শিরোনাম :

  • রাজধানীতে ট্রাকের ধাক্কায় বৃদ্ধ নিহত জবানবন্দিতে বুলুসহ ১৫ বিএনপি নেতার নাম পেয়েছে পুলিশ উখিয়ায় রোহিঙ্গা ক্যাম্পে সন্ত্রাসীদের গুলিতে নিহত ২দুই ট্রাকের মুখোমুখি সংঘর্ষ, নিহত ২
কারবালার ঘটনা আর ১৫ আগষ্টের ঘটনা একই ধরণের : এমপি হাবিব হাসান
নগর প্রতিবেদক, উত্তরা
২৭ আগস্ট, ২০২২ ১৯:৩২:১০
প্রিন্টঅ-অ+

ঢাকা মহানগর উত্তর আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ঢাকা১৮ আসনের সংসদ সদস্য আলহাজ্ব মোঃহাবীব হাসান এমপি বলেছেন, আমরা কারবালা দেখিনি কিন্তু ১৫ই আগষ্ট দেখেছি। কারবালার ঘটনা আর ১৫ আগষ্টের ঘটনা সেম ঘটনা। শুক্রবার বিকেলে রাজধানীর উত্তরা ৩ নাম্বার সেক্টর কল্যাণ সমিতির উদ্যোগে নিজস্ব কার্যালয়ে আয়োজিত জাতীয় শোকদিবস উপলক্ষে আলোচনা সভার প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।


৩ নাম্বার সেক্টর কল্যাণ সমিতির সভাপতি শেখ মামুনুল হক ( শেখ মামুন) এর সভাপতিত্বে সাধারণ সম্পাদক মোঃ শাহজাহান এর সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে তিনি আরো বলেন, বঙ্গবন্ধু শৈশবকাল থেকে একজন দৃঢ়চিত্ত্বের মানুষ ছিলেন। একজন মহামানব ছিলেন যার জন্ম না হলে হয়তো আমরা স্বাধীনতা পেতাম না। অপরদিকে জিয়া পাকিস্তানের পেয়ারকা দোস্ত ছিলো। আমরা নিন্দা জানাচ্ছি খালেদা জিয়াকে যে শোকের দিনে জন্মদিন পালন করে। অনেক নেতা ও আছেন, অনেক কর্মী আছেন; কিন্তু বঙ্গবন্ধুর ভালোবাসা জননেত্রীর ভালোবাসা নিয়ে কেউ আসেনা। 


অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন উত্তরা পূর্বথানা- আওয়ামীলীগের সাবেক সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা মোঃ কুতুবউদ্দিন আহমেদ, সাবেক সাধারণ সম্পাদক মডিউল হক মতি,পশ্চিম থানা আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি এডভোকেট মনোয়ারুল ইসলাম রবিন, সাবেক সাধারণ সম্পাদক সাহিদ ছিদ্দিকী কাক্কা, বিমান বন্দর থানা আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি শাজাহান আলী মন্ডল, উত্তরখান  আওয়ামীলীগের সাবেক সভাপতি কামাল উদ্দিন, দক্ষিণখান থানা আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি মোঃ আবু হানিফ, উত্তরা ১ নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি সালাহ উদ্দিন আহমেদ খোকা, খিলক্ষেত থানা আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক হাজী আসলাম উদ্দিন, বিশিষ্ট আওয়ামী লীগ নেতা নুরুল আমিন নুরু, হাজী নাসির উদ্দীন, শফিকুল আলম মুক্তাসহ স্থানীয় আওয়ামী লীগ, যুবলীগ, স্বেচ্ছাসেবক লীগ, ছাত্রলীগসহ বিভিন্ন অংগ সংগঠনের নেতাকর্মী, কল্যাণ সমিতির কর্মচারী কর্মকর্তা ও গন্যমান্য ব্যাক্তিবর্গ। 


সভাপতির বক্তব্যে শেখ মামুনুল হক ১৯৭৫ সালের আগষ্ট মাসের সৃতিচারণ করে আবেগাপ্লুত হয়ে যান এবং পারিবারিক বিভিন্ন বিষয়ে কথা বলেন। শেষে বঙ্গবন্ধু ও তার পরিবারের সদস্যদের আত্মার মাগফিরাত কামনা করে দোয়া মোনাজাত ও তোবারক বিতরণ করা হয়।

আরো পড়ুন