শিরোনাম :

  • জলবায়ু তহবিল গঠনে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের প্রতি আহ্বান প্রধানমন্ত্রী কুড়িগ্রাম এক্সপ্রেসের উদ্বোধন করবেন আজ নতুন টি-টোয়েন্টি লিগে খেলবেন শচিন লারা মুরালিরা বিমানের সিবিএ নির্বাচন আজ ক্যারিবীয় দলে সুযোগ পেলেন ওয়ালশ-কিং
স্মার্টফোন রিভিউ : অপো এ৯ ২০২০
আমার বার্তা ডেস্ক :
০৮ অক্টোবর, ২০১৯ ১১:০৮:১২
প্রিন্টঅ-অ+


দেশের বাজারে সম্প্রতি একটি ‘ফ্ল্যাগশিপ টার্মিনেটর’ স্মার্টফোন এনেছে অপো। এ৯ ২০২০ মডেলের এ স্মার্টফোনটিকে অপো অভিহিত করেছে সেরা দামে সেরা র‌্যামের স্মার্টফোন হিসেবে। এর কারণ হিসেবে অপো জানিয়েছে, ২৪ হাজার ৯৯০ টাকা দামের এ স্মার্টফোনে থাকছে ৮ গিগাবাইট র‌্যাম যা বাজারে থাকা একই দামের অন্যান্য স্মার্টফোন থেকে অপো এ৯ স্মার্টফোনটিকে এগিয়ে রেখেছে। এতে আরও থাকছে ৬.৫ ইঞ্চি আইপিএস ডিসপ্লে, ১২৮ গিগাবাইট স্টোরেজ স্পেস, চারটি রিয়ার ক্যামেরা এবং ১৬ মেগাপিক্সেল সেন্সরের একটি ফ্রন্ট ক্যামেরা। চলুন, স্মার্টফোনটি বিস্তারিত রিভিউ দেখে নেওয়া যাক...

ডিসপ্লে

অপো এ৯ ২০২০ স্মার্টফোনে ব্যবহার করা হয়েছে ৭২০ পিক্সেল বাই ১৬০০ পিক্সেল রেজ্যুলেশনের ৬.৫ ইঞ্চি আইপিএস এলসিডি ডিসপ্লে যার পিক্সেল ডেনসিটি ২৭০ পিপিআই, স্ক্রিন টু বডি রেশিও ৮৯%। এছাড়া ফোনটির ডিসপ্লের সুরক্ষায় ব্যবহার করা হয়েছে কর্নিং গরিলা গ্লাস। স্মার্টফোনটিতে ফুল এইচডি ডিসপ্লে ব্যবহার করা না হলেও এইচডি প্লাস ডিসপ্লে হওয়ায় দৈনন্দিন ব্যবহারে খুব একটা পার্থক্য করা যাবে না। এর ভিউইং অ্যাঙ্গেলও বেশ ওয়াইড। তাছাড়া সূর্যের আলোতেও ডিসপ্লে ব্যবহারে খুব একটা সমস্যা হবে না।

ডিজাইন

স্মার্টফোনটি মেটালিক বডির না হলেও এর গ্লসি লুক বেশ আকর্ষণীয় মনে হয়েছে। এর নিচের দিকে থাকছে একটি ৩.৫ মিলিমিটার হেডফোন জ্যাক, স্পিকার গ্রিল এবং ইউএসবি-সি পোর্ট। পেছনের দিকে আছে চারটি ক্যামেরা এবং ফিজিক্যাল ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর। মেরিন গ্রিন এবং স্পেস পার্পল রঙে স্মার্টফোনটি বাজারে পাওয়া যাবে। দুটি সিম কার্ডের পাশাপাশি একটি মেমোরি কার্ডও একইসাথে ফোনটিতে ব্যবহার করা যাবে।

সিপিইউ ও পারফরমেন্স

মিডরেঞ্জের স্মার্টফোন হলেও অপো এতে ব্যবহার করা হয়েছে ৮ গিগাবাইট র‌্যাম যার ফলে ফোনটিতে একসাথে অনেক অ্যাপ ব্যবহার করলেও এটি ধীরগতির হবে না। এছাড়া আছে উচ্চগতির ১২৮ গিগাবাইট ফ্ল্যাশ স্টোরেজ ক্যাপাসিটি। ফোনটিতে থাকছে স্ন্যাপড্রাগন ৬৬৫ অক্টাকোর প্রসেসর যার সাথে ব্যবহার করা হয়েছে অ্যাড্রেনো ৬১০ জিপিইউ। সবমিলিয়ে এর পারফরমেন্স বাজারে থাকা অন্যান্য স্মার্টফোনের থেকে বেশ এগিয়ে। ফোনটি ব্যবহারে কোনো ল্যাগ চোখে পড়বে না। এর গেমিং পারফরমেন্সও বেশ ভালো। গেম খেলার জন্য এতে থাকছে ‘গেম বুস্ট ২.০’ নামক বিশেষ একটি ফিচার। হাই-ডেফিনেশন গেম খেলার সময় এতে ফ্রেম ড্রপও খুব একটা চোখে পড়বে না। অপারেটিং সিস্টেম এতে অপারেটিং সিস্টেম হিসেবে থাকছে কালার ওএস ৬.০.১ যা অ্যান্ড্রয়েড ৯ পাই ভিত্তিক। অপো নিয়মিতই কালার ওএস’র উন্নয়নের কাজ করছে। এরই অংশ হিসেবে কালার ওএসের সর্বশেষ এ সংস্করণে নতুন কিছু ফিচার যুক্ত করার পাশাপাশি আগের কিছু সীমাবদ্ধতাও দূর করেছে।

ক্যামেরা

এতে থাকছে চারটি রিয়ার ক্যামেরা। এর মধ্যে মূল ক্যামেরাটি ৪৮ মেগাপিক্সেলের স্যামসাং জিএম ওয়ান সেন্সর। এর অ্যাপারচার এফ/১.৮। এর সাথে আছে ৮ মেগাপিক্সেলের আল্ট্রা ওয়াইড অ্যাঙ্গেল সেন্সর যা ১৯০ ডিগ্রি পর্যন্ত ভিউয়ের ছবি তুলতে সক্ষম। এছাড়া আছে একটি ২ মেগাপিক্সেল ম্যাক্রো ক্যামেরা এবং একটি ২ মেগাপিক্সেল ডেপথ সেন্সর। সামনে থাকছে ১৬ মেগাপিক্সেল ক্যামেরা যার অ্যাপারচার এফ/২.০। ক্যামেরা ফিচারে থাকছে প্রচলিত সব ফিচারই। পর্যাপ্ত আলোতে এই ফোনের ক্যামেরায় তোলা ছবি মুগ্ধ করার মতো। ছবির ফোকাস, ডিটেইলস এবং ডায়নামিক রেঞ্জ ছিল ঠিকঠাক। এছাড়া এর ম্যাক্রো ক্যামেরায় তোলা ছবিও ছিল অসাধারণ। অল্প আলোতে এর রিয়ার ক্যামেরায় তোলা ছবি খুব বেশি ভালো না হলেও কাজ চালানোর মতো। তবে নাইট মোড চালু করে তোলা হলে আবার অল্প আলোতেও ভালো ছবি দিয়েছে অপো এ৯ ২০২০। ফ্রন্ট ক্যামেরায় এইচডিআর মোড থাকায় এতেও বেশ ভালো ছবি পাওয়া গেছে। বিউটিফিকেশনের পাশাপাশি ফ্রন্ট ক্যামেরায় থাকছে পোর্টেট এবং প্যানারোমা মোড। এর রিয়ার ক্যামেরা ব্যবহার করে ৩০ এফপিএসে ৪কে ভিডিও ধারণ করা যাবে।

ব্যাটারি

ফোনটিতে থাকছে ৫,০০০ মিলিঅ্যাম্পিয়ার ব্যাটারি। সাধারণ ব্যবহারে একবার চার্জ দিলে অনায়াসেই ফোনটি দুইদিন ব্যবহার করা যাবে। তবে এতে ফাস্ট চার্জিং থাকছে না। ফুল চার্জ দিতে আড়াই ঘণ্টার একটু বেশি সময়ের প্রয়োজন হবে।



আমার বার্তা/০৮ অক্টোবর ২০১৯/জহির


আরো পড়ুন