শিরোনাম :

  • আইসিইউ যাচ্ছে প্রান্তিক পর্যায়েও ভয়াবহ গ্রেনেড হামলা মামলার ১৬ জন এখনো কোথায়? রোনালদোর সতীর্থকে বার্সেলোনায় চান মেসি র‍্যাব-পুলিশ সদরের ঊর্ধ্বতন তিন কর্মকর্তাকে বদলি রাজীবের মৃত্যু : তদন্ত প্রতিবেদন দাখিল ২৬ সেপ্টেম্বর
কাকরাইলে মা-ছেলে হত্যা মামলার সাক্ষ্য ১৬ মে
নিজস্ব প্রতিবেদক :
০৯ মে, ২০১৯ ১৫:১৬:০৮
প্রিন্টঅ-অ+


রাজধানীর কাকরাইলে মা-ছেলেকে গলা কেটে হত্যার মামলায় নিহত শামসুন্নাহারের স্বামী আব্দুল করিমসহ তিনজনের বিরুদ্ধে সাক্ষ্যগ্রহণের জন্য আগামী ১৬ মে দিন ধার্য করেছেন আদালত।

বৃহস্পতিবার (৯ মে) ঢাকার তৃতীয় অতিরিক্ত মহানগর দায়রা জজ রবিউল ইসলাম এ দিন ধার্য করেন।

এদিন সাক্ষ্য দেন নিহতদের বাসার গৃহকর্মী রাশেদা বেগম। সাক্ষ্য শেষে তাকে জেরা করেন আসামিপক্ষের আইনজীবীরা।

২০১৭ সালের ১ নভেম্বর সন্ধ্যায় কাকরাইলের আঞ্জুমান মুফিদুল ইসলাম রোডের ৭৯/এ বাড়িতে মা শামসুন্নাহার (৪৫) ও তার ছেলে শাওনকে (ও লেভেল শিক্ষার্থী) গলা কেটে হত্যা করে দুর্বৃত্তরা।

ওই ঘটনায় ২ নভেম্বর নিহত শামসুন্নাহারের ভাই আশরাফ আলী বাদী হয়ে রমনা থানায় হত্যা মামলা করেন। মামলায় নিহত শামসুন্নাহারের স্বামী আব্দুল করিম, তার দ্বিতীয় স্ত্রী শারমীন মুক্তা, শ্যালক (মুক্তার ভাই) জনিসহ অজ্ঞাত কয়েকজনকে আসামি করা হয়।

আবদুল করিম পুরান ঢাকার শ্যামবাজারের ব্যবসায়ী। তিনি আদা-রসুন-পেঁয়াজের আমদানিকারক। মামলার পর আব্দুল করিম ও শারমীন মুক্তাকে গ্রেফতার দেখানো হয়। ২০১৮ সালের ১৬ জুলাই ঢাকা মহানগর হাকিম খুরশীদ আলমের আদালতে আব্দুল করিমসহ তিনজনের বিরুদ্ধে চার্জশিট দাখিল করেন রমনা থানার পরিদর্শক (তদন্ত) আলী হোসেন।

২০১৯ সালের ৩১ জানুয়ারি ঢাকার তৃতীয় অতিরিক্ত মহানগর দায়রা জজ রবিউল ইসলাম আসামিদের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করেন।



আমার বার্তা/০৯ মে ২০১৯/জহির


আরো পড়ুন