডেস্ক
০৪ আগস্ট, ২০২২ ১২:০৬:৪৫
প্রিন্টঅ-অ+

তাইওয়ানের চারপাশে নজিরবিহীন সামরিক মহড়া শুরু করেছে চীন। নৌ ও আকাশ পথে দেশটি মহড়া চালাচ্ছে। মার্কিন কংগ্রেসের স্পিকার ন্যান্সি পেলোসির তাইওয়ান সফর শেষে চীন এ পদক্ষেপ নিলো। কারণ চীনের চরম আপত্তি থাকা স্বত্ত্বেও মার্কিন এই শীর্ষ রাজনীতিবিদ মঙ্গলবার (২ আগস্ট) তাইওয়ান সফরে যান। খবর আল-জাজিরার।


চীনের রাষ্ট্রীয় সংবাদমাধ্যমে জানানো হয়েছে, তাইওয়ানের চারপাশে ছয়টি জায়গায় সামরিক মহড়া শুরু হয়েছে। মূলত পেলোসির তাইওয়ান সফরের শুরু থেকেই সামরিক প্রস্তুতি নিতে শুরু করে চীন। এরপর তাইওয়ানকে শাস্তি দিতে বেশ কিছু নিষেধাজ্ঞাও আরোপ করেছে দেশটি।


এদিকে তাইওয়ান জানিয়েছে, চীনের চলমান সামরিক মহড়া আন্তর্জাতিক আইনের স্পষ্ট লঙ্ঘন। এর আগে মঙ্গলবার রাতে চীনের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় এক বিবৃতিতে জানায়, তাইওয়ানের উত্তর, দক্ষিণ-পশ্চিম ও উত্তরপূর্বাঞ্চলে যৌথভাবে আকাশ ও সমুদ্রে চীনের মহড়া চলবে। তাইওয়ান প্রণালীতে দীর্ঘ পাল্লার ‘লাইভ ফায়ারিং’ করা হবে।


এদিকে তাইওয়ানের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় বলছে, এরই মধ্যে ২৭টি যুদ্ধবিমান স্বশাসিত দ্বীপটির আকাশ প্রতিরক্ষা সীমায় প্রবেশ করেছে এবং সতর্কাবস্থায় আছে তাইওয়ানের বাহিনী।


মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, কিনমেন দ্বীপের ওপর দিয়ে সম্ভবত একটি ড্রোন উড়ে গিয়েছিল এবং সামরিক বাহিনী সেটিকে তাড়াতে গোলা নিক্ষেপ করেছে।


তাইওয়ান এরই মধ্যে চীনের সামরিক মহড়া এড়িয়ে বাণিজ্যিক জাহাজগুলোকে বিকল্প পথ খুঁজতে বলেছে এবং প্রতিবেশী জাপান ও ফিলিপাইনের সঙ্গে বিকল্প বিমান চলাচলের রুট খুঁজতে শুরু করেছে।


এদিকে কানাডা, ফ্রান্স, জার্মানি, ইতালি, জাপান, যুক্তরাজ্য ও যুক্তরাষ্ট্র এক যৌথ বিবৃতিতে বলেছে, চীন এই অঞ্চলে অস্থিতিশীল পরিস্থিতি তৈরি করেছে।


বিষয়গুলোকে শান্ত করার প্রয়াসে, G-7 দেশগুলোর পররাষ্ট্রমন্ত্রীরা কানাডা, ফ্রান্স, জার্মানি, ইতালি, জাপান, যুক্তরাজ্য ও মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র- একটি যৌথ বিবৃতি প্রকাশ করেছে যে চীন ক্রমবর্ধমান এই অঞ্চলকে অস্থিতিশীল করার ঝুঁকি তৈরি করেছে।


এর আগে চীনের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় মঙ্গলবার জানিয়েছে, পেলোসির সফরের প্রতিক্রিয়ায় তাইওয়ানের বিভিন্ন স্থানে লক্ষ্যযুক্ত সামরিক অভিযান পরিচালনা করবে বেইজিং।


আলাদাভাবে চীনের পিপলস লিবারেশন আর্মির ইস্টার্ন থিয়েটার কমান্ড বলেছে যে মঙ্গলবার রাত থেকেই তাইওয়ানের কাছে যৌথ সামরিক অভিযান ও মহড়া পরিচালনা করবে তারা।


ইস্টার্ন কমান্ড জানিয়েছে, এই সামরিক মহড়া অনুষ্ঠিত হবে পুরো তাইওয়ানকে ঘিরে। দ্বীপটির উত্তর, দক্ষিণ-পশ্চিম ও দক্ষিণ-পূর্বে সমুদ্রে বিমান ও যুদ্ধজাহাজ মহড়ায় অংশ নেবে। এসব মহড়ায় দূরপাল্লার লাইভ ফায়ারিং ও ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষাও থাকবে।


তবে চীনের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় ঘোষিত সামরিক অভিযানে লক্ষ্যবস্তু কী হবে এবং ইস্টার্ন কমান্ডের মহড়া থেকে এটি আলাদা হবে কি না, তার বিশদ বিবরণ দেয়নি বেইজিং।

আরো পড়ুন