শিরোনাম :

  • নয়াপল্টনে বিএনপির নেতাকর্মীদের সঙ্গে পুলিশের সংঘর্ষ জবানবন্দিতে বুলুসহ ১৫ বিএনপি নেতার নাম পেয়েছে পুলিশ সেনা অভ্যুত্থানবিরোধী বিক্ষোভে উত্তাল সুদান, সংঘর্ষে নিহত ৭দুই ট্রাকের মুখোমুখি সংঘর্ষ, নিহত ২
দ্রব্যমূল্য নিয়ে প্রতিবাদ করা এ দেশে এখন অন্যায় : রেজা কিবরিয়া
০৬ মার্চ, ২০২২ ১১:২০:১৯
প্রিন্টঅ-অ+

গণঅধিকার পরিষদের আহŸায়ক রেজা কিবরিয়া বলেছেন, ‘আমরা এ দেশে একটা অমানবিক, দুর্নীতিগ্রস্ত ও অপদার্থ স্বৈরতন্ত্রের মধ্যে বাস করছি। আগামী কয়েক মাসে এ সরকারের ওপর আরও আন্তর্জাতিক চাপ আসবে এবং বাংলাদেশের মানুষ মিছিল করে তাদের বিরুদ্ধে লড়বে। দ্রব্যমূল্যের দাম নিয়ে প্রতিবাদ করাটা এ দেশে এখন অন্যায়।’ 


গতকাল শনিবার জাতীয় প্রেস ক্লাবের তফাজ্জল হোসেন মানিক মিয়া হলে প্রফেশনালস মুভমেন্ট অব বাংলাদেশ আয়োজিত ‘দ্রব্যমূল্য সাধারণ মানুষের ক্রয়সীমার মধ্যে রাখা এবং গণতন্ত্র রক্ষায় রাজনৈতিক ও পেশাজীবী সংগঠনের ভূমিকা’ শীর্ষক এক সেমিনারের তিনি এসব কথা বলেন।


রেজা কিবরিয়া বলেন, ‘ব্যাংকিং খাতকে নিয়মতান্ত্রিকভাবে লুট করেছে আওয়ামী লীগের নেতৃত্বের সরকার। এগুলো মানুষের সামনে তুলে ধরাটা পেশাজীবীদের জন্য গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব।’


নাগরিক ঐক্যের সভাপতি মাহমুদুর রহমান মান্না বলেন, ‘যখন ক্লাস ওয়ানের প্রশ্নপত্র ফাঁস হয়, তখন প্রধানমন্ত্রী বলেছিলেন, এরকম প্রশ্নপত্র ফাঁস তো বহু আগে থেকেই হচ্ছে। কত নির্বিকার। চট্টগ্রামে টিসিবির ট্রাকের পেছনে নারী-পুরুষ দৌড়াচ্ছে। এই সরকারের বিরুদ্ধে পেশাজীবীরা একা কিছু করতে পারবে না।’


মান্না বলেন, ‘রাজনীতির লড়াইয়ে পেশাজীবীদের ভূমিকা আছে। এই সরকারের অধীনে ভোট হবে না। এই সরকারকে অপসারণ করতে হবে, এই সরকারকে সরিয়ে কাকে আনবো সেটাও নির্ধারণ করতে হবে পেশাজীবীদের।’


বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান শওকত মাহমুদ বলেন, ‘রাজনীতিবিদ নাকি পেশাজীবী- কে আন্দোলন করবে এ প্রশ্ন এসেছে। পেশাজীবীরা আন্দোলনের সহায়ক শক্তি। তারা এক ধরনের স্ফুলিঙ্গ তৈরি করতে পারেন। তবে এ স্ফুলিঙ্গের পরিণতি রাজনীতিবিদদের হাতে। পেশাজীবীরা নিরব হয়ে বসে থাকতে পারে না। শেখ হাসিনার মতো স্বৈরাচার, দুর্নীতিবাজের পতন ঘটানো দরকার। আমরা আন্দোলন করব। এ আন্দোলন থেকে জাতীয় মুক্তি সংগ্রাম তৈরি হবে।’


লিবারেল ডেমোক্র্যাটিক পার্টির মহাসচিব রেদোয়ান আহমেদ বলেন, ‘দেশের ছোট-খাট থেকে বড় আন্দোলনের ইতিহাসে অগ্রভাগে পেশাজীবীরা অংশ নিয়েছে। আন্দোলন করার পরিস্থিতি, পরিবেশ পাকিস্তান আন্দোলনেও ছিল। তবে তা বর্তমানে নেই। দুই বছরের জন্য জাতীয় সরকার করতে হবে। না হলে সমস্যার সমাধান হবে না।’


সেমিনারে মূল বক্তব্যে প্রফেশনালস মুভমেন্ট অব বাংলাদেশের আহŸায়ক অধ্যক্ষ মো. সেলিম ভূঁইয়া বলেন, টিসিবির ট্রাকের লাইনে কারা দাঁড়াচ্ছে তা দেখে দেশের বর্তমান বাজার পরিস্থিতি বোঝা যায়। দ্রব্যমূল্যের ঊর্ধ্বগতির প্রতিবাদ করতে গিয়ে আজ মানুষকে গ্রেপ্তার করা হচ্ছে, লাঠিপেটা করা হচ্ছে। দেশকে দুর্বৃত্তায়নের হাত থেকে রক্ষা করতে পেশাজীবীরা ঐক্যবদ্ধভাবে রাজপথে অংশ নেবে এটাই সবার প্রত্যাশা।

আরো পড়ুন