শিরোনাম :

  • নয়াপল্টনে বিএনপির নেতাকর্মীদের সঙ্গে পুলিশের সংঘর্ষ জবানবন্দিতে বুলুসহ ১৫ বিএনপি নেতার নাম পেয়েছে পুলিশ সেনা অভ্যুত্থানবিরোধী বিক্ষোভে উত্তাল সুদান, সংঘর্ষে নিহত ৭দুই ট্রাকের মুখোমুখি সংঘর্ষ, নিহত ২
বুথে ঢুকে এজেন্টরাই সিল মারছেন নৌকায়
০৫ জানুয়ারি, ২০২২ ১৪:৫৩:৩২
প্রিন্টঅ-অ+

পঞ্চম ধাপের ইউপি নির্বাচনে সাভারের কয়েকটি ইউনিয়নে অনিয়মের অভিযোগ উঠেছে। নৌকার পক্ষে এজেন্টরাই সিল মারছেন প্রকাশ্যে। কয়েকটি কেন্দ্রে দেখা যায় চেয়ারম্যান পদের ব্যালটপেপার উধাও। প্রিসাইডিং অফিসারের দাবি কে বা কারা সেটা নিয়ে গেছে।


সরেজমিনে আশুলিয়ার দোসাইদ এ কে স্কুল এন্ড কলেজের সামনে জটলা দেখা যায়। পাশেই উচ্চস্বরে কেউ কেউ বলছে ‘ব্যালট দেন’।


একটু এগিয়ে গিয়ে কথা হয় ভোটার মারুফ হোসেনের সঙ্গে। তিনি বলেন, এক ঘণ্টা লাইনে দাঁড়িয়ে থাকার পর বলছেন ব্যালটপেপার নেই। কেউ কেউ পাশ থেকে বলছেন ভোট দিতে পারেননি তারা।


সুজন নামের একজন বলেন, চেয়ারম্যানের ভোট প্রকাশ্যে দেওয়ার প্রতিবাদ করলে মারপিট করে তাকে বের করে দেয়।


বিষয়গুলো জানতে কথা হয় কেন্দ্রের প্রিসাইডিং অফিসার সুদীর কুমার বিশ্বাসের সঙ্গে।


তিনি বলেন, হঠাৎ করেই কয়েকজন ছেলে এসে ব্যালটপেপার নিয়ে চলে যায়। চেষ্টা করেও রক্ষা করা যায়নি। ঊর্ধ্বতনদের জানানো হয়েছে।


এছাড়াও আশুলিয়ার একটি কেন্দ্রে ভোটারের হাত থেকে ব্যালটপেপার নিয়ে বুথে প্রবেশ করে নৌকার এজেন্টকে সিল মারতে দেখা গেছে।


আশুলিয়া ইউনিয়নের ১নং ওয়ার্ডের জাবালে নুর বিদ্যা নিকেতন ভোটকেন্দ্রে এমন ঘটনা ঘটে।


এ ব্যাপারে স্বতন্ত্র প্রার্থী আনারস প্রতীকের এজেন্ট জমির আলী বলেন, সকাল থেকে ভালোভাবেই ভোটগ্রহণ চলছিল। কিন্তু দশটার দিকে এক ব্যক্তি এসে নৌকায় ওপেন ভোট দিতে বলেন। এরপর থেকেই নৌকার পোলিং এজেন্ট জিয়া ভোটারের কাছ থেকে ব্যালট পেপার নিয়ে বুথে প্রবেশ করে নিজেই সিল মারছেন। পরে পুলিশ এসে বন্ধ করে দেন।


এ ব্যাপারে পুলিশের দায়িত্বরত কর্মকর্তা আশুলিয়া থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) ইকবাল বলেন, এ ধরনের ঘটনা ঘটেনি। সামান্য জটলা সৃষ্টি হয়েছিল, পরে তা নিয়ন্ত্রণে নেওয়া হয়।


কেন্দ্রের প্রিসাইডিং কর্মকর্তা আব্দুল মালেক বলেন, আমি অভিযোগ পেয়ে পদক্ষেপ নিয়েছি। সঙ্গে সঙ্গে বন্ধ করেছি।

আরো পড়ুন