শিরোনাম :

  • আবুধাবি পৌঁছেছেন প্রধানমন্ত্রী ২০১৮ সালে ২ কোটি ৯০ লাখ শিশুর জন্ম সংঘাতময় এলাকায় : ইউনিসেফ হাতিরঝিলে ভেসে উঠলো মরদেহ পেছাল ব্রাজিল-বাংলাদেশ, অপরিবর্তিত আর্জেন্টিনা কলাবাগান ক্রীড়াচক্রের সভাপতির বিরুদ্ধে দুই মামলা
ইউরোপের পরিবর্তনে ভূমিকা রেখে চলেছে 'চ্যানেল টানেল'
আমার বার্তা ডেস্ক :
০৫ মে, ২০১৯ ১১:৩২:৫৮
প্রিন্টঅ-অ+


চ্যানেল টানেল একটি আন্ডারওয়াটার রেল টানেল যা ইংল্যান্ড চ্যানেলের নীচে চলে। ৫০.৫ কিলোমিটার দীর্ঘ এই সুড়ঙ্গটি যুক্তরাজ্যের ফোকস্টোনকে ফ্রান্সের কোকুয়েলেসের সঙ্গে যুক্ত করেছে। ইউরোপের পরিবর্তনে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রেখে চলেছে এই চ্যানেল সুড়ঙ্গ।

৫০ কিলোমিটারের এই সুড়ঙ্গ পার হতে মাত্র ৩৫ মিনিট সময় লাগে। সময় সাশ্রয়ী হওয়ায় ১৯৯৪ সালের ৬ মে চালু হওয়ার অল্প দিনের মধ্যেই ফেরির বদলে মানুষ সুড়ঙ্গ দিয়ে চলাচল শুরু করে।

সুড়ঙ্গের দুই পাশে রয়েছে দুইটি রেল স্টেশন যার একটি যুক্তরাজ্যে, অন্যটি ফ্রান্সে অবস্থিত। ব্রিটেন থেকে সরাসরি ব্রাসেলস কিংবা আমস্টারডাম পর্যন্ত ট্রেন যোগাযোগ ব্যবস্থায়ও যুগান্তকারী ভূমিকা রাখে এই রেল সুড়ঙ্গ।

গত ২৫ বছরে এই সুড়ঙ্গ দুই দেশের মধ্যে যোগাযোগ ব্যবস্থায় যুগান্তকারী ভূমিকা রাখার পাশাপাশি দুই দেশের মধ্যের সম্পর্ককেও আরো গভীর করেছে। প্রতি বছর ৪৫ লাখ মানুষ চ্যানেল সুড়ঙ্গ ব্যবহার করেন। এই সুড়ঙ্গ দিয়ে ১৪০ বিলিয়ন ডলারের মালামাল পারাপার হয়। সময়ের সঙ্গে সঙ্গে আধুনিকায়ন হয়েছে ‘চ্যানেল টানেল’ সুড়ঙ্গের রেল ব্যবস্থা। সুড়ঙ্গ দিয়ে চলছে আধুনিক সুবিধা সম্পন্ন ট্রেনও। তাই দিন দিন আরো বেশি আকর্ষণীয় হয়ে উঠছে এই সুড়ঙ্গ।



আমার বার্তা/০৫ মে ২০১৯/জহির


আরো পড়ুন