শিরোনাম :

  • জবানবন্দিতে বুলুসহ ১৫ বিএনপি নেতার নাম পেয়েছে পুলিশ উখিয়ায় রোহিঙ্গা ক্যাম্পে সন্ত্রাসীদের গুলিতে নিহত ২দুই ট্রাকের মুখোমুখি সংঘর্ষ, নিহত ২ আইসিসির সেরা হওয়ার দৌড়ে বাংলাদেশের নাসুম
লাল কার্ডের ম্যাচে ড্র নিয়েই ফাইনালে বাংলাদেশ
নিউজ ডেস্ক
০২ আগস্ট, ২০২২ ২০:১৪:৫১
প্রিন্টঅ-অ+

নেপালের বিপক্ষে এর যেকোনো একটি হলেই সাফ অনূর্ধ্ব-২০ চ্যাম্পিয়নশিপের ফাইনালে খেলার রাস্তা উন্মুক্ত হতো বাংলাদেশের যুবাদের। ম্যাচটা শেষ পর্যন্ত ড্র করেছে তানভীর হোসেনরা। নেপালের সঙ্গে ১-১ গোলের ড্রয়ে যুব সাফের ফাইনালের টিকিট পেয়েছে বাংলাদেশ।


ম্যাচের সব উত্তাপ ছড়ায় দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতেই।  ম্যাচের ৪৭ মিনিটে তানভীরের একটি ফাউলকে কেন্দ্র করে দুই দলের ফুটবলাররা সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়েন। খেলা কিছুক্ষণ বন্ধ থাকার পর, রেফারিরা ভেবেচিন্তে  হলুদ কার্ড দেখান তানভীরকে। হলুদ কার্ড দেখানো হয় শহিদুল ইসলামকেও। প্রথমার্ধে ফাউল করে একটি হলুদ কার্ড দেখায় লাল কার্ড দেখে মাঠ ছাড়তে হয় তাকে। প্রতিবাদ জানিয়েও বদলাতে পারেননি রেফারির সিদ্ধান্ত। পরক্ষণে লাল কার্ড দেখানো হয় নেপালের ফরোয়ার্ড দীপেশ গুরুংকে। লাল কার্ড দেখেন নেপালের সাইড বেঞ্চে বসা রোহিত সুব্বাও।


রেফারির কার্ড দেখানো পর্ব শেষ হলেও, আবার শুরু হয় খেলা। ম্যাচের ৫৮ মিনিটে বল দখলে নিয়ে ডি বক্সের বাইরে থেকে একক নৈপুণ্যে শট নেন রফিকুল। তার নেয়া নিচু শট গ্লাভসবন্দী করেন নেপালের গোলকিপার। ম্যাচের ৬০ মিনিটে ডি বক্সের ভিতরে গোল করার দারুণ সুযোগ পেয়েছিল নেপাল। কিন্তু তানভীরদের রক্ষণদেয়াল ভেদ করতে ব্যর্থ হওয়ায় বল জড়ানো হয়নি জালে।


ম্যাচের ৬৩ মিনিটে কাঙ্ক্ষিত সাফল্যের দেখা পায় বাংলাদেশ। মাঝমাঠ থেকে পাস পেয়ে ডি বক্সের ডান কর্নার ধরে বল নিয়ে প্রতিপক্ষের রক্ষণভাগে ঢুকে নোভাকে পাস দেন তানভীর। পেনাল্টি এরিয়া থেকে আলতো শটে গোল করেন নোভা। সমতায় ফিরতে মরিয়া নেপালেরও গোলের দেখা পেতে বেশিক্ষণ অপেক্ষা করতে হয়নি। ৬৮ মিনিটে নিরঞ্জন মালার নেয়া দূরপাল্লার শটে সমতায় ফেরে নেপাল। ৭১ মিনিটে পিছিয়ে পড়তে পারতো বাংলাদেশ।


ডি বক্সের ভিতরে বলও পেয়ে গিয়েছিল নেপালের রত্ন চুঞ্জু। কিন্তু ডিফেন্ডারদের বাধায় শট নিতে পারেননি তিনি।ম্যাচের ৮৬ মিনিটে ডি বক্স লাইনের কাছেই ফ্রি কিক পেয়েছিল নেপাল। কিন্তু সুযোগ কাজে লাগাতে পারেনি তারা। ৮৮ মিনিটে দারুণ এক সুযোগ পেয়েও গোল মিস করেন নোভা। নেপালের গোলরক্ষক ছাড়া তাকে বাধা দেয়ার মতো আশেপাশে ছিল না কোনো ডিফেন্ডার। পরপর তিনি দুটি সুযোগ মিস করে সমর্থকদের হতাশ করেন।  শেষ পর্যন্ত ড্রয়ে সন্তুষ্ঠ থাকতে হয় দুই দলকে।


৪ ম্যাচে ১০ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষস্থানে থেকেই ফাইনাল নিশ্চিত করেছে লাল সবুজের প্রতিনিধিরা। ফাইনালে তাদের প্রতিপক্ষ ভারত। ৩ ম্যাচে তাদের পয়েন্ট নেপালের সমান ৬ হলেও, গোল ব্যবধানে এগিয়ে থাকায় নিশ্চিত হয়েছে তাদের ফাইনাল। 


 

আরো পড়ুন