শিরোনাম :

  • জবানবন্দিতে বুলুসহ ১৫ বিএনপি নেতার নাম পেয়েছে পুলিশ উখিয়ায় রোহিঙ্গা ক্যাম্পে সন্ত্রাসীদের গুলিতে নিহত ২দুই ট্রাকের মুখোমুখি সংঘর্ষ, নিহত ২ আইসিসির সেরা হওয়ার দৌড়ে বাংলাদেশের নাসুম
দাপুটে জয়ে সিরিজ সমতায় বাংলাদেশ
৩১ জুলাই, ২০২২ ২১:০৪:৫০
প্রিন্টঅ-অ+


তারুণ্য নির্ভর দল নিয়ে খেলতে নেমে তিন ম্যাচ সিরিজের প্রথম টি-টোয়েন্টিতে হেরে ১-০ ব্যবধানে পিছিয়ে পড়েছিলো সফররত বাংলাদেশ। অবশ্য দ্বিতীয় ম্যাচে দাপুটে জয়ে সিরিজ সমতায় ফিরল নুরুল হাসান সোহান বাহিনী। হারারে ক্রিকেট গ্রাউন্ডে দ্বিতীয় ম্যাচে ৭ উইকেটের বড় ব্যবধানে জিতেছে টাইগাররা। সিরিজ নির্ধারণী তৃতীয় ম্যাচে আগামী মঙ্গলবার মাঠে নামবে দুদল।



জিম্বাবুয়ের দেয়া ১৩৬ রানের টার্গেটে ব্যাট করতে নেমে ব্যক্তিগত ৭ রানে আউট হন ওপেনার মুনিম শাহরিয়ার। তাতে সমস্যায় পড়তে হয়নি রাসেল ডোমিঙ্গোর শিষ্যদের। এনামুল বিজয়কে সঙ্গে নিয়ে পাওয়ার প্লেতে ৫৩ রান তুলেন লিটন। এরপর পূরণ করেন ব্যক্তিগত অর্ধশতক। শেন উইলিয়ামসের বলে এলবিডব্লিউর ফাঁদে পড়ার আগে মাত্র ৩৩ বলে করেন ৫৬ রান।



লিটনের পর সাজঘরের পথ ধরেন এনামুল হক বিজয়ও। ব্যক্তিগত খাতায় তিনি যোগ করতে পেরেছেন মাত্র ১৬ রান। পরে আর অবশ্য উইকেট হারাতে হয়নি সফরকারীদের। চতুর্থ উইকেট জুটিতে আফিফ হোসেন ধ্রুব ও নাজমুল হোসেন শান্তর অপ্রতিরোধ্য ৫৫ রানের জুটিতে জয়ের বন্দরে পৌঁছে যায় বাংলাদেশ। ৩০ রানে আফিফ ও ১৯ রানে শান্ত অপরাজিত থাকেন।



এর আগে ম্যাচের শুরুতে টস জিতে প্রথমে ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নেন জিম্বাবুইয়ান অধিনায়ক ক্রেইগ এরভিন। টসে হারা বাংলাদেশের অধিনাক নুরুল হাসান সোহান ইনিংসের প্রথম ওভার করার জন্য বল তুলে দেন মোসাদ্দেক হোসেনের হাতে। এই টাইগার স্পিনারের ঘূর্ণিতে শুরুতেই ব্যাটিং বিপর্যয়ে পড়ে স্বাগতিক জিম্বাবুয়ে দল।



ইনিংসের প্রথম বলেই কট বিহাইন্ড হন ওপেনার রেগিস চাকাভা। আর ওভারের শেষ বলে ব্যক্তিগত ৪ রানে শেখ মেহেদি হাসানের হাতে ক্যাচ তুলে দেন ওয়েসলি ম্যাধভেরে। নিজের শেষ ওভারে মিল্টন সুম্বাকে ফেরান মোসাদ্দেক। সুম্বা ব্যক্তিগত খাতায় যোগ করেছেন মাত্র তিন রান। এছাড়া শেন উইলিয়ামস ও ক্রেইগ এরভিনকেও ফেরান মোসাদ্দেক।



ষষ্ঠ উইকেটে রায়ার্ন বার্লকে সঙ্গে নিয়ে মাত্র ৩১ রানে ৫ উইকেট হারিয়ে দিশেহারা হয়ে পড়া জিম্বাবুয়ে দলের হাল ধরের সিকান্দার রাজা। এ সময় দুজন মিলে গড়েন ৮০ রানের জুটি। তাতেই একশর গণ্ডি পেরিয়ে যায় জিম্বাবুয়ে। ৩১ বলে ৩২ রান করে হাসান মাহমুদের বলে আউট হন বার্ল।



এদিকে প্রথম টি-টোয়েন্টির পর দ্বিতীয় ম্যাচেও অর্ধশতকের দেখা পান সিকান্দার রাজা। শেষ পর্যন্ত তার ইনিংস থামে ৬২ রানে। ৫৩ বলে খেলা তার এই ইনিংসটি চারটি চার ও দুটি ছয়ে সাজানো। ৬ রান করেন ওয়েলিংটন মাসাকাদজা। আর ১০ রানে লুক জংইউ ও শূন্যরানে রিচার্ড এনগারাভা অপরাজিত থাকেন। জিম্বাবুয়ের ইনিংস থেমেছে ১৩৫ রানে।



বাংলাদেশের পক্ষে ৪ ওভার বল করে মাত্র ২০ রানের খরচায় সর্বোচ্চ পাঁচটি উইকেট নেন মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত। এছাড়া একটি করে উইকেট উইকেটের দেখা পেয়েছেন মোস্তাফিজুর রহমান ও হাসান মাহমুদ।


আরো পড়ুন