শিরোনাম :

  • তিন অতিরিক্ত এসপিসহ সাত এএসপিকে বদলি বিশ্ব মানবাধিকার দিবস আজ এনআরসির বিরুদ্ধে জোট বাঁধার আহ্বান মমতার ধর্ষক রাম রহিমের সঙ্গে দেখা করলেন হানিপ্রীত
কসবার ট্রেন দুর্ঘটনায় চাঁদপুরের নিহত ৬
চাঁদপুর প্রতিনিধি :
১৩ নভেম্বর, ২০১৯ ১১:০৯:৩৬
প্রিন্টঅ-অ+


ব্রাহ্মণবাড়িয়ার কসবায় দুই ট্রেনের মুখোমুখি সংঘর্ষে নিহত ১৬ জনের মধ্যে চাঁদপুরের ছয়জন রয়েছেন। এর মধ্যে চাঁদপুরের হাজীগঞ্জ উপজেলার দুইজন ও হাইমচরের তিনজন ও সদর উপজেলার একজন নিহত হয়েছেন। একই ঘটনায় চাঁদপুর সদরের একই পরিবারের সাতজন আহত হয়েছেন।

গতকাল মঙ্গলবার (১২ নভেম্বর) ভোররাতে কসবা উপজেলার ঢাকা-চট্টগ্রাম রেলপথের মন্দবাগ রেলওয়ে স্টেশনের ক্রসিংয়ে আন্তনগর উদয়ন এক্সপ্রেস ও তূর্ণা নিশীথা ট্রেনের মধ্যে এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।

চাঁদপুরের নিহতরা হলেন- হাজীগঞ্জ উপজেলার রাজারগাঁও ইউনিয়নের পশ্চিম রাজারগাঁও গ্রামের বেপারীবাড়ীর মৃত. আব্দুল জলিলের ছেলে মজিবুর রহমান (৫০) ও তার স্ত্রী কুলসুমা বেগম (৪২), হাইমচর উপজেলার দক্ষিণ ঈশানপুরের মঈন উদ্দিনের স্ত্রী কাকলী (২০), ঈশানপুরের জাহাঙ্গীর মালের স্ত্রী আমাতুন বেগম (৪১) ও মেয়ে মরিয়ম (৪) এবং সদর উপজেলার বালিয়া ইউনিয়নের উত্তর বালিয়া গ্রামের বিল্লাল বেপারীর মেয়ে ফারজানা আক্তার (২০)।

হাজীগঞ্জের বাসিন্দা মো. আলমগীর হোসেন বলেন, মজিবুর রহমান স্ত্রী ও চার ছেলে সন্তানসহ শ্রীমঙ্গল থাকতেন। তাদের সঙ্গে তার মাও থাকেন। মজিবুর শ্রীমঙ্গলে ফেরি করে প্রসাধনী সামগ্রী বিক্রি করে জীবিকা নির্বাহ করতেন।

অপরদিকে নিহত ফারজানা আক্তার চাঁদপুর শহরের নাজিরপাড়া দেওয়ান বাড়ির মোহন দেওয়ানের স্ত্রী। তিনি সপরিবারে বিয়ের অনুষ্ঠান থেকে চাঁদপুরে ফিরে আসার পথে ট্রেন দুর্ঘটনার কবলে পড়েন। এ দুর্ঘটনায় নিহত ফারজানার মা বেবী বেগম (৪০), ভাই হাসান বেপারী (২৮), নানি ফিরোজা বেগম (৭০), ফারজানার মামি শাহিদা বেগম (৪০), মামাতো বোন মিতু (১৭), ইলমা (৭) ও মামাতো ভাই জুবায়ের (৩) আহত হয়েছেন। তারা ঢাকাসহ বিভিন্ন স্থানে চিকিৎসাধীন রয়েছেন বলে পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে।





আমার বার্তা/১৩ নভেম্বর ২০১৯/রহিমা


আরো পড়ুন