শিরোনাম :

  • ডি মারিয়া উড়িয়ে দিলেন রিয়ালকে তিন সপ্তাহ পরিকল্পনা, অতঃপর অভিযানের গ্রিন সিগন্যাল কোহলির ব্যাটে সহজ জয় ভারতের বিএনপি নেতা শামসুজ্জামান দুদুর বাড়িতে হামলা জাবি উপাচার্যকে পদত্যাগের জন্য আল্টেমেটাম
৫ পাদ্রির লালসার ফাঁদে এক নারী!
২৬ জুন, ২০১৮ ১৭:২৩:০১
প্রিন্টঅ-অ+


ভারতের কেরলের এক চার্চ থেকে একসঙ্গে পাঁচজন পাদ্রিকে বহিষ্কার করা হয়েছে। এক নারীকে ব্লাকমেইল করে ধারাবাহিক যৌন শোষণের অভিযোগে এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে গির্জা কর্তৃপক্ষ।

কেরলের কোট্টায়ম জেলার থিরুবাল্লার বাসিন্দা ওই নারীর স্বামী সম্প্রতি একটি অডিও ক্লিপ শেয়ার করেন সামাজিক মাধ্যমে। এতে তিনি উল্লেখ করেন- বিয়ের আগে তার স্ত্রীকে এক পাদ্রী ধর্ষণ করেছিল। এরই ধারাবাহিকতায় বিয়ের পর ওই ঘটনাকে পুঁজি করে ব্ল্যাকমেলিংয়ের ফাঁদে ফেলে তাকে ফের ধর্ষণ করে ওই পাদ্রি।

পরবর্তীতে নিজ কন্যার ব্যাপ্টিজমের নিয়ম-রসম পালনের সময়ে গির্জায় যান ওই নারী। এসময়ে অপর এক পাদ্রির কাছে যৌন শোষণের ওই ‘পাপের’ স্বীকারোক্তি করেন তিনি। কিন্তু ঘটনা জানার পর এই পাদ্রিও একই পথ ধরে অর্থাৎ তাকে ব্ল্যাকমেলিং শুরু করে।

নিপীড়িতার স্বামী অডিও ক্লিপে আরো জানান, ওই পাদ্রি সেখানকার অন্যান্য পাদ্রিদেরও এ ঘটনা জানায়। এরপর মোট পাঁচজন পাদ্রির অন্যায় যৌন লালসার শিকার হন তার স্ত্রী। এই ন্যাক্কারজনক ঘটনা মলানকারা অর্থডক্স চার্চকে জানিয়েছেন তারা। কর্তৃপক্ষ ঘটনার প্রাথমিক সত্যতা পেয়ে তাদেরকে দায়িত্ব থেকে অব্যাহতি দেয়। যদিও অভিযুক্তদের নাম প্রকাশ করা হয়নি।

মঙ্গলবার হিন্দি সংবাদ মাধ্যম জনসত্তা.কম জানায়, অডিও ক্লিপ প্রকাশকারী ব্যক্তি নিজের ও স্ত্রীর পরিচয় গোপন রেখেছেন। একই সঙ্গে এ ঘটনায় এখনও কোনো মামলা হয়নি বলে জানা গেছে। তবে স্থানীয় পুলিশ জানিয়েছে, অভিযোগ পেলে উপযুক্ত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

ঘটনা সম্পর্কে জানতে যোগাযোগ করা হলে মলানকারা অর্থডক্স চার্চের মুখপাত্র সংবাদ মাধ্যমকে জানান, পাদ্রিদের বিরুদ্ধে আনা অভিযোগের ঘটনা বেশ পুরনো। এর সত্যতা নিরূপণে তদন্ত চলছে। তিনি আরো জানান, যদি অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে শক্ত প্রমাণ মেলে তবে চার্চ মামলা পুলিশে সোপর্দ করবে।  



  আমার বার্তা/২৬জুন ২০১৮/জাকিয়া


আরো পড়ুন