শিরোনাম :

  • নয়াপল্টনে বিএনপির নেতাকর্মীদের সঙ্গে পুলিশের সংঘর্ষ জবানবন্দিতে বুলুসহ ১৫ বিএনপি নেতার নাম পেয়েছে পুলিশ সেনা অভ্যুত্থানবিরোধী বিক্ষোভে উত্তাল সুদান, সংঘর্ষে নিহত ৭দুই ট্রাকের মুখোমুখি সংঘর্ষ, নিহত ২
আ. স. ম আল আমীন
সংবাদ প্রকাশে স্বচ্ছতা
২৫ নভেম্বর, ২০২১ ২১:৩৯:৫৮
প্রিন্টঅ-অ+

বর্তমান সময়ে যার কাছে স্মার্ট ফোন রয়েছে, সেও এখন সাংবাদিক দাবি করছে। কিন্তু সাংবাদিকতা আমানত। আল্লাহ তায়া’লা পবিত্র কোরআনে ইরশাদ করেছেন, হে ইমানদারগণ! আল্লাহকে ভয় করো এবং সঠিক কথা বলো- (আল আহজাব-৭০) মানুষের জীবন চলার পথে সব ক্ষেত্রে ইসলামের দৃষ্টিভঙ্গি রয়েছে,  যেন মানুষ লাগামহীনভাবে চলতে না পারে।  তাই সংবাদ প্রকাশের ক্ষেত্রে ও ইসলামের দৃষ্টিভঙ্গি রয়েছে।  


ধারণার ভিত্তিতে সংবাদ প্রকাশ না করা


শুধু সংবাদ নয় যে কোন বিষয়ে ধারণা পোষণ করা গুনাহের কাজ, আল্লাহর তায়ালার কাছে যেমন নিকৃষ্ট তেমন মানুষ ও ভালোভাবে দেখে না। এর দ্বারা সমাজে অনৈক্য সৃষ্টি হয়, এই জন্য আল্লাহ তায়া’লা ধারণা থেকে বিরত থাকার নির্দেশ দিয়েছেন। পবিত্র কোরআনে ঘোষণা করেছেন, হে ঈমানদারগণ, বেশী ধারণা ও অনুমান করা থেকে বিরত থাকো। কারণ কিছু কিছু  ধারণা ও অনুমান গোনাহ। (হুজরাত  : আয়াত ১২) হাদিস শরিফেও এ ধরনের অনর্থক মন্দ ধারণা থেকে নিষেধ করা হয়েছে। রাসূলুল্লাহ সা. ইরশাদ করেছেন, ‘তোমরা মন্দ ধারণা থেকে বেঁচে থাকো। কেননা মন্দ ধারণাই হচ্ছে সবচেয়ে জঘন্য মিথাচার। ’(সহিহ মুসলিম শরিফ, হাদিস নং : ৬৭০১)


ধারণার ভিত্তিতে সংবাদ প্রকাশ করা এটা ইসলাম কখনো সমর্থন করে না।


মন্দ নামে সংবাদ প্রকাশ না করা 


আজকাল আমাদের সমাজে মানুষের খারাপ নাম দিয়ে ডাকতে পারলে মানুষ অনেটায় আনন্দ পায়,  কিন্ত যাকে ডাকছেন সে তো এব্যাপারে কষ্ট পায়।  এই জন্য সংবাদ প্রকাশের মানুষের খারাপ নাম প্রকাশ করা থেকে বিরত থাকা, আল্লাহ তায়া’লা পবিত্র কোরআনে ঘোষণা করেছেন।  


এবং তোমরা একে অপরকে মন্দ নামে ডেকনা; ঈমান আনার পর মন্দ নামে ডাকা গর্হিত কাজ। যারা এ ধরণের আচরণ হতে নিবৃত্ত না হয় তারাই যালিম।( সুরা হুজরাত - ১১) এব্যাপারে , নবীজি (সা.) বলেন ‘যার জিহ্বা ও হাত থেকে অন্য মুসলিমরা নিরাপদ, সে-ই প্রকৃত মুসলিম। আর যে আল্লাহর নিষিদ্ধ বিষয়গুলো পরিত্যাগ করে, সে-ই প্রকৃত হিজরতকারী। (বুখারি)


৩. কাহারো দোষ ত্রুটি প্রকাশ ও অনুসন্ধান  না করা


বর্তমান সংবাদ মাধ্যম গুলো নিজেদের সাইট বেশি প্রচার হওয়ার জন্য মানুষের খারাপ গুন গুলো প্রকাশ করে থাকে, আল্লাহ তায়া’লা   পবিত্র কোরআনে ঘোষণা করেছেন,


আর তোমরা গোপন বিষয় অনুসন্ধান করো না এবং একে অপরের গীবত করো না। তোমাদের মধ্যে কি কেউ তার মৃত ভাইয়ের গোস্ত  খেতে পছন্দ করবে? তোমরা তো তা অপছন্দই করে থাক। আর তোমরা আল্লাহকে ভয় কর। নিশ্চয় আল্লাহ অধিক তাওবা কবূলকারী, অসীম দয়ালু। (সূরা হুজরাত : আয়াত ১২)


রাসূলুল্লাহ সা. বলেন, ‘যে ব্যক্তি কোনো মুসলমানের দোষ গোপন রাখে আল্লাহ তাআলা কিয়ামতের দিন তার দোষ ঢেকে রাখবেন।’ (তিরমিজি, হাদিস : ২৯৪৫)


মানুষের দোষ গোপন রাখা মহৎ কাজ। দোষ-ত্রুটি প্রকাশের ফলে ব্যক্তি সানন্দে জীবনযাপন করতে পারে না। চলাফেরার পথ রুদ্ধ হয়ে যায়। পৃথিবী তার জন্য সংকীর্ণ হয়ে যায়। মানুষের কল্যাণার্থে মানুষের দোষ-ত্রুটি গোপন রাখা অপরিহার্য।


অনিশ্চিত ও বিশ্লেষণ বিহীন সংবাদ না ছাপা


একজন সাংবাদিকের উচিত যেই কোন সংবাদ কে সরেজমিনে গিয়ে সংগ্রহ করা যদি সরেজমিনে যেতে পারে তাহলে সংবাদের ব্যাপারে নিশ্চিত হওয়া এবং বিশ্লেষণ করে সঠিক টা পাঠকের সামনে তুলে ধরা।


সঠিক সংবাদের মাধ্যমে গ্রহণযোগ্যতা লাভ করেন একজন সাংবাদিক। আল্লাহ তায়া’লা পবিত্র কোরআনে ঘোষণা করেছেন, আর যে বিষয়ে তোমার জ্ঞান নেই তার অনুসরণ করো না; কান, চোখ, হৃদয়- এদের প্রত্যেকটি সম্পর্কে কৈফিয়ত তলব করা হবে। (বনী ইসরাইল : আয়াত ৩৬)


অন্য আয়াতে আল্লাহ তায়া’লা ইরশাদ করেছেন, হে ঈমানদারগণ, যদি কোন ফাসিক তোমাদের কাছে কোন সংবাদ নিয়ে আসে, তাহলে তোমরা তা যাচাই করে নাও। এ আশঙ্কায় যে, তোমরা অজ্ঞতাবশত কোন কওমকে আক্রমণ করে বসবে, ফলে তোমরা তোমাদের কৃতকর্মের জন্য লজ্জিত হবে।( হুজরাত : আয়াত ৬)


লেখক : শিক্ষার্থী, মা’হাদুল ইকতিসাদ ওয়াল ফিকহীল ইসলামী, ঢাকা  


 

আরো পড়ুন