শিরোনাম :

  • নয়াপল্টনে বিএনপির নেতাকর্মীদের সঙ্গে পুলিশের সংঘর্ষ জবানবন্দিতে বুলুসহ ১৫ বিএনপি নেতার নাম পেয়েছে পুলিশ সেনা অভ্যুত্থানবিরোধী বিক্ষোভে উত্তাল সুদান, সংঘর্ষে নিহত ৭দুই ট্রাকের মুখোমুখি সংঘর্ষ, নিহত ২
সাকিব-তামিমরা নাম লেখালেন কেন্দ্রীয় চুক্তিতে
২১ এপ্রিল, ২০২২ ১১:৪২:০৮
প্রিন্টঅ-অ+

গত ১০ মার্চ খেলোয়াড়দের সঙ্গে কেন্দ্রীয় চুক্তির তালিকা প্রকাশ করে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)। তিন ফরম্যাটের আলাদা আলাদা চুক্তিতে সুযোগ পেয়েছেন সর্বমোট ২১ ক্রিকেটার। তবে জাতীয় দল আর ক্লাব ক্রিকেটের ব্যস্ততার জন্য এতোদিন কোনো ক্রিকেটারই তাদের চুক্তিপত্রে স্বাক্ষর করেননি। বুধবার বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড কার্যালয়ে ২১ ক্রিকেটারদের অধিকাংশই উপস্থিত হয়ে চুক্তি সম্পন্ন করেছেন।


সংবাদমাধ্যমকে বিসিবির ক্রিকেট পরিচালনা বিভাগের চেয়ারম্যান জালাল ইউনুস বলেন, ‘সবাইকে একসাথে ডেকেছিলাম চুক্তি স্বাক্ষর করার জন্য। সেজন্যই সবাই এসেছিল, কয়েকজন আসতে পারেনি ব্যক্তিগত কারণে। অলমোস্ট ১৭-১৮ জন ছিল, আমরা সবাই একসাথে বসছিলাম। অনেকেই প্রিমিয়ার লিগে ব্যস্ত ছিল, একসাথে পাওয়া যাচ্ছিল না। আমরা বসে নিজেদের মধ্যে খেলা নিয়ে আলোচনা করেছি।’


বুধবার সকালে যুক্তরাষ্ট্র থেকে ঢাকায় ফিরেছেন সাকিব আল হাসান। বাঁহাতি অলরাউন্ডারও উপস্থিত ছিলেন রাজধানীর মিরপুরে বোর্ড অফিসে। তামিম ইকবাল, মাহমুদউল্লাহ রিয়াদসহ সব মিলিয়ে ১৮ জন উপস্থিত হন। ছিলেন না মুস্তাফিজুর রহমান, সাদমান ইসলাসহ ৩ ক্রিকেটার।


বিসিবির কেন্দ্রীয় চুক্তি হয়েছে ক্রিকেটারদের মতামত প্রাধান্য দিয়ে, কে কোন ফরম্যাটে খেলতে চান, কোনটাতে খেলতে চান না সেই প্রক্রিয়া মেনে। তবে বোর্ড মনে করছে এখন সময় এসেছে, খেলোয়াড়দের বোর্ডের চাওয়ার বিষয়টিও মাথায় রাখার।


জালাল ইউনুসের ব্যাখ্যা, ‘আমরা তো চাই খেলোয়াড়রা চুক্তি অনুযায়ী খেলুক। অনেকেই ব্যক্তিগত কারণে খেলতে পারে না, সেটা ভিন্ন জিনিস। তখন আমরা অন্য দৃষ্টিতে দেখব। আমার মনে হয় এখন সময় এসেছে যে খেলোয়াড়দের বলতে পারি তোমাকে এই ফরম্যাটে চাই আমরা। এটা আমরা বলতে পারি, তখন সে বলতে পারে এভেইলবল কি না। কিন্তু খেলোয়াড়রা কোন ফরম্যাটে খেলবে সেটা আমরা বোর্ড থেকে বলতে চাই।’


এবার ঘোষিত চুক্তিতে সংস্করণেই আছেন পাঁচজন। মুশফিকুর রহিম, সাকিব আল হাসান, লিটন দাস, তাসকিন আহমেদ ও শরীফুল ইসলাম। তারা আগেরবারও তিন সংস্করণের চুক্তিতে ছিলেন। শুধু টেস্টে ১৪ জন, ওয়ানডেতে ১০ জন এবং টি-টোয়েন্টিতে আছেন ১২ জন।


আগের চুক্তি থেকে এবার বাদ পড়েছেন ক্রিকেটার ৫ জন। তারা হলেন- মোহাম্মদ সাইফউদ্দিন, সাইফ হাসান, সৌম্য সরকার, আবু জায়েদ চৌধুরী রাহী ও শামীম হোসেন পাটোয়ারি। তাদের মধ্যে সাইফউদ্দিন ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টি, সাইফ টেস্ট, সৌম্য টি-টোয়েন্টি, রাহী টেস্ট এবং শামীম টি-টোয়েন্টির চুক্তিতে ছিলেন। একাধিক ফরম্যাটের চুক্তিতে থেকে এবার বাদ পড়া একমাত্র ক্রিকেটার সাইফউদ্দিন। 


এবার প্রথমবারের মত জায়গা পেয়েছেন ২ ক্রিকেটার। তারা হলেন- মাহমুদুল হাসান জয় ও ইয়াসির আলী চৌধুরী। এক বছর পর আবার চুক্তিতে ফিরেছেন নাঈম শেখ। চুক্তির মেয়াদ থাকবে আগামী ডিসেম্বর পর্যন্ত।

আরো পড়ুন