শিরোনাম :

  • বিদ্যুৎ স্বাভাবিক হতে সময় লাগবে ‘৮ থেকে ১০ ঘণ্টা’ ঢাকায় বিদ্যুৎ স্বাভাবিক ‘রাত ৮টার মধ্যে, চট্টগ্রামে ৯টায়’দুই ট্রাকের মুখোমুখি সংঘর্ষ, নিহত ২ আইসিসির সেরা হওয়ার দৌড়ে বাংলাদেশের নাসুমআফগান ক্রিকেট বোর্ডের সিইওকে বিদায় দিল তালেবান
বঙ্গবন্ধুর নাম মুছে ফেলতে সব ষড়যন্ত্র ব্যর্থ হয়েছে : অধ্যক্ষ মহসিন কবির
ক্যাম্পাস প্রতিনিধি
১৫ আগস্ট, ২০২২ ২০:৫৪:৪৬
প্রিন্টঅ-অ+

সোমবার (১৫ আগস্ট ২০২২) রাজধানীর সরকারি শহীদ সোহরাওয়ার্দী কলেজের অডিটোরিয়ামে অনুষ্ঠিত ১৫ই আগস্ট জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে আলোচনা সভায় প্রধান বক্তা হিসেবে অত্র কলেজের অধ্যক্ষ অধ্যাপক মোঃ মোহসিন কবীর বলেন,‘বঙ্গবন্ধুর নাম মুছে ফেলতে সব ষড়যন্ত্র ব্যর্থ হয়েছে।’


বাঙালি বীরের জাতি হলেও, তারা একই সাথে বিশ্বাসঘাতকের জাতি। উল্লেখ করে অধ্যক্ষ পলাশীর যুদ্ধের মীরজাফর এবং ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্টের খন্দকার মোশতাকারের কথা স্মরণ করিয়ে দেন। 


১৯৭৫ পরবর্তী বাংলাদেশের রাজনৈতিক পথ পরিবর্তনের বিষয় উল্লেখ করে তিনি বলেন, ৭৫ পরবর্তী দেশীয় কুচক্রী মহল চেয়েছিল বঙ্গবন্ধুর নাম বাংলাদেশ থেকে মুছে ফেলতে। এতে চালানোও হয়েছিল ব্যর্থ প্রচেষ্টা। বঙ্গবন্ধুর খুনীদের দেওয়া হয়েছিল মন্ত্রীর পদমর্যাদা এবং যারা রাজকার বা স্বাধীনতা বিরোধী শক্তি ছিল তাদের গাড়িতে ছিল বাংলাদেশের লাল-সবুজের পতাকা। পরবর্তীতে গণতন্ত্রের মানসকন্যা শেখ হাসিনার হাত ধরেই বাংলাদেশ আবারও গণতান্ত্রিক ধারায় এগিয়ে চলা শুরু করে।


বর্তমানেও আমাদের কর্মসংস্থান এবং আশেপাশে এখনও রয়েছে পলাশীর যুদ্ধ কিংবা ৭৫ এর ঘাতকের এক অংশ, এদেরকে শক্ত হাতে প্রতিহত করতে হবে তাহলেই গড়ে উঠবে বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলা। 


বঙ্গবন্ধুর ৪৭তম শাহাদাৎ বার্ষিকীর এই আলোচনা সভায় বিশেষ বক্তা হিসেবে বক্তব্য রাখেন উপাধ্যক্ষ অধ্যাপক ড. ফরিদা ইয়াসমিন এবং অফিসার্স কাউন্সিলের সম্পাদক ড. মোঃ আরশাদ হোসেন চৌধুরী।


১৫ আগস্ট জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে আয়োজিত এ সভার সভাপতি ছিলেন, অধ্যাপক মোঃ মোতালিব হোসেন, আহ্বায়ক, ১৫ আগস্ট জাতীয় শোক দিবস পালন কমিটি।


আলোচনা সভায় শেষে আয়োজিত প্রবন্ধ রচনা প্রতিযোগিতা, আবৃত্তি প্রতিযোগিতা এবং চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতায় বিজয়ীদের মধ্যে পুরস্কার বিতরণ করা হয়।

আরো পড়ুন