শিরোনাম :

  • করোনা প্রাণ নিল আরও ৫০ জনের, নতুন শনাক্ত ১৭৪২করোনায় মৃত্যুবরণকারী ২ পুলিশ সদস্যের পাশে ডিএমপিমমতা ব্যানার্জিকে পররাষ্ট্রমন্ত্রীর অভিনন্দন বার্তাদেশে ফিরলেন লিবিয়ায় আটকেপড়া ১৬০ অভিবাসী
উদ্ধার হওয়া ফেনসিডিল বিক্রির ঘটনায় তদন্ত কমিটি
২২ এপ্রিল, ২০২১ ১৬:৫৭:৫৭
প্রিন্টঅ-অ+

বগুড়ায় জব্দকৃত ২৪৮ বোতল ফেনসিডিল থেকে ৮৮ বোতল বিক্রি করে দেয়ার ঘটনা তদন্তে কমিটি গঠন করা হয়েছে।


বৃহস্পতিবার (২২ এপ্রিল) বগুড়ার পুলিশ সুপার আলী আশরাফ ভূঞা এ তদন্ত কমিটি গঠন করেন


তিন সদস্য বিশিষ্ট তদন্ত কমিটির প্রধান করা হয়েছে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (পূর্ব) আলী হায়দার চৌধুরীকে। কমিটির অপর দুই সদস্য হলেন সদর সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ফয়সাল মাহমুদ ও শিবগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) সিরাজুল ইসলাম।


ফেনসিডিল বিক্রির ঘটনায় বুধবার (২১ এপ্রিল) শিবগঞ্জ সার্কেলের সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার আরিফুল ইসলাম সিদ্দিকী, মোকামতলা পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ পুলিশ পরিদর্শক শাহীন জামান ও উপ-পরিদর্শক (এসআই) সুজাউদ্দৌলাকে তাদের কর্মস্থল থেকে প্রত্যাহার করা হয়।


উল্লেখ্য, গত ৩ এপ্রিল রাতে বগুড়া-রংপুর মহাসড়কে চেকপোস্ট বসিয়ে বিভিন্ন যানবাহন তল্লাশি করেন মোকামতলা পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের সদস্যরা। চেকপোস্টে নেতৃত্ব দেন শিবগঞ্জ সার্কেলের সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার আরিফুল ইসলাম সিদ্দিকী। তল্লাশিকালে ঢাকাগামী বাস খালেক পরিবহন থেকে নাজিম নামের এক ব্যক্তিকে ৫০ বোতল এবং পিংকি পরিবহন নামের বাস থেকে সাইফুল ইসলাম নামের একজনকে ১৯৮ বোতল ফেনসিডিলসহ আটক করা হয়।


এ ঘটনায় মোকামতলা পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রে উপ-পরিদর্শক (এসআই) সুজাউদ্দৌলা বাদী হয়ে পৃথক দুটি মামলা দায়ের করেন। পিংকি পরিবহন থেকে উদ্ধারকৃত ১৯৮ বোতল ফেনসিডিলের স্থলে ১১০ বোতল জব্দ দেখিয়ে সাইফুলের নামে মামলা দেয়া হয়। বাকী ৮৮ বোতল ফেনসিডিল পুলিশের এক কর্মকর্তা সোর্সের মাধ্যমে বিক্রি করে দেন।


এমন অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে বগুড়ার পুলিশ সুপার মামলা দুটি ডিবিতে স্থানান্তরের আদেশ দেন। এছাড়া তিনি গত ২০ এপ্রিল মোকামতলা পুলিশ তদন্তকেন্দ্রে উপস্থিত হয়ে ফেনসিডিল উদ্ধারের সময় উপস্থিত পুলিশ সদস্য ছাড়াও মামলার সাক্ষীদেরকে জিজ্ঞাসাবাদ করেন।


বগুড়ার পুলিশ সুপার আলী আশরাফ ভুঞা বলেন, ‘তদন্ত কমিটিকে দ্রুত সময়ের মধ্যে এবিষয়ে প্রতিবেদন দিতে বলা হয়েছে।’

আরো পড়ুন