শিরোনাম :

  • নয়াপল্টনে বিএনপির নেতাকর্মীদের সঙ্গে পুলিশের সংঘর্ষ জবানবন্দিতে বুলুসহ ১৫ বিএনপি নেতার নাম পেয়েছে পুলিশ সেনা অভ্যুত্থানবিরোধী বিক্ষোভে উত্তাল সুদান, সংঘর্ষে নিহত ৭দুই ট্রাকের মুখোমুখি সংঘর্ষ, নিহত ২
আ.লীগে বিশৃঙ্খলাকারীদের জায়গা নেই : লিটন
২২ মার্চ, ২০২২ ১৫:৫৪:২২
প্রিন্টঅ-অ+

বিশৃঙ্খলাকারীদের আওয়ামী লীগে কোনো জায়গা নেই বলে হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করেছেন দলটির প্রেসিডিয়াম সদস্য এ এইচ এম খায়রুজ্জামান লিটন। কেন্দ্রীয় নেতাদের সামনে আওয়ামী লীগের স্থানীয় দুই গ্রæপের সংঘর্ষের পর শুরু হওয়া সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখতে গিয়ে খায়রুজ্জামান লিটন এ হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করেন।


রাজশাহীর বাঘা উপজেলা আওয়ামী লীগের এ ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। গতকাল  সামবার বেলা ১১টায় শাহদৌলা সরকারি কলেজ মাঠে আয়োজিত সম্মেলনে প্রধান অতিথি ছিলেন আওয়ামী লীগের সভাপতিমÐলীর সদস্য ও রাজশাহী সিটি করপোরেশনের মেয়র এ এইচ এম খায়রুজ্জামান লিটন।


খায়রুজ্জামান লিটন বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের হাতে গড়া উপমহাদেশের অন্যতম প্রাচীনতম দল বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ। আওয়ামী লীগ কখনো চোরাপথ বা অন্ধকার পথ দিয়ে ক্ষমতায় আসেনি। আওয়ামী লীগ জনগণের দল। জনগণকে সঙ্গে নিয়ে রাজনীতি করে যাচ্ছে। আগামী জাতীয় নির্বাচনকে সামনে রেখে বঙ্গবন্ধু কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে তৃণমূলে আওয়ামী লীগকে আরও শক্তিশালী করতে জেলা-উপজেলায় সম্মেলন করা হচ্ছে। সম্মেলনের মাধ্যমে নেতৃত্ব নির্বাচিত করা হচ্ছে। তাই আওয়ামী লীগে বিশৃঙ্খলাকারীদের কোনো জায়গা নেই।


তিনি আরও বলেন, গত ১৩ বছরে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশে ব্যাপক উন্নয়ন দৃশ্যমান হয়েছে। পদ্মা সেতু, মেট্রোরেল, যমুনা সেতুর রেল সংযোগ, রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্র, মাতারবাড়ী কয়লা বিদ্যুৎকেন্দ্র, এলএনজি টার্মিনাল নির্মাণ প্রকল্প, কয়লাভিত্তিক রামপাল বিদ্যুৎকেন্দ্র, পায়রা গভীর সমুদ্রবন্দর নির্মাণসহ দেশে ব্যাপক উন্নয়ন আজ দৃশ্যমান।


খায়রুজ্জামান লিটন বলেন, দেশের দুই ধারার রাজনীতি বিদ্যমান। এক ধারা আমরা মহান মুক্তিযুদ্ধের পক্ষের মানুষ, অন্যদিকে স্বাধীনতাবিরোধীরা। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ যখন এগিয়ে যাচ্ছে, নির্বাচন যখন সামনে আসছে, তখন আওয়ামী লীগ সরকারের উন্নয়ন ও সফলতার বিরুদ্ধে বিএনপি-জামায়াত নানাভাবে নানা কথা বলছে।


পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী ও বাঘা উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি শাহরিয়ার আলমের সভাপতিত্বে সম্মেলনে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক এস এম কামাল হোসেন। সম্মেলনে উদ্বোধক ছিলেন রাজশাহী জেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি অনিল কুমার সরকার।


সম্মেলনে প্রধান বক্তা ছিলেন জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আব্দুল ওয়াদুদ দারা। এতে বিশেষ অতিথি ছিলেন কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের সদস্য ও বিএমডিএ চেয়ারম্যান আখতার জাহান। সম্মেলনে আরও বক্তব্য রাখেন মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মো. ডাবলু সরকার। সঞ্চালনা করেন বাঘা উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মো. আশরাফুল ইসলাম বাবুল।


সম্মেলনের শুরুতে জাতীয় ও দলীয় পতাকা উত্তোলন, বেলুন ও পায়রা উড়িয়ে সম্মেলনের উদ্বোধন করেন প্রধান অতিথিসহ অতিথিরা। সম্মেলনের প্রথম অধিবেশন শেষে সম্মেলন মঞ্চেই দ্বিতীয় অধিবেশন অনুষ্ঠিত হয়। প্রথম অধিবেশনে বাঘা উপজেলা আওয়ামী লীগের কমিটিকে বিলুপ্ত ঘোষণা করা হয়।


ফের উপজেলা সভাপতি হলেন শাহরিয়ার আলম। সম্মেলনের দ্বিতীয় অধিবেশনে বাঘা উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি পদে পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম ও সাধারণ সম্পাদক পদে আশরাফুল ইসলাম বাবুল বিনা প্রতিদ্ব›িদ্বতায় পুনরায় নির্বাচিত হয়েছেন। সম্মেলনে দ্বিতীয় অধিবেশনে নব-নির্বাচিত সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের নাম ঘোষণা করেন আওয়ামী লীগের সভাপতিমÐলীর সদস্য এ এইচ এম খায়রুজ্জামান লিটন।

আরো পড়ুন