শিরোনাম :

  • হু হু করে বাড়ছে পানি আমার কাছে মনে হয় এই সিরিজে অনেক চ্যালেঞ্জিং : তামিম প্রিয়া সাহার অভিযোগ উদ্দেশ্যমূলক : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বাংলাদেশ সিরিজে শ্রীলঙ্কা দলে ফিরলেন চারজন প্রিয়া সাহার বিরুদ্ধে রাষ্ট্রদ্রোহের মামলা করবেন ব্যারিস্টার সুমন
পাবনায় চিকিৎসকের অবহেলায় শিশুর মৃত্যু
পাবনা প্রতিনিধি :
০৯ জুলাই, ২০১৯ ১৪:৪৫:২৫
প্রিন্টঅ-অ+


ঈশ্বরদীতে চিকিৎসকের অবহেলায় মদিনাতুল আক্তার মহনা নামে আড়াই বছরের এক শিশুর মৃত্যু হয়েছে বলে অভিযোগ করেছেন পরিবার। সন্তানের অকাল মুত্যুতে বাকরুদ্ধ বাবা-মা দোষীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানিয়েছেন।

শিশুর স্বজন সূত্রে জানা যায়, ঘন ঘন পাতলা পায়খানা ও বমি হওয়ায় শহরের শৈলপাড়া এলাকার মাছ ব্যবসায়ী মিন্টু মির্জার মেয়ে মহনাকে সোমবার (৮ জুলাই) সকালে ঈশ্বরদী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়।

সেখানে শারীরিক অবস্থার অবনতি হওয়ায় পরিবারের পক্ষ থেকে বারবার অনুরোধ করা হলেও জরুরি বিভাগে কর্তব্যরত চিকিৎসক এ বিষয়ে গুরুত্ব দেননি। এতে করে ক্রমশ নিস্তেজ হয়ে রাত ১০টায় মৃত্যু হয় তার।

বাবা মিন্টু মির্জা অভিযোগ করেন, ‘বারবার পানির মতো পাতলা পায়খানা, ঘন ঘন বমি, পায়খানার সঙ্গে রক্ত ও গায়ে জ্বর ছিল মহনার। বুঝতে পারছিলাম ক্রমশই সে নিস্তেজ হয়ে পড়ছে। জরুরি বিভাগে কর্তব্যরত চিকিৎসককে বারবার বলেছিলাম চিকিৎসার ব্যবস্থা করতে। কিন্তু তারা গুরুত্ব দেননি। এমনকি কোনো নার্সও তার চিকিৎসায় এগিয়ে আসেননি।

তিনি বলেন, শুধুমাত্র চিকিৎসকের গাফিলতিতে আমার সন্তান মারা গেল। এভাবে আর কোনো বাবা-মায়ের বুক যেন খালি না হয় সেজন্য দোষীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানাচ্ছি।

সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাসনিম তামান্না স্বর্ণা বলেন, ‘ঈশ্বরদী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসকের একাধিক পদ শূন্য আছে। অনেক সীমাবদ্ধতা সত্ত্বেও রোগীদের সর্বোচ্চ সেবা দিতে চেষ্টা করছি।’

চিকিৎসায় অবহেলার অভিযোগের ব্যাপারে তিনি বলেন, ‘প্রচণ্ড গরম ও খাদ্য বিষক্রিয়ার কারণে ডায়রিয়ায় আক্রান্ত হয়ে শিশুটির মৃত্যু হয়েছে। আমাদের পক্ষ থেকে চিকিৎসায় কোনো গাফিলতি ছিল না’।



আমার বার্তা/০৯ জুলাই ২০১৯/জহির


আরো পড়ুন