শিরোনাম :

  • বিদ্যুৎ স্বাভাবিক হতে সময় লাগবে ‘৮ থেকে ১০ ঘণ্টা’ ঢাকায় বিদ্যুৎ স্বাভাবিক ‘রাত ৮টার মধ্যে, চট্টগ্রামে ৯টায়’দুই ট্রাকের মুখোমুখি সংঘর্ষ, নিহত ২ আইসিসির সেরা হওয়ার দৌড়ে বাংলাদেশের নাসুমআফগান ক্রিকেট বোর্ডের সিইওকে বিদায় দিল তালেবান
অফিস থেকে ফিরে সঙ্গীকে ভুলেও যা বলবেন না
২৫ ফেব্রুয়ারি, ২০২২ ১৬:১৬:৪৫
প্রিন্টঅ-অ+

দাম্পত্য জীবনে ছোটখাট বিভিন্ন বিষয়েই দুজনের মধ্যে মনোমালিন্য বা ভুল বোঝাবুঝি হতেই পারে। কখনো কখনো আবার ছোট বিষয়টিকে কেন্দ্র করেই তুমুল ঝগড়া শুরু হয়। যা এক পর্যায়ে বিচ্ছেদেও রূপ নিতে পারে। বর্তমানে বেশিরভাগ স্বামী-স্ত্রীই দুজনে কর্মজীবী হওয়ায় বিভিন্ন মানসিক চাপে সামান্য বিষয়েও ঝগড়া লেগে যায়। এমনকি করোনাকালে দাম্পত্য সহিংসতা অতীতের তুলনায় বেড়েছে বলে জানা গেছে বিভিন্ন সমীক্ষায়।


বিশেষজ্ঞদের মতে, সারাদিন অফিসে নানা সমস্যার মধ্যে দিয়ে যান অনেকেই। সেখানে মনের উপর চাপ পড়লেও মুখ ফুটে কোনো প্রতিবাদ করা সম্ভব হয় না। এই অবস্থায় বাড়ি ফেরার পর অনেকের মাথা ঠিক থাকে না। ফলে অনেকেই বাঝে ব্যবহার করে বসেন সঙ্গীর সঙ্গে।


এর ফলে সঙ্গী মনে কষ্ট পেতে পারেন। তাই আপনাকে অবশ্যই এ বিষয়ের প্রতি খেয়াল রাখতে হবে। তাই আপনি বা আপনার সঙ্গী কিংবা দুজনেই যদি চাকরিজীবী হন তাহলে ঘরে ফিরে একে অন্যের সঙ্গে কথা বলার সময় বেশ কিছু বিষয় মাথায় রাখবেন।


তাহলে হঠাৎ করেই দাম্পত্য কলহের সৃষ্টি হবে না। চলুন তবে জেনে নেওয়া যাক, কাজ থেকে ফিরে কোন কথাগুলো সঙ্গীকে একেবারেই বলবেন না-


>> ভুল সবারই হতে পারে। তবে অফিস থেকে ফিরেই সঙ্গীর কোনো ভুল যদি আপনি ধরতে যান তাহলে দেখা দিতে পারে মারাত্মক সমস্যা। তাই আপনাকে অবশ্যই সতর্ক থাকতে হতে হবে। বাড়ি ফিরে একটু শান্ত হয়ে বসুন। তারপর যে কোনো কথা ঠান্ডা মাথায় শুরু করুন।


>> এই কাজটি এখনই করো! এভাবে অর্ডার বা হুকুম দেওয়ার ভঙ্গিতে কখনো সঙ্গীর সঙ্গে কথা বলবেন না। ঘরে ফিরেই সঙ্গীর কাজ বাড়িয়ে দিলে দেখা দেবে সমস্যা। তাই আপনাকেও যেমন বিষয়টি মাথায় রাখতে হবে ঠিক তেমনই অপরজনকেও বুঝতে হবে।


>> অফিস থেকে ফিরেই হিসাব নিকাশ করতে বসবেন না কিংবা খরচের বিষয়ে সঙ্গীকে দোষারোপ করবেন না। ঘরে ফেরার পর সঙ্গীর সঙ্গে হাসিমুখে কথা বলুন। খরচের বিষয়ে কথা বলার অনেক সময় পাবেন।


>> কাজের স্থানের রাগ-ক্ষোভ সেখানেই ঝেড়ে ফেলে আসুন। সেখানকার হতাশা বাড়িতে নিয়ে আসবেন না। অনেকেই বিভিন্ন জায়গার রাগ-ক্ষোভ ঘরে দেখান। এর ফলে অজান্তেই সঙ্গীর সঙ্গে চিৎকার করে ভালোমন্দ বলে ফেলেন। যা একদমই ভুল কাজ। এতে অশান্তি আরও বাড়বে। এই অভ্যাস অন্যান্য সদস্যদের প্রতি আপনাকে ছোট করে দিতে পারে। এমনকী সঙ্গী দূরেও চলে যেতে পারেন। তাই এই কাজ একেবারেই উচিত হবে না।

আরো পড়ুন