শিরোনাম :

  • নয়াপল্টনে বিএনপির নেতাকর্মীদের সঙ্গে পুলিশের সংঘর্ষ জবানবন্দিতে বুলুসহ ১৫ বিএনপি নেতার নাম পেয়েছে পুলিশ সেনা অভ্যুত্থানবিরোধী বিক্ষোভে উত্তাল সুদান, সংঘর্ষে নিহত ৭দুই ট্রাকের মুখোমুখি সংঘর্ষ, নিহত ২
মো: জোবাইদুল ইসলাম
রাগ সংবরণ মুমিনের গুণ
৩০ ডিসেম্বর, ২০২১ ২০:৩৭:৪৮
প্রিন্টঅ-অ+

 


একজন মুমিন প্রকৃত মুমিনরূপে নিজেকে গড়ে তুলতে হলে কিছু গুণাবলি নিজের মধ্যে অর্জন করতে হয়। পক্ষান্তরে কিছু মন্দ স্বভাব বর্জন করতে হয়। রাগ বা ক্রোধ মানুষের মন্দ স্বভাবগুলোর মধ্যে অন্যতম। হাদিসে এসেছে আবু হুরায়রা (রাঃ) থেকে বর্ণিতঃ রাসূলুল্লাহ (সাঃ) বলেন, প্রকৃত বলবান বীর পুরুষ সে নয় যে কুস্তিতে কাউকে ধরাশায়ী করে। আসল বীরপুরুষ হলো সেই ব্যক্তি যে ক্রোধের সময় নিজেকে সংবরণ করতে পারে। (বুখারী, মুসলিম, আবু দাউদ, আহমাদ, আবু আওয়া নাসাঈ) 


ক্রোধের সময় নিজেকে সংবরণ করতে পারা সহজ ব্যাপার নয়। কারণ, ক্রোধের সময় মানুষ হিতাহিত জ্ঞান শূণ্য হয়ে পড়ে। ক্রোধ মানুষের মানবীয় মূল্যবোধকে ধ্বংস করে দেয়। মানুষের ঈমানকে নষ্ট করে দেয়। যেমন হাদিস শরিফে এসেছে, ক্রোধ মানুষের ঈমানকে এমনিভাবে নষ্ট করে দেয় যেমনিভাবে পিপুল গাছের রস মধুকে নষ্ট করে দেয়।


রাগের সময় মানুষ অনেক ধ্বংসাত্মক ও অন্যায় কাজ করে বসে। এজন্য রাসূল (সা) রাগ করতে নিষেধ করেছেন। হাদিসে এসেছে হযরত আবু হুরায়রা (রা) হতে বর্ণিত, একদা জনৈক ব্যক্তি নবি করিম (সা) এর কাছে আরয করলেন, হে প্রিয় নবি করিম (সা) আমাকে কিছু উপদেশ দিন। তিনি বললেন, তুমি রাগ করবে না। লোকটি কয়েকবার একই কথা বললেন, রাসুল (সা) ও প্রত্যেকবারই বললেন, তুমি রাগ করবে না। (বুখারী)


এ মর্মে পবিত্র কুরআন মাজিদে আল্লাহ তায়ালা ইরশাদ করেছেন, যারা তাদের রাগ দমন করে, মানুষকে ক্ষমা করে- আল্লাহ এ ধরনের সৎকর্মশীলদের অত্যন্ত ভালোবাসেন। (সূরা আলে ইমরান : ১৩৪)


রাগ দমন কিভাবে করবে সে সম্পর্কে হাদিসে এসেছে রাসুল (সা) বলেছেন, কেউ দাঁড়ানো অবস্থায় রেগে গেলে সে যেন বসে যায়। তারপরও যদি রাগ না যায় তাহলে সে যেন শুয়ে পড়ে। (আবু দাঊদ) 


রাসূল (সা) আরও বলেছেন, রেগে গেলে চুপ হয়ে যাও। (মুসনাদ আহমাদ)


এ সম্পর্কে হাদিসে আরো এসেছে, সুলায়মান ইবনে সুরাদ (রাঃ) থেকে বর্ণিত, তিনি বলেন, আমি নবী (সাঃ)-এর সাথে বসা ছিলাম। দুই ব্যক্তি পরস্পরকে গালি দিতে লাগলো। তাতে তাদের একজনের চেহারা রক্তিম বর্ণ ধারণ করলো এবং তার শিরা-উপশিরা ফুলে গেলো। নবী (সাঃ) বলেন, অবশ্যই আমি এমন একটি কথা জানি, সে তা উচারণ করলে নিশ্চয় তার রাগ চলে যাবে। লোকজন ঐ লোকটিকে বললো, নিশ্চয় নবী (সাঃ) বলেছেন, তুমি বিতাড়িত শয়তান থেকে আল্লাহর আশ্রয় প্রার্থনা করো। সে বললো, আমি কি পাগল হয়ে গেছি। (বুখারী, মুসলিম)


অতএব আমাদেরকে পরিপূর্ণ মুমিনের গুণাবলি অর্জন করতে হলে রাগ নামক এই মন্দ স্বভাব পরিহার করতে হবে আর রাগ উঠলে তা সংবরণ করতে হবে।


লেখক : শিক্ষার্থী, আলিম ২য় বর্ষ, সুফিয়া নুরিয়া ফাজিল মাদ্রাসা, মিরসরাই, চট্টগ্রাম


সফলড়নধরফঁষরংষধস০৪@মসধরষ.পড়স


 

আরো পড়ুন